০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯, ৯ রজব ১৪৪৪
ads
`

জামালপুরে নাশকতার মামলায় গ্রেফতার ৮

জামালপুরে নাশকতার মামলায় গ্রেফতার ৮ - ফাইল ছবি

জামালপুরের বিভিন্ন পৃথক মামলায় বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের আট নেতাকর্মীতে গ্রফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার পর্যন্ত তাদের সবাইকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, মেলান্দহ উপজেলা বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের ৩০ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে নাশকতা ও সরকারি খাদ্যগুদামে অগ্নিসংযোগের অভিযোগে মামলা হয় । এ মামলায় পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুরে গ্রেফতার ব্যক্তিদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তারা হলেন মেলান্দহ পৌর বিএনপির সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব ফাহাদুজ্জামান নবীন, পৌর বিএনপির সহ-সভাপতি আবদুল আজিজ, পৌর বিএনপির সদস্য সামিউল ও ছামিদুল।

অপর দিকে মঙ্গলবার দিবাগতে ইসলামপুর সদর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মানিক চাঁদ (৫০) ও পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি জহির উদ্দিন রাজাকে (৫৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। স্বজনদের অভিযোগ, কোনো অপরাধ না থাকলেও ঘুম থেকে তাদের ডেকে তাদের তুলে নিয়ে গেছে পুলিশ।

এছাড়া বুধবার দুপুরে গোয়ালের চর ইউনিয়ন যুবদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মুছা মিয়াকে (৪০) তার বাড়ির সামনে থেকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে ইসলামপুর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে।

ইসলামপুর থানার এসআই সাইফুল ইসলাম মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মাহমুদুল হক মোড়ল জানান, গ্রেফতারদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

মেলান্দহ থানার মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, সোমবার বিকেলে শাহজাদপুর এলাকার আমিনুল ইসলামের বাড়ির পাশে ফাঁকা জায়গায় জামায়াত–বিএনপির নেতাকর্মীরা জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে নৈরাজ্য, নাশকতার সৃষ্টি, উপজেলা খাদ্যগুদামে অগ্নিসংযোগ ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর হামলার লক্ষ্যে একত্রিত হন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বিএনপির ৬০ থেকে ৬৫ জনকে ওই জায়গায় সভা করতে দেখে। তখন পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বেশির ভাগ পালিয়ে গেলেও পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়।

মেলান্দহ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দেলোয়ার হোসেন বলেন, বিএনপির নেতাকর্মীরা নাশকতা সৃষ্টির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এ ঘটনায় ৩০ জনকে আসামি করে একটি মামলা করা হয়েছে। তাদের পাঁচজনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, পুলিশ নাশকতার বানোয়াট অভিযোগ এনে পাঁচ নেতাকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়েছে। দলীয় নেতাদের গ্রেফতার ও হয়রানিমূলক মামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে তাদের মুক্তির দাবি করেন তিনি।


আরো সংবাদ


premium cement
পুনরায় বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর তীব্র প্রতিবাদ বিএনপির জাপার বিদ্রোহীরা রওশনের নেতৃত্বে ২০১৪ সালের নির্বাচনে যায় : চুন্নু জাতির সঙ্কটময় মুহূর্তে খন্দকার মাহবুব হোসেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন জীবিত ব্যক্তিকে মৃত দেখিয়ে ব্যাংক থেকে আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎ বিদেশে শ্রমিক নিয়োগের বিধি-বিধান শক্তিশালী করতে হবে : মোরালেস এমপি রহমতুল্লাহ’র পকেটে আহলে হাদিসের দুই কোটি ভোট মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক ২ আসামি গ্রেফতার দলের নাম ভাঙিয়ে অপকর্মকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা : তথ্যমন্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ উপ-নির্বাচন ঘিরে ’নাটকীয়তা’ বিপিএলে ইতিহাস গড়ে জয় কুমিল্লার খেলার মাঠে দেয়াল দিয়ে প্রবেশাধিকার সংকুচিত করা হচ্ছে

সকল