Naya Diganta

পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধির জন্য নতজানু পররাষ্ট্রনীতি দায়ী : ডা: ইরান

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখছেন বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা: মোস্তাফিজুর রহমান ইরান

ভারতকে ইলিশ উপহারের পর দিন থেকে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা: মোস্তাফিজুর রহমান ইরান বলেছেন, ভারত আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক রীতিনীতির তোয়াক্কা না করে হঠাৎ পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করেছে। কিন্তু সরকার ভারতীয় হাইকমিশনারকে তলব করে কৈফিয়ত চায়নি, যা নতজানু পররাষ্ট্রনীতির নগ্ন বহিঃপ্রকাশ।

তিনি বলেন, দেশীয় কালোবাজারী, মুনাফাখোর মজুদদার অপশক্তি পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের অজুহাতে প্রথম দিনেই ৫০ টাকা থেকে ১২০ টাকা করে অমানবিকতার পরিচয় দিয়েছে। কালোবাজারী অশুভ শক্তি আওয়ামী রাজনীতির সাথে যুক্ত থাকায় সরকারের কোনো পদক্ষেপ কাজে আসছে না।

পেঁয়াজসহ দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়া পল্টন, পুরানা পল্টন, বায়তুল মোকাররম, হাউসবিল্ডিং এলাকায় লিফলেট বিতরণ ও গণসংযোগ শেষে ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সামনে এক মানববন্ধনে এসব কথা বলেন ডা: ইরান।

তিনি বলেন, চাল-পেঁয়াজসহ নিত্যপণ্যের আকাশচুম্বী মূল্যবৃদ্ধিতে সরকারের ভূমিকা রহস্যজনক। জনগণের ভোটে নির্বাচিত না হওয়ায় তারা জনদুর্ভোগ নিয়ে কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না। প্রমাণ হয়েছে, মূল্যবৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে টিসিবি অকার্যকর ও ব্যর্থ। ট্যারিফ কমিশনের কর্মকাণ্ড খাতাকলমে সীমাবদ্ধ। ভোক্তা অধিকার কর্তৃপক্ষ মুখে কুলুপ এঁটে দিয়েছে।

তিনি দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি রোধে রাজনৈতিক, সামাজিক ও মানবাধিকার সংগঠনগুলোকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।

লেবার পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার ফরিদ উদ্দিনের সভাপতিত্বে কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন লেবার পার্টির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব লায়ন ফারুক রহমান, আন্তর্জাতিক সম্পাদক খোন্দকার মিরাজুল ইসলাম, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক মাওলানা তরিকুল ইসলাম সাদী, কেন্দ্রীয় সদস্য মাওলানা জাকির হোসেন, যুবমিশন সদস্য সচিব সৈকত চৌধুরী ও ছাত্রমিশন সাধারণ সম্পাদক মো: শরিফুল ইসলাম প্রমুখ।