০১ জুন ২০২০

৮৮ বছরেও ‘বয়স্ক ভাতা’ পান না আবেদ আলী

৮৮ বছরেও ‘বয়স্ক ভাতা’ পান না আবেদ আলী - ছবি: নয়া দিগন্ত

শ্রীবরদীতে বয়স্ক ভাতা কার্ডের জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন আটাশি বছরের অসহায় বৃদ্ধ আবেদ আলী। কার্ড না পেয়ে মানুষের কাছ থেকে ভিক্ষা করে স্ত্রী-সন্তনকে নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করছেন তিনি।

খোঁজ নিয়ে যানা যায়, শ্রীবরদী উপজেলার গোশাইপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের গোশাইপুর গ্রামের মৃত তমির আলীর ছেলে আবেদ আলী। সহায় সম্পত্তি বলতে এক চিলতে পৈত্রিক ভিটেতে ঘর তৈরী করে কোন রকম মাথা গোজার ঠাঁই করে নিয়েছেন। সেখানেই তিনি স্ত্রী সন্তান নিয়ে বসবাস করছেন তিনি। বর্তমানে শরীরে শক্তি না থাকায় লাঠিতে ভর করে মানুষের দুয়ারে দুয়ারে ভিক্ষাবৃত্তি করে স্ত্রী ও এক মেয়েসহ নাতি-নাতনী নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

আবেদ আলী সংসারে তিন মেয়ে। তিন জনকেই বিয়ে দিয়েছেন তিনি। দুই মেয়ে স্বামীর সংসারেই থাকেন নিজেদের মত করে। তবে ছোট মেয়ে মালেহার স্বামী মারা গেছে কয়েক বছর আগে। স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে দুই মেয়ে ও এক ছেলে নিয়ে বাবা আবেদ আলীর সংসারেই থাকেন।

বৃদ্ধ আবেদ আলী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, একটি কার্ডের জন্য অনেকের কাছে গেছি কিন্তু পাইনি। বয়সের জন্য কাজ করতে পারি না তাই ভিক্ষা করে খেয়ে না খেয়ে বেঁচে আছি।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে আসলে ওই বৃদ্ধের বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেয়ার আশ্বাস দেন গোশাইপুর ইউপি চেয়ারম্যান এস.এম যোবায়েল।


আরো সংবাদ





justin tv maltepe evden eve nakliyat knight online indir hatay web tasarım ko cuce Friv buy Instagram likes www.catunited.com buy Instagram likes cheap Adiyaman tutunu