Naya Diganta

প্রস্তাবিত ড্যাপে বন্যাপ্রবাহ অঞ্চলের ভূমি ব্যবহারের পরিবর্তন চায় বিআইপি

বন্যাপ্রবাহ অঞ্চলগুলোকে সামগ্রিক বিবেচনা করে এবং সেগুলোকে কৃষি অঞ্চল দেখিয়ে প্রস্তাবিত বিশদ অঞ্চল পরিকল্পনায় (ড্যাপ) সকল প্রকার ভূমি ব্যবহারের যে অনুমোদন দিতে চায় রাজউক তার পরিবর্তন চায় বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স (বিআইপি)। গতকাল বীরউত্তম সিআর দত্ত রোডের প্ল্যানার্স টাওয়ারের বিআইপি সম্মেলন কক্ষে রাজউকের ঢাকা মহানগর এলাকার খসড়া বিশদ অঞ্চল পরিকল্পনা বা ড্যাপ (২০১৬-২০৩৫) প্রতিবেদন সম্পর্কিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করা হয়। এতে বিআইপির সাধারণ সম্পাদক পরিকল্পনাবিদ ড. আদিল মুহাম্মদ খান প্রতিবেদন সম্পর্কিত তথ্য তুলে ধরেন।
তিনি বলেন, ২০১০ সালের প্রস্তাবিত ড্যাপ এবং বর্তমান ড্যাপের ভূমি ব্যবহার পর্যালোচনা করে বেশ কিছু এলাকা পাওয়া যায়, যেখানে আগের ভূমি ব্যবহার বদলে নতুন ভূমি ব্যবহার প্রস্তাব করা আছে। উপরি উক্ত এলাকাগুলোর ভূমি ব্যবহার প্রস্তাবনা পরিবর্তনের যুক্তি, বিবরণ এবং কী উদ্দেশ্য নিয়ে পরিবর্তনগুলোকে অনুমোদন দেয়া হচ্ছে তার সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা করতে হবে। সব করণীয়গুলো ম্যাপে দেখানো সম্ভব না হলেও বিশেষ করে যেসব ভূমি ব্যবহার সংরক্ষণ করতে হবে যেমন খাল, লেক, জলাশয়, উন্মুক্ত স্থান, ইত্যাদি বিস্তারিতভাবে দেয়া প্রয়োজন।
সুপারিশ হিসেবে সংবাদ সম্মেলনে বেশ কয়েকটি সুপারিশ করা হয়েছে। সেগুলোর মধ্যে অন্যতম হলোÑ রাজউকের নিয়ন্ত্রণকারী ও উন্নয়ন ভূমিকাকে পৃথক করে টাউন ইমপ্রুভমেন্ট অ্যাক্ট, ১৯৫৩-এর প্রয়োজনীয় সংশোধনী আনতে হবে। বর্তমানের আমলাতান্ত্রিক রাজউকের বোর্ড গঠনের পরিবর্তন এনে বোর্ডকে রাজনৈতিক প্রভাবমুক্ত করতে হবে এবং বিশেষজ্ঞ ও পেশাজীবীদের অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।
বিআইপির সভাপতি পরিকল্পনাবিদ অধ্যাপক ড. আকতার মাহমুদ সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন ড্যাপে মিশ্র ভূমি ব্যবহারে আবাসিক এলাকার সাথে সামঞ্চস্যপূর্ণ জননিরাপত্তা ও জনস্বাস্থ্য বিবেচনায় রাখতে বলেন।
প্রশ্নের জবাবে বিআইপির সাবেক সহসভাপতি পরিকল্পনাবিদ ফজলে রেজা সুমন বলেন, পরিকল্পনার দৃষ্টিকোণ অনেকটাই সফল জনঘনত্ব নিয়ন্ত্রণে ভবনের উচ্চতা নিয়ন্ত্রণ কৌশল। ইমারত নির্মাণ বিধিমালা ২০০৮-এ এফএআর ব্যবহারের ফলে জনঘনত্ব নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। পরিকল্পনাবিদ ড. আদিল মুহাম্মদ খান বলেন, গণশুনানির সময় প্রাপ্ত এবং অংশীজনদের গঠনমূলক ও যৌক্তিক মতামতকে গুরুত্ব দিয়ে ড্যাপ চূড়ান্ত করা হবে, এটা প্রত্যাশা করি।