১১ আগস্ট ২০২২
`

আসামে মুসলিম নিধন বন্ধ করুন : হেফাজতে ইসলাম

-

সম্প্রতি ভারতের আসাম রাজ্যের দরং জেলায় হাজার হাজার বাঙালি মুসলমানকে একটি শিবমন্দির নির্মাণের অজুহাতে ঘর-বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করা হচ্ছে। স্থানীয় আশ্রয়চ্যুত ও অধিকার বঞ্চিত মুসলমানদের বিক্ষোভে পুলিশের নির্বিচার গুলিতে হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। এ মর্মান্তিক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী ও মহাসচিব আল্লামা হফেজ নুরুল ইসলাম।

আজ সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দরা বলেন, ‘আসামের দরং জেলার মুসলমানদের কাছে সব ধরনের সরকারি নথি-পত্র, দলীল-প্রমাণ ও পরিচয়পত্র থাকা সত্ত্বেও ভারতের কট্টরপন্থী হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপি সমর্থিত আসামের প্রাদেশিক সরকার শুধুমাত্র মন্দিরের পরিধি বাড়ানোর অজুহাতে বিগত কিছুদিন ধরে সেখানে দফায় দফায় উচ্ছেদ অভিযান চালিয়ে প্রায় আট শ’ মুসলমান পরিবারকে ঘরবাড়ি ছাড়া করেছে। স্থানীয় মুসলিমরা এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ করলে পুলিশ গুলি করে দুই জন মুসলমানকে নিহত এবং আরো অনেককে আহত করেছে।’

বিবৃতিতে আরো বলেন, ‘সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে একজন উগ্র হিন্দুকে একজন মুসলমানের লাশের উপর তাণ্ডব চালাতে দেখা গেছে। ভারতের মত একটি স্যাকুলার ও গণতান্ত্রিক দেশে বিশেষ একটি জনগোষ্ঠীর উপর এরূপ অমানবিক আচরণ ও দমন-পীড়ন নীতি অপ্রত্যাশিত। ভারতের স্বাধীনতাসহ সকল বিষয়ে মুসলিমদের ঐতিহ্য ও অবদানের ইতিহাস কারো অজানা নয়।’

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আমরা হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সকল নেতা, কর্মী, সদস্য ও সমর্থক সহ সর্বস্তরের মুসলিম জনতার পক্ষ থেকে এর তীব্র নিন্দা ও জোর প্রতিবাদ জানাচ্ছি। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আমাদের দাবি, অনতিবিলম্বে আসামের মুসলমানদের উপর দমন পীড়ন বন্ধ করুন এবং আশ্রয়চ্যুত মুসলমানদের ভিটে-বাড়ি ফিরিয়ে দিন। আর এই জঘন্য ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করুন।’

আমিরে হেফাজত আল্লামা মুহিবুল্লাহ বাবুনগরী ও মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম বিবৃতিতে আরো বলেন, ‘ভারত নিজেকে যতই স্যাকুলার এবং বৃহৎ একটি গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবে প্রকাশ করুক না কেন! পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত খবরাখবর এবং বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত সংবাদ অনুযায়ী দেখা যায়, সেখানে মুসলমানদের উপরই সবচেয়ে বেশি দমন-পীড়ন চালানো হয়ে থাকে। অতএব মুসলমানদের উপর এরূপ আঘাত চলতে থাকলে বিশ্ব শান্তির বেলায় খুব নেতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে আমরা মনে করি। ভারত সরকারকে এসব শ্রেণী বৈষম্য ও বিভাজন সৃষ্টিকারী লোকদের সকল ষড়যন্ত্র বন্ধ করার প্রতি কড়া নজর রাখতে হবে। ভারতীয় মুসলমানদের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতে হবে এবং তারা যেন সম্পূর্ণ নিরাপত্তার সহিত নির্ভয়ে বসবাস করতে পারে, এর আশু ব্যবস্থা করতে হবে।’


আরো সংবাদ


premium cement
২ ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে দোকান থেকে টাকা কেড়ে নেয়ার অভিযোগ এক বছরে অর্ধেক সম্পদ খুইয়েছেন এশিয়ার সবচেয়ে ধনী নারী! সুইস রাষ্ট্রদূত মিথ্যা বলেছেন : পররাষ্ট্রমন্ত্রী এক বছরে খেলাপি ঋণ বেড়েছে ২৬ হাজার কোটি টাকা পদ্মায় গোসলে নেমে শিশুর মৃত্যু কাবুলের একটি মাদরাসায় আত্মঘাতী বিস্ফোরণ, আফগান নারী শিক্ষার অগ্রদূত নিহত যার মধ্যে নৈতিকতা নেই সে প্রকৃত মানুষ হতে পারে না : প্রফেসর ড. চৌধুরী মাহমুদ হাসান মূল্যবৃদ্ধি ও দুর্নীতির প্রতিবাদে প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ দাবিতে উত্তাল সিয়েরালিওন গাজায় ইসরাইলি হামলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৭ নালিতাবাড়ীতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত ইসরাইলি বিমানের জন্য আকাশ উন্মুক্ত করবে না ওমান

সকল