০২ জুন ২০২০

জামালপুরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত, ঘোষেরপাড়া ইউনিয়ন লকডাউন

জামালপুরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত, ঘোষেরপাড়া ইউনিয়ন লকডাউন - সংগৃহীত

জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলায় ঢাকাফেরত প্লাস্টিক কারখানার কর্মচারী এক যুবকের নমুনা পরীক্ষায় করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। রোববার রাতে ময়মনসিংহের করোনা পরীক্ষাগার থেকে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে জামালপুর জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। রাতেই ওই যুবককে তার বাড়ি থেকে নিয়ে এসে জামালপুরে নির্মাণাধীন শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের অস্থায়ী করোনা ইউনিটের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় জেলার মেলান্দহ উপজেলার ঘোষেরপাড়া ইউনিয়ন লকডাউন ঘোষণা করেছে উপজেলা প্রশাসন। এ জেলায় ১৬ জন রোগীর নমুনা পরীক্ষা করে এই প্রথম একজন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হলো।

জানা গেছে, জেলার মেলান্দহ উপজেলার ঘোষেরপাড়া ইউনিয়নের বীর ঘোষেরপাড়া গ্রামের ওই যুবক ঢাকায় বনানীর একটি প্লাস্টিক কারখানার কর্মচারী। তার বয়স ২৬ বছর। তিনি অবিবাহিত। ৩ জন রুমমেটের সাথে ঢাকার আশকোনায় থাকতেন তিনি। রুমমেট ওই ৩ জনের বাড়ি জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার ভাবকী ও মধ্যেরচর গ্রামে। গত ২৬ মার্চ তিনি ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়ি বীর ঘোষেরপাড়ায় যান। বাড়িতে থাকা অবস্থায় তিনি করোনার উপসর্গ জ্বর, গলাব্যথা ও কাঁশিতে আক্রান্ত হন। বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা থাকলেও এলাকায় তিনি অবাধে ঘোরাফেরা এবং লোকজনের সাথে মেলামেশা করেন। তাকে নিয়ে এলাকায় সন্দেহ দেখা দিলে ওই পাড়ায় করোনা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয়দের তথ্যের ভিত্তিতে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ গত শনিবার বিকেল তিনটার দিকে তার নমুনা সংগ্রহ করে ময়মনসিংহে করোনা পরীক্ষাগারে পাঠায়।

এব্যাপারে জামালপুরের সিভিল সার্জন চিকিৎসক আবু সাঈদ মো. মাহবুবুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, মেলান্দহের ওই ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষায় করোনা ‘পজিটিভ’ ধরা পড়েছে বলে ময়মনসিংহ করোনা পরীক্ষাগার থেকে রোববার (৫ এপ্রিল) সন্ধ্যার দিকে ফোনে আমাদের জানানো হয়েছে। এই রোগীকে ময়মনসিংহে অথবা ঢাকায় কুর্মিটোলায় করোনা আইসোলেশন হাসপাতালে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। এ বিষয়ে আমরা ঢাকায় আইইডিসিআর কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করেছি।


আরো সংবাদ