০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪৩০, ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৫ হিজরি
`

কালবৈশাখীর হানায় লণ্ডভণ্ড জামালপুর নিহত ১


বৈশাখের শেষে জৈষ্ঠ্যৈর শুরুতে কালবৈশাখীর হানায় লণ্ডভণ্ড হয়ে পড়েছে পুরো জামালপুর জেলা। এ সময় দোকানের উপর গাছ ভেঙে পড়ে সুজন মিয়া (৩০) নামে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ১০টার দিকে জামালপুর জেলার উপর দিয়ে বয়ে যায় কালবৈশাখী ঝড়। ঝড়ে জেলার কয়েক হাজার ঘরবাড়ি হাজার হাজার গাছপালা ভেঙে তছনছ হয়ে যায়। এছাড়া ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

সুজন আমবাড়িয়া গ্রামের সোজা খানের ছেলে।

জানা যায়, রাত আনুমানিক দশটার দিকে পশ্চিম দিক থেকে হঠাৎ শুরু হয় প্রচন্ড তাণ্ডব। এতে ধ্বংসস্তূপের পরিণত হয়েছে হাজার হাজার ঘরবাড়ি। উপড়ে পড়েছে অসংখ্য গাছপালা। গাছের ডাল পড়ে তার ছিঁড়ে মিটার ভেঙে যাওয়ায় জেলার সবগুলো উপজেলার অধিকাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ঝড়ের পাশাপাশি শিলাবৃষ্টিতে ধান, ভুট্টা, কলা, আম, লিচুসহ বিভিন্ন মৌসুমি ফলেরও ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জেলার ইসলামপুর, বকশীগঞ্জ, দেওয়ানগঞ্জ, মাদারগঞ্জ ও সদর উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া কালবৈশাখী ঝড়ে রাস্তায় গাছ পড়ায় বিভিন্ন এলাকার সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

উপজেলা প্রকল্পবাস্তবায়ন অফিসার মেহেদী হাসান টিটু জানান, ঝড়ে ক্ষয়ক্ষতির সঠিকভাবে পরিমাণ নিরূপণ করতে কয়েকটা দিন সময় লাগবে।

তিনি আরো বলেন, বিভিন্ন সূত্রের খবর ও সরেজমিন দেখে যে তথ্য পেয়েছি এতে পাঁচ সহস্রাধিক ঘরবাড়ি ক্ষতি সম্ভাবনা রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: তানভীর হাসান রুমান বলেন, জরুরি ভিত্তিতে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে জেনারেল প্রশাসকসহ উপরি মহলে পাঠানো হবে।

জেলা প্রশাসক শ্রাবস্তি রায় জানান, এ পর্যন্ত একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ এখন পর্যন্ত নিরূপণ করা সম্ভব হয়নি।


আরো সংবাদ



premium cement