Naya Diganta

মেয়ের করোনা শনাক্তের খবরে মায়ের মৃত্যু

নীলফামারীর ডোমারে মেয়ের করোনা শনাক্ত হওয়ার খবর শুনে স্কুল শিক্ষিকা মায়ের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার ভোরে ডোমার পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের সাহাপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, ওই গ্রামের জামসেদ আলীর স্ত্রী ও ডোমার বড়রাউতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা রওশন আরার ছোট মেয়ে নিশাত তাসনিম জ্যোতির (৩০) সোমবার রাতে করোনা পজেটিভ রির্পোট আসে। এ খবর পাওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই মা রওশন আরার মৃত্যু হয়। তবে রওশন আরা করোনায় আক্রান্ত ছিলেন না বলে জানিয়েছেন তার পরিবার।

রওশন আরার স্বামী জামসেদ আলী বকুল জানান, দীর্ঘদিন থেকে তার স্ত্রী রওশন আরা হার্টের সমস্যায় ভুগছিলেন। সোমবার রাতে আমার ছোট মেয়ে জ্যোতির করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে। এ নিয়ে তার মা টেনশন করতে থাকেন। একপর্যায়ে ভোর রাতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু ঘটে।

ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইব্রাহিম শিক্ষিকা রওশন আরার স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে উল্লেখ করে জানান, গত ১১ জুলাই তাদের পরিবারের সদস্যদের করোনার স্যাম্পল নেয়া হয়। সোমবারের রিপোর্টে তার ছোট মেয়ে নিশাত তাসনিম জ্যোতির করোনা পজেটিভ এলেও তিনিসহ পরিবারের বাকি সদস্যদের করোনা নেগেটিভ আসে।