Naya Diganta

শিবপুরে আ’লীগ সভাপতির সমর্থকদের হামলায় ছাত্রলীগ সভাপতি আহত

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সোহেল রানা সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন। স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তার অভিযোগ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হারুন অর রশিদ খানের সমর্থকদের হামলায় আহত হয়েছেন তিনি। এ নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের মধ্যে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোনো সময় আবারো সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।
সোহেল রানা ঢাকায় সাংবাদিকদের জানান, গত শনিবার বিকেলে শিবপুরের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও শিবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মরহুম ফজলুর রহমান ফটিক মাস্টারের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত হওয়া নিয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির মধ্যে টানাপড়েন দেখা দেয়। ওই দিন সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ সভাপতি হারুন অর রশিদ উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সোহেল রানা ও সাংগঠনিক সম্পাদক মহসীনকে ফোনে হুমকি দিয়ে মেরে ফেলার হুমকি দেন। এর ধারাবাহিকতায় পরদিন দুপুরে শিবপুর কলেজ গেটের সামনে সোহেল রানার ওপর হামলা চালায় আওয়ামী লীগ সভাপতির সমর্থকরা।
এতে সোহেল রানা গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যকে বিষয়টি জানালে তিনি তাৎক্ষণিকভাবে সোহেল রানার খোঁজখবর নেন। বিষয়টি মীমাংসারও আশ্বাস দেন। এ ঘটনা তদন্ত করে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান সোহেল রানা।
এ ব্যাপারে জানতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হারুন অর রশিদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।