Naya Diganta
সিদ্ধিরগঞ্জে পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই

১৩ দিনেও উদ্ধার হয়নি ব্যবসায়ীর ৩৮ লাখ টাকা

সিদ্ধিরগঞ্জে পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে দিন-দুপুরে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর ৩৮ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। ঢাকা তাঁতীবাজার থেকে স্বর্ণ বিক্রি করে নগদ টাকা নিয়ে বাসে করে চট্টগ্রাম যাওয়ার পথে সিদ্ধিরগঞ্জের কাঁচপুর ব্রিজের পশ্চিম ঢালে বাস থেকে নামিয়ে ৩৮ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে মোটরসাইকেলে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। ১৩ দিন পার হলেও ছিনতাইয়ের টাকা উদ্ধার হয়নি।
এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী স্বর্ণ ব্যবসায়ী পরিতোষ চন্দ্র ধর। তিনি চট্টগ্রাম হাটহাজারী থানার লাঙ্গলমোড়া এলাকার সুধীর চন্দ্র ধরের ছেলে। হাটহাজারী দারুসসালাম মার্কেটে রত্নশোভা শিল্পালয় নামে জুয়েলার্সে পার্টনারশিপে ব্যবসা করেন। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (নিরস্ত্র) শরীফ আহমেদ মামলাটি তদন্ত করছেন। গতকাল শুক্রবার বিকেলে পরিতোষ চন্দ্র ধর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
পরিতোষ চন্দ্র ধর জানান, গত ২০ ফেব্রুয়ারি ঢাকার তাঁতীবাজার রিজভী জুয়েলার্সে তার ব্যবসার ৬০ ভরি স্বর্ণ বিক্রির নগদ ৩৮ লাখ টাকা কালেকশন করে তা দু’টি ব্যাগে নেন। পরে সায়েদাবাদ থেকে খাদিজা ভিআইপি সার্ভিস (ঢাকা মেট্রো : ব-১৫-২১০০) পরিবহনে বিকেল ৩টা ৫০ মিনিটে চট্টগ্রামের উদ্দেশে রওনা দেন। বাসটি সিদ্ধিরগঞ্জের কাঁচপুর ব্রিজের পশ্চিম ঢালে পৌঁছলে চারজন ব্যক্তি ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে বাসটি থামায়। তাদের বয়স ৩৫-৪০ বছর হবে। এর মধ্যে তিনজন বাসে উঠে। তারা আমার কাছে এসে আমার ব্যাগ কোথায় জিজ্ঞেসা করে। আমি তাদের পরিচয় জিজ্ঞাসা করলে তাদের দুইজন পিস্তিল ও আইডি কার্ড বের করে ডিবি পুলিশ পরিচয় দেয়।
পরিতোষ চন্দ্র ধর জানান, ডিবি পুলিশ পরিচয় দেয়া লোকজন আমার টাকার ব্যাগ হাতে নিয়ে হুমকি দেয় তুই হুন্ডি ব্যবসা করিস। তোকে থানায় যেতে হবে। পরবর্তীতে আমাকে বাস থেকে নামিয়ে নেয় এবং বাস চলে যেতে বলে। বাসটি চলে গেলে দুর্বৃত্তরা আমার টাকার ব্যাগ নিয়ে আমাকে ফেলে রেখে মোটরসাইকেল নিয়ে চিটাগাং রোডের দিকে চলে যায়। পরে আমি দিশাহারা হয়ে যাই এবং পরিবারের সাথে পরামর্শ করে ২৩ ফেব্রুয়ারি থানায় মামলা দায়ের করি।
পরিতোষ চন্দ্র ধর জানান, পুলিশ আরো আন্তরিক হলে আমার টাকা উদ্ধার সম্ভব হবে এবং খাদিজা বাসের ড্রাইভার ও হেলপারকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে একটা রেজাল্ট পাওয়া যাবে।