Naya Diganta

শেষ পর্যন্ত ভোটের মাঠে থাকায় বিএনপিকে ধন্যবাদ : কাদের

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে শেষ পর্যন্ত ভোটের মাঠে থাকায় বিএনপিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, অতীতের মতো এবার তারা মাঝপথ থেকে সরে যায়নি।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি যতই সমালোচনা ও ষড়যন্ত্র করুক তারা জনগণের মন জয় করতে পারেনি, তাই চট্টগ্রামের জনগণ তাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে।

চসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর জয়কে শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও অর্জনেরই জয় বলে মন্তব্য করেছেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বিজয়ী মেয়র ও কাউন্সিলর, চট্টগ্রামের জনগণসহ নির্বাচনসংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

এ সময় তিনি দেশের জনগণকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে সাড়া দিয়ে সংশয়মুক্ত হয়ে এবং কোনো প্রকার অপপ্রচারে কান না দিয়ে করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণের আহ্বান জানান।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সকালে লক্ষ্মীপুর জেলার সড়ক বিভাগের তিনটি প্রকল্পের নির্মাণকাজ ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করেন।

লক্ষ্মীপুরের প্রায় সব সড়ক বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় আনা হয়েছে উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, এ জেলার মানুষের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন চৌমুহনী হতে লক্ষ্মীপুর পর্যন্ত মহাসড়ক চার লেনে উন্নীত করা আর সেটি করতে যাচ্ছে সরকার। এরই মধ্যে নকশা প্রণয়নের কাজ শুরু হয়েছে।

কুমিল্লা-লাকসাম-চৌমুহনী চার লেন, ফেনী-নোয়াখালী-সোনাপুর মহাসড়ক চার লেনের কাজ চলমান রয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে না আনলে যতই উন্নয়ন করা হোক না, কোনো লাভ হবে না উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, সড়কে জরুরিভাবে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে হবে।

সড়ক নির্মাণে কাজের মান কোনোভাবেই খারাপ করা যাবে না টেকসই ও মানসম্মত কাজ করতে হবে বলে জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশব্যাপী উন্নয়নের যে মহাযজ্ঞ চলছে তার নেতৃত্বে সমৃদ্ধ আগামী নির্মাণের যে পথচলা, তা এগিয়ে নিতে দলমত-নির্বিশেষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নিজ নিজ অবস্থান থেকে সততা, কর্মনিষ্ঠা এবং দায়িত্বশীলতার সাথে কাজ সত্যিকার অর্থেই বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা রূপান্তর হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আবারো দলের নেতাকর্মীদের হুঁশিয়ার দিয়ে বলেন, দল করলে দলের নিয়ম-শৃঙ্খলা মেনে চলতে হবে।

দলের সুনাম নষ্ট হয় এমন কোনো কাজ যারা করবে তাদের দল থেকে বের করে দেয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

দশটা উন্নয়নকাজ ম্লান হয়ে যায় একটা খারাপ কাজের জন্য, কাজেই কাউকে ছাড় দেয়া যাবে না উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, যেই অপরাধ করবে; তার বিরুদ্ধে সাথে সাথে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বৃহত্তর নোয়াখালীর নেতাকর্মীদের উদ্দেশ করে বলেন, নোয়াখালীর রাজনীতিকে সুনামের ধারায় ফিরিয়ে আনতে হবে।

তিনি নেতাকর্মীদের সততার পতাকা হাতে নিয়ে সততার সুনামে ফিরে আসারও জোর আহ্বান জানান।