Naya Diganta

করোনা উপসর্গে শ্বাসতন্ত্রের চিকিৎসায় ঝুঁকি কমাবে ফিজিওথেরাপি

করোনা উপসর্গে শ্বাসতন্ত্রের চিকিৎসায় ঝুঁকি কমাবে ফিজিওথেরাপি

গবেষণায় দেখা গেছে করোনাভাইরাসে শ্বাসতন্ত্রের জটিলতা চিকিৎসা ও প্রতিরোধে ফিজিওথেরাপি বেশ কার্যকর একটি পদ্ধতি। বাংলাদেশ ফিজিওথেরাপি এসোসিয়েশন (বিপিএ) সাধারণ সম্পাদক ডা: এম শাহাদাৎ হোসেন (পিটি) এর সমন্বয়ে সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়, শারজাহ বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, পক্ষাঘাতগ্রস্থদের পুনর্বাসন কেন্দ্র (সিআরপি) ও ডব্লিউসিপিটি এশিয়া ওয়েস্টার্ণ প্যাসিফিকের দেশি বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞের সমন্বয়ে একটি টিম করোনাভাইরাস প্রতিরোধে গবেষণাধর্মী কাজ করছেন। একইসাথে জনসচেতনতা তৈরিতে ৫ সদস্যের বিশেষজ্ঞ টিমও গঠন করেছে, যারা জনসাধারণকে এ বিষয়ে সচেতন করবেন। ডা: শাহাদাৎ মনে করেন করোনাভাইরাসের উপসর্গের কোনো রোগীর শ্বাসতন্ত্রের চিকিৎসায় ঝুঁকি কমাবে ফিজিওথেরাপি।

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা নভেল করোনা ভাইরাস কে বৈশ্বিক মহামারী আখ্যা দিয়েছে । এই ব্যধিতে শ্বাসতন্ত্রের সংক্রমণ ঘটে যাতে ৮৯% রোগীদের শ্বাসনালীর সংক্রমণ ও জ্বর থাকে, ৬৮% রোগীদের কাশি, ৩৪% রোগীদের অতিরিক্ত কফ শ্বাসতন্ত্রে জমা ও ১৯% রোগীদের শ্বাসকষ্ট হতে পারে। এছাড়া ১৫% রোগীদের শ্বাসকস্টের চিকিৎসা এবং ৫% রোগীদের ভ্যান্টিলশন বা লাইফ সাপোর্ট লাগে, ডায়াবেটিস ও হৃদরোগের রোগীরা বেশি ঝুঁকিতে আছেন বলে মনে করা হয়। প্রতিবন্ধী ও অসুস্থ ব্যক্তিগণ এ সংক্রমণের ঝুঁকিতে আছেন বিশেষ করে যাদের ফুসফুসের দূর্বল তারাও প্রায় সমান ঝুঁকিতে রয়েছেন। ফুসফুসের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিতে আইসিইউতে শ্বাসতন্ত্রের কার্যক্ষমতার উন্নতিতে ও অতিরিক্ত কফ নিঃসরণ করে শ্বাসতন্ত্র সুরক্ষায় ‘চেস্ট ফিজিওথেরাপি বা রেসপিরেটরি ফিজিওথেরাপি’ অগ্রণী ভূমিকা পালন করে।

বাংলাদেশ ফিজিওথেরাপি এসোসিয়েশনের (বিপিএ) সাধারণ সম্পাদক ডা: এম শাহাদাৎ হোসেন বলেন যেহেতু নভেল করোনা ভাইরাসে শ্বাসতন্ত্রের কার্যক্ষমতা কমে যায় ও দুর্বল রোগীদের ঝুকি বেশি তাই এক্ষেত্রে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা হিসেবে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসক নির্দেশিত ডিপ ব্রিদিং এক্সারসাইজ, ব্রিদিং কন্ট্রোল এক্সারসাইজ, একটিভ সাইকেল অব ব্রিদিং টেকনিক ও এরোবিক এক্সারসাইজ খুবই কার্যকর। এ রোগে সুস্থ হওয়া রোগীদেরও দীর্ঘদিন শ্বাসতন্ত্রের সমস্যা থাকায় ফুসফুসের কার্যক্ষমতা কমে যেতে পারে। তাই যত দ্রুত সম্ভব বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা অনুযায়ী দেশের সরকারি- বেসরকারি হাসপাতালে আইসিইউ ইউনিটে রেসপিরেটরি ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা দেয়ার জন্য স্নাতক ডিগ্রিসম্পন্ন ফিজিওথেরাপি চিকিৎসক নিশ্চিতকরণে পদক্ষেপ নেয়া জরুরি।