Naya Diganta

শেষ ওয়ানডেতে দলে বড় পরিবর্তন নয়

এক ম্যাচ হাতে রেখেই ওয়ানডে সিরিজ জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ। লক্ষ্য এখন হোয়াইটওয়াশের দিকে। প্রথম দুই ম্যাচ মিরপুরে অনুষ্ঠিত হওয়ার পর তৃতীয় ওয়ানডে খেলতে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল এখন চট্টগ্রামে। গতকাল বেলা পৌনে ১টায় চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমানবন্দরে অবতরণ করে তামিম-সাকিব-মুশফিকদের বহনকারী বিমান। শনিবার দুপুর ১২টার ফ্লাইটে একসাথে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশে রওনা হয়ে বেলা পৌনে ১টায় বন্দরনগরীতে গিয়ে পৌঁছেছে জেসন মোহাম্মদের ওয়েস্ট ইন্ডিজও। আগামীকাল চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে মুখোমুখি হবে দু’দল ।
শেষ ওয়ানডেতে পরিবর্তনের আভাস পাওয়া গেলেও, বড় ধরনের কোনো পরিবর্তন হবে না বললেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। কারণ এই সিরিজকে গুরুত্বের সাথে দেখছে বিসিবি। আইসিসি ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগ-২০২৩-এ সরাসরি খেলতে হলে সামনের সবগুলো সিরিজ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এখন থেকে অর্জিত পয়েন্টের ভিত্তিতে বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার যোগ্যতা অর্জন করার সুযোগ রয়েছে বাংলাদেশের। সে বিষয়টি মাথায় রেখে সিরিজের শেষ ম্যাচটি মূল্যায়ন করছে বিসিবি।
নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘এই ম্যাচে একাদশে পরিবর্তন আসতে পারে, তবে বড় ধরনের কোনো পরিবর্তন হবে না। মনে রাখতে হবে, এই সিরিজের মধ্য দিয়ে মাত্র আইসিসি সুপার লিগের শুরু। আমরা ইতোমধ্যে ২০ পয়েন্ট অর্জন করেছি। প্রত্যেকটি ম্যাচ খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের লক্ষ্য সরাসরি বিশ্বকাপে খেলা। তাই আমরা প্রত্যেকটি ম্যাচ গুরুত্বের সাথে দেখছি।’
শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের স্কোয়াডে আসতে পারে পরিবর্তন। ফিটনেস ভালো থাকলে স্কোয়াডে ফিরতে পারেন অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। সে ক্ষেত্রে বাদ পড়বেন পেসার রুবেল হোসেন। একজনের অভিষেকও হতে পারে বাংলাদেশের জার্সিতে।
আগামী আড়াই বছরে ২৪টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে হবে বাংলাদেশকে। তারমধ্যে ১৭ ম্যাচ জিততে পারলে র্যাংকিংয়ের সেরা আটে থেকে সরাসরি বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারবে তারা। অন্যথায় বাছাইপর্ব খেলতে হবে তাদের। সামনে রয়েছে বড় বড় টিমের সাথে খেলা। তাই খর্ব শক্তির বিপক্ষে ম্যাচগুলো বাড়তি এডভান্টেজ বাংলাদেশের জন্য। বিসিবি সভাপতি আরো বলেন, ‘এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ খেলা। কারণ সামনে আমাদের শক্ত প্রতিপক্ষ ও কন্ডিশনে মুখোমুখি হতে হবে। আমরা ঘরের মাঠে ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউজিল্যান্ডকে পরাজিত করেছি। কিন্তু দেশের বাইরে সেভাবে জিততে পারি না। সুতরাং আমরা প্রতিটি ম্যাচ সিরিয়াসলি দেখছি এবং চেষ্টা করলে জিততেও পারব।’
এক বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে, দলে ফিরেই দুই ম্যাচে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের খেলায় এর কোনো প্রভাব পড়েনি। সাকিবের দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তনে খুশি বিসিবি প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেন, ‘সাকিব অনেক দিন পর ক্রিকেটে ফিরে কেমন করবে সেটি দেখার বিষয় ছিল; কিন্তু তার সময় লাগেনি, সে প্রথম ম্যাচ থেকেই ভালো করছে।’