০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ১৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

আগুন-লাঠি নিয়ে এলে খেলা হবে : ওবায়দুল কাদের

জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের। - ছবি : নয়া দিগন্ত

বিএনপিকে উদ্দেশ করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির মিটিংয়ে আমরা বাধা দিতে চাই না। তবে আগুন ও লাঠি নিয়ে এলে খেলা হবে।’

তিনি বলেন, ‘আপনারা লাঠি খেলা খেলবেন, আগুন নিয়ে খেলা করবেন, আর আমাদের নেতাকর্মীরা দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে ললিপপ চুসবে, তা হবে না। আমরা প্রস্তুত আছি। খেলা হবে, তৈরি আছি, ডিসেম্বরে খেলা হবে, আন্দোলনে খেলা হবে, ১০ তারিখেও খেলা হবে। খেলা হবে অর্থ পাচারের বিরুদ্ধে, ভোটচুরির বিরুদ্ধে, দুর্নীতির বিরুদ্ধে ও দুঃশাসনের বিরুদ্ধে।’

সোমবার (২৮ নভেম্বর) বিকেলে জামালপুর জিলা স্কুল মাঠে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ডাকাতিয়া হেমিলনের বাঁশির কথা বলে জনগণকে ভুল বুঝানো যাবে না। বাঁশি ফু দিয়ে জনগণকে কোথায় নিয়ে যাবেন, পাহাড়ে, না অন্য কোনো স্থানে। ধোকা দিয়ে জনগণকে বোকা বানানো চলবে না।’

তিনি আরো বলেন, ‘ওই খুনি তারেক রহমানকে আর কেউ বিশ্বাস করে না, তার নাম শুনলে সবাই ভয় পায়। তাই তারেক রহমান থেকে সাবধান। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতা হলেন অর্থ পাচারকারী তারেক রহমান। তার কত বাড়ি, কত মার্কেট ও কত টাকা আছে তা কেউ জানে না।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সাধারণ মানুষ ও স্বল্প আয়ের মানুষ কষ্ট পাচ্ছে। শেখ হাসিনা তা জানেন। বড় বড় লোকজন অনিয়ম করে আর গরীব মানুষের সমস্যা নয়। শেখ হাসিনা গরীব মানুষের সাথে আছেন। তিনি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ৩ থেকে সাড়ে ৩ ঘণ্টা ঘুমান। নেতা হলেন একজন, তা শেখ হাসিনা। আর আমরা হলাম তার কর্মী। ৭৫’র পর তার মতো আর কোনো নেত্রী নেই। আরেকবার দরকার শেখ হাসিনার সরকার।’

সম্মেলনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক। জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট বাকী বিল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, শফিউল আলম চৌধুরী, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক বাবু অসীম কুমার উকিল, সদস্য মারুফা আক্তার পপি প্রমুখ। সঞ্চালনা করেন জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী।

প্রথম পর্বের অনুষ্ঠানে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি।

সম্মেলন শেষে দ্বিতীয় পর্বে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ওবায়দুল কাদের জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটিতে সভাপতি হিসেবে অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ, সহ-সভাপতি ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী এবং সাধারণ সম্পাদক পদে বিজন কুমার চন্দের নাম ঘোষণা করেন।


আরো সংবাদ


premium cement