Naya Diganta

শ্রীলঙ্কায় ইমরান খানের সফর, তুলে নেয়া হলো লাশ দাফনে নিষেধাজ্ঞা

শ্রীলঙ্কায় করোনায় মৃতের লাশ দাহের জন্য চুল্লিতে নেয়া হচ্ছে

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের শ্রীলঙ্কা সফরের পরপরই দেশটিতে লাশ দাফনের নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে শ্রীলঙ্কান সরকার। শুক্রবার শ্রীলঙ্কার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার এই তথ্য জানান।

এর আগে মঙ্গলবার দুই দিনের সরকারি সফরে শ্রীলঙ্কায় যান ইমরান খান।

বুধবার প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সাথে দেখা করে শ্রীলঙ্কার পার্লামেন্টের মুসলিম সংসদ সদস্যরা বিষয়টি নিয়ে শ্রীলঙ্কান রাজনৈতিক নেতাদের সাথে আলোচনার দাবি জানান।

কয়েক মাসের স্থানীয় মুসলিম সংগঠনগুলোর প্রতিবাদ ও আন্তর্জাতিক সংগঠনগুলোর চাপের পর এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হলো।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ শনাক্তের পর গত বছরের মার্চে শ্রীলঙ্কার সরকার লাশ দাফনে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে বাধ্যতামূলকভাবে দাহ করার আদেশ জারি করে।

ওই আদেশের যৌক্তিকতায় তখন বলা হয়, করোনায় মৃত লাশে থাকা ভাইরাস মাটির নিচে থাকা পানির মাধ্যমে ছড়াতে পারে।

কিন্তু মুসলিম সংগঠনগুলো সরকারি বক্তব্যকে প্রত্যাখ্যান করে বলে আসছে, সরকারের দাবির কোনো ভিত্তি নেই। তারা ধর্মীয় বিধান অনুসারেই লাশ দাফনে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

গত বছরের জানুয়ারিতে প্রথম শনাক্তের পর জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুসারে, বাংলাদেশ সময় শুক্রবার বেলা ১টা পর্যন্ত শ্রীলঙ্কায় করোনাভাইরাস সংক্রমণে আক্রান্ত হয়েছেন ৮১ হাজার ৯৩৩ জন। ভাইরাস সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৪৫৯ জনের।

বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ ভারত মহাসাগরের দ্বীপ দেশটিতে বৌদ্ধ ও দ্বিতীয় বৃহত্তম হিন্দু জনগোষ্ঠীর বিধান অনুসারে সাধারণত লাশ দাহ করার প্রথা প্রচলিত।

দুই কোটি ১০ লাখ জনসংখ্যার দেশটির ১০ ভাগ জনগোষ্ঠী মুসলমান।

সূত্র : আলজাজিরা