০৮ আগস্ট ২০২০

ভালুকায় কটন মিলের ভেতরে শ্রমিকের আত্মহত্যা

ভালুকায় কটন মিলের ভেতরে শ্রমিকের আত্মহত্যা -
24tkt

ময়মনসিংহের ভালুকায় কটন মিলের পাঁচতলার একটি কক্ষে প্লাস্টিকের দঁড়ি দিয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলে কামরুল ইসলাম (২১) নামে এক মিল শ্রমিক আত্মহত্যা করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাতে উপজেলার ভরাডোবা গ্রামের বাকসাতরা এলাকায় অবস্থিত তাফরিদ কটন ফ্যাক্টরিতে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, তাফরিদ কটন মিলের ছয় জন শ্রমিক এক সাথে পাঁচতলার একটি রুমে থাকতেন। নিহত কামরুল ইসলামসহ হৃদয়, রিয়াদ, রেজাউল, রিমন ও আজিজুল ওই রুমে অবস্থান করে ওই কটন মিলের রিং সেকশনে চাকরি করছিলেন। ৬ জুলাই সোমবার রাত ৯টার ডিউটিতে পাঁচজনই যোগ দিতে গেলেও কামরুল শরীর খারাপ বলে যাননি। মঙ্গলবার সকালে সকলেই ডিউটি শেষে রুমে যেতে চাইলে তারা দেখেন রুমের ভিতর থেকে সিটকিনি লাগানো। ডাকাডাকি করে ভেতর থেকে কোন সাড়া না পেয়ে থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘরের ভেতর ফ্যানের সাথে প্লাস্টিকের দড়ি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় কামরুল ইসলামকে মৃত উদ্ধার করে পুলিশ। পরে মৃতদেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে পুলিশ। নিহত কামরুল ইসলাম পাশের ত্রিশাল উপজেলার রাঁধাকানাই গ্রামের মৃত আক্কাস আলীর ছেলে।

মিলের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) রাশেদুর রহমান তুষার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ওই ছয় বন্ধু ফ্যাক্টরির কোয়ার্টারের একটি রুমে থেকে চাকরি করছিলেন। সোমবার পাঁচজন ডিউটিতে গেলেও কামরুল শরীর খারাপ বলে যায়নি। সকালে ডিউটি শেষে অন্যরা গিয়ে দেখেন রুমের ভেতর থেকে সিটকিনি লাগানো ফ্যানের সাথে কামরুলের ঝুলন্ত মৃতদেহ। কি কারণে সে আত্মহত্যা করেছে, তা এই মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না।

ভালুকা মডেল থানার ওসি মাইনউদ্দিন জানান, মিল শ্রমিকের লাশটি উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।


আরো সংবাদ

প্রদীপের অপকর্ম জেনে যাওয়ায় জীবন দিতে হয়েছে সিনহাকে? (২৯৮২৮)মেজর সিনহা হত্যা : ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলীসহ ৭ পুলিশ বরখাস্ত (৮৪৬৩)পাকিস্তানের বোলিং তোপে লন্ডভন্ড ইংল্যান্ড (৬৬৫৪)জাহাজ ভর্তি ভয়াবহ বিস্ফোরক বৈরুতে পৌঁছল যেভাবে (৫৮২৮)অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ নিয়ে কড়া বিবৃতি পাকিস্তানের, যা বলছে ভারত (৫৭৬৬)আয়া সোফিয়ায় জুমার নমাজ শেষে যা বললেন এরদোগান (৫৭১৩)নতুন রাজনৈতিক দলের ঘোষণা দিলেন মাহাথির (৫৪৫৩)এসএসসির স্কোরের ভিত্তিতে কলেজে ভর্তি হবে শিক্ষার্থীরা (৫০৯৯)কানাডায়ও ঘাতক বাহিনী পাঠিয়েছিলেন মোহাম্মাদ বিন সালমান! (৫০৭৩)সাগরের ইলিশে সয়লাব খুলনার বাজার (৪৯৮৫)