Naya Diganta

সেরাম ইনস্টিটিউটে আগুনে ১০০০ কোটি টাকার ক্ষতি

সেরাম ইনস্টিটিউটে আগুনে ১০০০ কোটি টাকার ক্ষতি

ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড প্রাণ কেড়েছে পাঁচজনের। অসংখ্য রোগের প্রতিষেধক নষ্ট হয়েছে আগুনে। অগ্নিকাণ্ডের একদিন পর জানা গেল, প্রায় ১০০০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। বিসিজি এবং রোটাভাইরাসের টিকা নষ্ট হয়েছে আগুনে। তবে কোভিশিল্ডের কোনও ক্ষতি হয়নি বলে নিশ্চিত করেছেন সংস্থার সিইও আদার পুণাওয়ালা।

এদিন তিনি বলেন, ‘প্রায় ১০০০ কোটি টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে অগ্নিকাণ্ডে। তবে কোভিশিল্ডের ইউনিটে কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। রোটাভাইরাস ও বিসিজি টিকা উৎপাদন ও স্টোরেজে ক্ষতি হয়েছে। এটা বিরাট আর্থিক ধাক্কা।

তিনি আরো বলেন, ‘এই বিল্ডিংটি একেবারে নতুন ছিল। এখনও কিছু অংশ তৈরি হচ্ছিল। তাই খুব মাত্রায় এখানে উৎপাদন ও স্টোর করা হচ্ছিল। এখনও বহু যন্ত্রপাতি বসানোর কাজ চলছে। তার মধ্যেই এই দুর্ঘটনা ভবিষ্যতের জন্য খুব বড় ক্ষতি।’

শুক্রবার দুর্ঘটনাস্থলে যান মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে, তার ছেলে ও মন্ত্রী আদিত্য় ঠাকরে, শ্রম ও আবগারি মন্ত্রী দিলীপ পাতিল, পুণের সাংসদ গিরিশ বাপাট-সহ অন্যান্য কর্মকর্তরা।

মুখ্যমন্ত্রী সেখানে গিয়ে বলেন, ‘কোভিডের সাথে এখনও লড়াই করছে বিশ্ব। এই লড়াইয়ে বড় আশার আলো ছিল সেরাম। কিন্তু এমন ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় প্রত্যেকেই শোকস্তব্ধ।’

এর আগে এসআইআইয়ের চেয়ারম্যান ও পরিচালক ডা. সাইরাস পুণাওয়ালা জানান, ‘এটি ছিল একটি নতুন ভবন। বিসিজি এবং রোটাভাইরাস ভ্যাকসিন অতিরিক্ত পরিমাণে উৎপাদন করার জন্য এই সুবিধাটি নির্মিত হয়েছিল। আমরা আগুনের কারণ জানি না এবং শিগগিরই ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণ করব।’
সূত্র: দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস