Naya Diganta

ভারতের পানিতে সৃষ্ট বন্যার জন্য নতজানু পররাষ্ট্রনীতি দায়ী : ডা: ইরান

ডা: মোস্তাফিজুর রহমান ইরান

ভারত থেকে নেমে আসা পানিতে সৃষ্ট বন্যার জন্য সরকারের নতজানু পররাষ্ট্রনীতি দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা: মোস্তাফিজুর রহমান ইরান।

তিনি বলেন, ভারত সকল আন্তর্জাতিক রীতিনীতিকে উপেক্ষা করে অভিন্ন ১৫৪টি নদীতে বাঁধ ও টানেল নির্মাণ করে নদীর গতিধারাকে নিয়ন্ত্রণ করছে। সরকারের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে নদীমাতৃক বাংলাদেশের জনগণ প্রতিবছর ভারতীয় পাহাড়ী ঢলের পানিতে সৃষ্ট বন্যায় আক্রান্ত হয়ে সর্বস্বান্ত হচ্ছে। এব্যাপারে ভারত-বাংলাদেশ যৌথ নদী কমিশনের নিরবতা রহস্যজনক বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মঙ্গলবার লেবার পার্টির দফতর সম্পাদক আমানুল্লাহ মহব্বত স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তিনি এসব কথা বলেন।

ইরান বলেন, ভারত বর্ষাকালে ফারাক্কার গেট খুলে দিয়ে বাংলাদেশকে বন্যায় চুবিয়ে মারে আর শুকনা মৌসুমে ফারাক্কার পানির ন্যায্য হিস্যা থেকে বঞ্চিত করে বাংলাদেশেকে শুকিয়ে সাহারা মরুভুমিতে পরিণত করে। কিন্তু ভারতের সেবাদাস সরকার এসব জাতীয় স্বার্থ নিয়ে কথা বলছে না। বর্ষাকালে ভারতের অভিন্ন নদীগুলোর সকল বাঁধ ব্যারেজের গেট খুলে দেয়ায় উজান থেকে নেমে আসা বন্যার পানি বাংলাদেশে ব্রক্ষপুত্র, যমুনা, মেঘনা, মহানন্দা, পদ্মা, তিস্তা ও ধরলা নদীর অবাহিকায় প্রায় ৩৪টি জেলা ইতিমধ্যে প্লাবিত হয়ে কোটি কোটি মানুষ বাস্তুভিটা, কৃষিক্ষেত, গবাদিপশু হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছে। অসহায় বানভাসি মানুষের বুকফাটা কান্না সরকারের দৃষ্টি আর্কষণে ব্যর্থ হয়েছে। বানভাসি মানুষ চরম মানবেতর জীবনযাপন করছে।

তিনি অবিলম্বে বন্যাগ্রস্ত জেলাগুলোকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা করে ব্যাপক ত্রাণতৎপরতা পরিচালনার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।