Naya Diganta

ভাষাসৈনিক ও মুক্তিযোদ্ধা হান্নান আর নেই, রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

শাহ মাজহারুল হান্নান

ভাষাসৈনিক ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মুক্তিযোদ্ধা শাহ মাজহারুল হান্নান আর নেই। রোববার সন্ধ্যা ৮টায় ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন।

সোমবার বেলা ৩টায় ময়মনসিংহের গাজিরভিটার শিমুলকুচি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে রাষ্ট্রীয় গার্ড অফ অনার ও জানাজা নামাজের পর তার দাফনকার্য সম্পন্ন হয়।

শাহ মাজহারুল হান্নান ১৯৩৫ সালের অক্টোবর মাসের ১৬ তারিখে কৈচাপুর ইউনিয়নের ভেকি পাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবার নাম শাহ আব্দুল মতিন ও মা উম্মে কুলসুম। তিনি গাজিরভিটা ইউনিয়নের শিমুলকুচি গ্রামে স্থায়ীভাবে বসবাস করতেন।

তিনি ১৯৫২ সালে ভাষা আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেন। ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের তালিকাভুক্ত স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করতেন। ১৯৫৪ সালে সাধারণ নির্বাচনে যুক্তফ্রন্টের বিজয় লাভের পর পুলিশের নজরদারীতে পড়েন তিনি। ১৯৫৫ সালে শাহ মাজহারুল হান্নানের বাবা মারা যাওয়ায় তার পড়ালেখা বন্ধ হয়ে যায়। ওই বছরেই তিনি আওয়ামী লীগে যোগদান করেন এবং হালুয়াঘাট থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৫৭ সালে সাংগঠনিক সম্পাদক থেকে হালুয়াঘাট থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে ১৯৭৩ সাল পর্যন্ত নিরবচ্ছিন্নভাবে ওই পদে অধিষ্ঠিত থেকে দায়িত্ব পালন করেছেন। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সর্বদলীয় সংগ্রাম পরিষদের সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও তিনি উপজেলার গাজিরভিটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতিত্বের দায়িত্বে ছিলেন।

ভাষা আন্দোলনে বিশেষ অবদান রাখায় ভাষা শহীদ আব্দুল জব্বার ফাউন্ডেশন কর্তৃক ২০১০ সালে তিনি ‘ভাষা শহীদ আব্দুল জব্বার ফাউন্ডেশন পদক’-এ ভূষিত হয়েছেন।

তার মৃত্যুতে হালুয়াঘাট মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন শোক, শ্রদ্ধা ও গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।