Naya Diganta

১১ বছর পর ফাওয়াদ আলম

ফাওয়াদ আলম

প্রায় ১১ বছর পর আবার পাকিস্তানের হয়ে টেস্ট খেলতে নেমেছেন ডানহাতি অলরাউন্ডার ফাওয়াদ আলম। ক্যালেন্ডারের হিসেবে সময়টা ঠিক ১০ বছর ৮ মাস ১৯ দিন। সর্বশেষ ২০০৯ সালের নভেম্বরে সাদা পোশাকে পাকিস্তানের হয়ে খেলেছেন ফাওয়াদ। নিউজিল্যান্ড সফরে ডুনেডিন টেস্ট ছিল সেটি। এরপর থেকে দলের বাইরে।

দারুণ সম্ভাবনা নিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল ফাওয়াদের । অভিষেক টেস্টেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলেছিলেন ১৬৮ রানের ইনিংস। এমন একটা শুরুর পর আর মাত্র দুটি টেস্ট খেলতে পেরেছেন। পরবর্তীতে বেশ কয়েকবার টেস্ট স্কোয়াডে এলেও একাদশে জায়গা হয়নি। তাই ফাওয়াদের প্রতি যে কিছুটা অবিচার হয়েছে তা বললেও ভুল হবে না হয়তো। তিন টেস্ট খেলে প্রায় ৪২ গড়ে রান ২৫০।
সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছেন ২০১৫ সালে বাংলাদেশ সফরে। সেটিও ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর কয়েকজন সিনিয়র ক্রিকেটার বিদায় নেয়ায় সুযোগটা পেয়েছিলেন। ৩৮ ওয়ানডেতে ৪০ গড়ে রান ৯৬৬। সেঞ্চুরিও আছে একটি।

২০০৪ যুব বিশ্বকাপ জয়ী পাকিস্তান দলের সম্ভাবনাময় তারকাদের একজন ছিলেন ফাওয়াদ; কিন্তু প্রতিভার যথাযথ মূল্যায়ন কখনোই পাননি। জাতীয় দলে তাকে যথেষ্ট সুযোগ দেয়া হয়নি বলেই মনে করা হয়। তারপরও ঘরোয়া ক্রিকেটের গত মৌসুমে ভালো করে ডাক পেয়েছেন জাতীয় দলে। বাংলাদেশের বিপক্ষে রাওয়ালপিন্ডিতে সিরিজের প্রথম টেস্টেও স্কোয়াডে ছিলেন, কিন্তু জায়গা হয়নি একাদশে।

এবারের ইংল্যান্ড সফরেও প্রথম টেস্টেও তাকে মাঠে নামানো হয়নি। দ্বিতীয় টেস্টে লেগ স্পিনার শাদাব খানের বদলে বাড়তি একজন ব্যাটসম্যান খেলানোর কারণেই দীর্ঘদিন পর আবার টেস্ট ক্রিকেটে ফেরা হলো তার।