০২ জুলাই ২০২২
`

খেজুর সমাচার

খেজুর। - ছবি : সংগৃহীত

খেজুর অত্যন্ত সুস্বাদু ও পুষ্টিগুণে ভরপুর একটি ফল। আরবিতে একে বলে ‘তামার’। খেজুর উৎপাদনের দেশ হিসেবে সৌদি আরব বিশ্বব্যাপী সুপরিচিত এক নাম। বাণিজ্যিকভাবে রপ্তানির পাশাপাশি বিভিন্ন দেশে উপহার হিসেবেও খেজুর পাঠায় সৌদি আরব। মধ্যপ্রাচ্য ও পশ্চিম এশিয়ায় খেজুরের হাজার বছরের প্রাচীন ইতিহাস আছে।

পুষ্টিগুণ ও স্বাদে খেজুর
পুষ্টিগুণ ও সুস্বাদে সৌদির খেজুর বিশ্বব্যাপী স্বতন্ত্র অবস্থান প্রতিষ্ঠা করেছে। এখানের রকমারি জাতের খেজুরের প্রতি সব মানুষের লোভ। মিসর এবং পারস্য উপসাগরীয় কয়েকটি দেশ সৌদি থেকে সবচেয়ে বেশি খেজুর আমদানি করে।

গুণে-মানে সবার সেরা ‘আজওয়া’
গুণে-মানে ‘আজওয়া’ জাতের খেজুরকে সবাই সেরা মনে করে। হাজার বছর যাবত মদিনা এবং এর আশপাশে আজওয়ার অসংখ্য বাগান রয়েছে। মৌসুমে পরিপক্ক খেজুর রফতানির জন্য এখানে ব্যবসায়ীরা আসে।

আরো কয়েক প্রকার
আজওয়ার পাশাপাশি আরো কয়েক প্রকার খেজুরের বেশ কদর। এরমধ্যে আনবারা, সাগি, সাফাওয়ি, মুসকানি, খালাস, ওয়াসালি, বেরহি, শালাবি, ডেইরি, মাবরুম, ওয়ান্নাহ, সেফরি, সুক্কারি, খুদরি উল্লেখযোগ্য।

খেজুরের দরদাম
নানা জাতের এসব খেজুরের আকার ও মানভেদে দরদাম নির্ধারিত হয়। মার্কেটে সর্বৎকৃষ্ট মানের আজওয়া খেজুর কিলোপ্রতি বিক্রি হয় ৬০ থেকে ৮০ রিয়াল দরে। দ্বিতীয় শ্রেণির আজওয়ার দাম ৪০ থেকে ৬০ রিয়াল। ভাল মানের আনবারার কিলো ৪০ থেকে ৫০ রিয়াল। তা ছাড়া মাবরুম, সাফাওয়ি সাধারণত ২০ থেকে ৩০ রিয়ালে বিক্রি হয়। খুদরি পাওয়া যায় ৩০ থেকে ৪০ রিয়ালে।

খেজুর বরকত আনে
‘আমাদের খেজুর বরকত আনে’-এই শ্লোগানে প্রতি বছর মদিনায় খেজুরমেলা অনুষ্ঠিত হয়। মেলায় অন্তত দেড় মিলিয়ন কিলো মদিনার খেজুর বিক্রি হয়। প্রতিটি স্টল বিশেষ সুবিধা ঘোষণা করে ক্রেতাদের কাছে টানার নানা কৌশল অবলম্বন করে বিক্রেতারা। স্বাস্থ্যসম্মত খেজুর পরিবেশনে পৌর কতৃপক্ষের কঠোর নজরদারি থাকে।

কৃষিপরামর্শের জন্য স্মার্ট খেজুর প্রোগ্রাম
কৃষকদের যুগপযোগী পরামর্শ দানের জন্য সৌদিতে অনুষ্ঠিত হয় স্মার্ট খেজুর প্রোগ্রাম। প্রোগ্রামে রিয়াদ, কাসিম, হায়েল, তাবুক এবং মদিনা সহ যেসব অঞ্চল খেজুর উৎপাদনে এগিয়ে সেখানকার কৃষকদের নানা কৃষি-পরামর্শ প্রদান করা হয়। খেজুরচারা রোপন, কলম দেওয়া, সেচব্যবস্থা এবং সুষম সার ব্যবহারের আধুনিক পদ্ধতি শেখানো হয়।

যে খেজুরে কবিতা হয়
বাহিরের পর্যটকরা সৌদির হালওয়াতুল জাওফ খেজুরটি বেশি পছন্দ করেন। শতশত বছর যাবত এ জাতের খেজুর তাদের চোখে বিশেষ জায়গা করে নিয়েছে। হালওয়াতুল জাওফ নিয়ে স্থানীয়রা বেশ গর্ব করেন। আরব কবি-সাহিত্যিকরা এই খেজুর নিয়ে কবিতাও আবৃত্তি করেন। আল জাওফ অঞ্চলে প্রতি বছর প্রায় বারো লাখ গাছ এ খেজুর উৎপাদন করে।

খেজুরের জাত দুই হাজারের উপরে
কিং আবদুল আজিজ ইউনিভার্সিটির প্রফেসর ড. আকরাম বালিলু একটি বিশেষ টিম নিয়ে মদিনার আজওয়া খেজুর নিয়ে গবেষণা করেছেন। তাঁর দাবি, বিশ্বব্যাপী অন্তত দুই হাজার জাতের খেজুর পাওয়া যায়। সৌদি আরবে চার শ জাতের খেজুর আছে।

সৌদিতে খেজুরের বার্ষিক উৎপাদন
সৌদিতে প্রতি বছর নানা জাতের প্রায় এগারো লাখ টন খেজুর উৎপন্ন হয়। দেশটি বিশ্বের অন্তত ১৫ শতাংশ খেজুর উৎপাদন করে। মরু অঞ্চলের প্রচন্ড উষ্ণতা ও প্রতিকুল পরিবেশেও খেজুর বৃক্ষ ফল দেয়।

খেজুর শক্তিবর্ধক খাদ্য
খেজুর পূর্ণ খাদ্য ও শক্তি বর্ধনে অতুলনীয়। খেজুর আহারে প্রাণসঞ্চারিত হয়। ব্লাড প্রেসারের জন্য এটি খুবই উপকারী। এতে আছে প্রচুর ভিটামিন বি। যা ভিটামিন বিসিক্স মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়ক। খেজুরের পুষ্টি উপাদান সম্পর্কে বলা হয়, চারটি বা ৩০ গ্রাম পরিমাণ খেজুরে আছে ৯০ গ্রাম ক্যালোরি, এক গ্রাম প্রোটিন, ১৩ মি.লি. গ্রাম ক্যালসিয়াম, ২ দশমিক ৮ গ্রাম ফাইবার। এছাড়াও খেজুরের রয়েছে আরও অনেক পুষ্টিগুণ।

দুধ ও খেজুরের সঙ্গে খেজুরের উপকারিতা দ্বিগুণ
অসুস্থতার পর শারীরিক দুর্বলতা, মানসিক অবসাদ এবং ক্লান্তিতে খেজুরের অসামান্য উপকারিতা। খেজুর পেট খারাপ দূর করে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি দেয়। দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে খেজুরের পুষ্টিগুণ বেড়ে যায় আর সঙ্গে মধু দিলে তার দ্বিগুণ উপকারিতা।

-উর্দু নিউজ অবলম্বনে বেলায়েত হুসাইনের অনুবাদ


আরো সংবাদ


premium cement