১২ মে ২০২১
`

আলোচিত বক্তা রফিকুল ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি হেফাজতের

আলোচিত বক্তা রফিকুল ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি দাবিতে পরিবার ও হেফাজতের সংবাদ সম্মেলন। - ছবি : নয়া দিগন্ত

উদীয়মান আলোচিত বক্তা মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানীকে র‌্যাব পরিচয়ে গভীর রাতে নিজ বাড়ি থেকে তুলে নেয়ার প্রতিবাদ করে তার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছে হেফাজত।

বুধবার বিকেলে নেত্রকোনা জেলা হেফাজতে ইসলাম ও মাদানীর পরিবারের লোকজনের উপস্থিতিতে নেত্রকোনা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, হেফাজতে ইসলামের অন্যতম নেতা জামিয়া হুসাইনিয়া মালনী মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম, রফিকুল ইসলাম মাদানীর বড় ভাই রমজান মিয়া, চাচাতো ভাই নজরুল ইসলাম, হেফাজত নেতা মাওলানা আসাদুর রহমান, মাওলানা মাজহারুল ইসলাম, যুবনেতা আব্দুর রহিম প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে রফিকুল ইসলমের বড় ভাই রমজান মিয়া জানান, রফিকুল ইসলাম মাদানী গত সোমবার ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের লেটিকান্দা গ্রামে আসেন। পরদিন মঙ্গলবার ময়মনসিংহের হালুয়াঘটে এক ওয়াজ মাহফিলে বক্তব্য শেষে নিজ বাড়িতে চলে আসেন। রাত আড়াইটার দিকে ১৯টি গাড়ি নিয়ে চারদিক থেকে তাদের বাড়ি ঘিরে ফেলা হয়। কালো পোশাক পরিধানরতরা নিজেদের র‌্যাব পরিচয় দিয়ে রফিকুল ইসলাম মাদানী, তার বড় ভাই বকুল মিয়া (৩৭) ও তার দূর সম্পর্কের ভাতিজা এনামুল হককে (২৮) তুলে নিয়ে যায়। পরে বকুল মিয়াকে রাতেই ছেড়ে দেয়া হলেও অন্য দু’জনের খোঁজ তাদের জানা নেই।

পরিবারের দাবি, রফিকুল ইসলাম মাদানীর ব্যবহৃত দুটি মুঠোফোনসহ তাদের পরিবারের ছয়টি মুঠোফোন জব্দ করে নিয়ে যায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। এতে তার পরিবার, স্বজন ও গ্রামবাসীদের মাঝে চরম উৎকণ্ঠা ছড়িয়ে পড়ে।

সকালে রফিকুল ইসলামের আটকের সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে জেলা জুড়ে গভীর উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার সৃষ্টি হয়।

সংবাদ সম্মেলনে সরকারের কাছে মাদানীর নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানানো হয়। অন্যথায় বৃহস্পতিবার মাবনবন্ধনসহ লাগাতার আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেয়া হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রফিকুল ইসলাম মাদানীরা পাঁচ ভাই। রফিকুল সবার ছোট। তার বাবা মৃত শাহাবুদ্দিন। রফিকুল ইসলাম নেত্রকোনার মালনী এলাকায় জামিয়া ইসলামিয়া হুসাইনিয়া মাদরাসায় অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত পড়ালেখা করে ঢাকায় চলে যান। সেখানে লেখাপড়া করার সময় ‘শিশুবক্তা’ হিসেবে আলোচিত হন।

এদিকে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক আ ন ম ইমরান খান মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদনীকে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, রাষ্ট্রবিরোধী উসকানিমূলক ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য দেয়া এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে রফিকুল ইসলাম মাদানীকে আটক করা হয়েছে।



আরো সংবাদ


চীনের মন্তব্যের জবাবে যা বললেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী (১০২৬৪)হামাসের কমান্ডার নিহত (৯৭৬৫)ইসরাইলি পুলিশের হাতে বন্দী মরিয়মের হাসি ভাইরাল (৭৩০৫)বিহারের পর এবার উত্তরপ্রদেশেও নদীতে ভাসছে লাশ (৬৭৮২)‘কোয়াডে বাংলাদেশ যোগ দিলে ঢাকা-বেইজিং সম্পর্ক খারাপ হবে’ (৫৮৬৩)যৌন অপরাধীর সাথে সম্পর্ক বিল গেটসের! এ কারণেই ভাঙল বিয়ে? (৪৮৬৯)উত্তরপ্রদেশে হিন্দু অধ্যুষিত গ্রামের প্রধান হলেন আজিম উদ্দিন (৪৪৫৬)নন-এমপিও শিক্ষকরা পাবেন ৫ হাজার টাকা, কর্মচারীরা আড়াই হাজার (৪২৪৬)মিতু হত্যা : স্বামী সাবেক এসপি বাবুল আক্তার গ্রেফতার (৩৯৭৩)গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি বিমান হামলায় ৯ শিশুসহ ২০ ফিলিস্তিনি নিহত (৩৮১৪)