Naya Diganta

অদম্য গতিতে ফেদেরারকে ছুঁলেন নাদাল

অদম্য গতিতে ফেদেরারকে ছুঁলেন নাদাল

রোলাঁ গাঁরোর অলিখিত রাজা তিনি। কাদা-মাটির কোর্টে তিনি ঝড় তোলেন। জেতেন ট্রফি, গড়েন রেকর্ড। ক্যারিয়ারের পড়ন্ত বেলায় আরেকবার ফরাসি ওপেনে ঝলক দেখালেন রাফায়েল নাদাল। রোববার ফাইনালে অদম্য গতিতে পরাস্ত করলেন দুরন্ত নোভাক জকোভিচকে। জিতলেন শিরোপা। সেই সঙ্গে ছুঁয়ে ফেললেন রেকর্ড সর্বোচ্চ ২০ গ্রান্ডস্লাম জয়ী সুইস তারকা রজার ফেদেরারকেও।

আগের মতো উদ্যম গতি নেই। কিন্তু নিজ মাটিতে অভিজ্ঞতার দাম অবশ্যই আছে। ফাইনালে তারপরও নাদালের সামনে হুমকি ছিলেন সার্বিয়ান তারকা জকোভিচ। কিন্তু রেকর্ড গড়া ফাইনালটা ঠিক জমে নি। বলা চলে পানসে। প্রথম দুটি সেটে তো নাদালের কাছে স্রেফ উড়ে গেছেন জকোভিচ। তৃতীয় সেটটা টাইব্রেকারে গেলেও জয় নাদালেরই। সরাসরি সেটে রোঁলা গাঁরো জয়, ৬-০, ৬-২, ৭-৫।

ফরাসি ওপেনে টানা চতুর্থ ও রেকর্ড ত্রয়োদশ শিরোপা এটি নাদালের। সব মিলিয়ে ২০তম। বাকি সাত গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপার চারটি জিতেছেন ইউএস ওপেনে, দুটি উইম্বলডনে আর একটি অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে।
সাম্প্রতিক সময়ে নাদালের পারফরম্যান্স নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা পারফরম্যান্সে সমালোচকদের মুখ বন্ধ করলেন তিনি। ম্যাচ শেষে বললেন, ‘এখানে একটি জয়ই আমার কাছে সবকিছু। সত্যি বলতে, ২০তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয় ও রজারের রেকর্ড ছোঁয়া নিয়ে ভাবছি না। আমার কাছে এটা শুধুই আরেকবার রোলাঁ গারোঁ জয়।’

শিরোপায় চুমু আঁকার পথে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে রোলাঁ গারোঁয় শততম ম্যাচ জয়ের কীর্তিও গড়েছেন নাদাল। ক্লে কোর্টের অবিসংবাদিত রাজা যে নাদাল, তা ফাইনালে হেরে যাওয়া জকোভিচের কণ্ঠেও ঝড়ে পড়ল, ‘আজ তুমি দেখালে, কেন তুমি ক্লে কোর্টের রাজা।’