Naya Diganta

১৫ বছর ধরে ড্রাগ আসক্তদের স্বাভাবিক জীবনে ফেরাচ্ছেন তুরস্কের ইমাম এমিন

এমিন কির

এমিন কির ২০০৬ সালে তুরস্কের সর্ববৃহৎ মেট্রোপলিটন শহর ইস্তান্বুলের বালাত অঞ্চলের কাব মসজিদে ইমামতির দায়িত্ব পেয়েছিলেন। তারপর থেকেই ইসলামি মূল্যবোধ ও সংস্কৃতির বিকাশে এক অগ্রগামী ভূমিকা পালন করে চলেছেন তিনি। ১৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে ইস্তান্বুলবাসীর সহায়তায় নিজের জীবনকে উৎসর্গ করেছেন এমিন। মানকল্যাণের পাশাপাশি ড্রাগ আসক্ত– গৃহহীন ও দরিদ্রদের উদার মনে সাহায্য করে চলেছেন। তাদের ঈমান ও ন্যায়ের পথে চালনা করেছেন। ইস্তান্বুলের যে সকল মানুষ ধর্মচর্চা থেকে নিজেদের দূরে সরিয়ে রেখেছেন– তাদের সঠিক পথে ফিরিয়ে আনছেন এমিন।

ঠিক কীভাবে শুরু হয়েছিল এমিনের সমাজকল্যাণমুখী কাজ। জানা যায়, ১৫ বছর আগে প্রতিবেশী অঞ্চলে ড্রাগ আসক্তদের দেখে কষ্ট পেয়েছিলেন এমিন। তখনই মনে মনে স্থির করেন এ ধরনের খারাপ অভ্যাস থেকে যেভাবেই হোক সকলকে বের করে আনবেন। তারপর মসজিদের বয়ানে ড্রাগ আসক্তদের মনোভাব বদলানোর চেষ্টা শুরু করেন। দরিদ্র ও গৃহহীনদের তিন বেলা স্যুপ রান্না করে খাওয়ার ব্যবস্থা করে দেন– তাদের থাকা ও পরিধানের যাবতীয় দায়িত্বও একা কাঁধে তুলে নেন। এমিন জানাচ্ছেন, মসজিদের ইমাম হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই নেশায় আসক্ত মানুষদের নিয়ে চিন্তিত থাকতেন তিনি। মসজিদের আশপাশে ড্রাগের আসর দেখে তার উদ্বেগ আরো বাড়ে। পরবর্তীকালে একজন ড্রাগ আসক্তকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে নিজের সঙ্গে সামাজিক কাজে যুক্ত করেন।

এমিন বলেন, সে আমার প্রস্তাব গ্রহণ করে এবং আমরা ২০১৮ পর্যন্ত একসঙ্গে কাজ করি। এরপর আমি তাকে তার শহরে পাঠাই এবং সে সেখানে একটি কাজ পায়।

সূত্র : পুবের কলম