২৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩
`
ব্যান্ডের বিরুদ্ধে যতো অভিযোগ

মাইলসের সাথে গাইবেন না শাফিন আহমেদ


বাংলাদেশের অন্যতম পপ ব্যান্ডদল মাইলসের ভোকাল গিটারিস্ট শাফিন আহমেদ এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো এই দলটির সাথে সংগীত কার্যক্রম বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন।

একইসাথে 'মাইলস' নাম ব্যবহার করে ব্যান্ডের সব কার্যক্রম স্থগিত চেয়েছেন তিনি।

শনিবার রাত ৯টার দিকে নিজের ভেরিফায়েড ফেইসবুক পেইজ থেকে এক ভিডিও বার্তায় এ ঘোষণা দেন শাফিন আহমেদ।

এর আগে, ২০১৭ সালের অক্টোবরেও তিনি একবার ব্যান্ডটি থেকে আলাদা হয়ে গিয়েছিলেন। এর কয়েকমাস পর দ্বন্দ্বের মীমাংসা শেষে ব্যান্ডে ফেরেন।

এছাড়া ২০১০ সালের শুরুর দিকেও একবার ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে ব্যান্ড থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। যদিও কয়েকমাস পর আবারো মঞ্চে তাদের একসাথে পারফর্ম করতে দেখা যায়।

ব্যান্ডটি যেখানে ২০১৯ সালে তাদের ৪০ বছরের যাত্রা পূর্ণ করেছে, সেখানে নতুন করে এমন ঘোষণা আসায় ভক্তদের মধ্যে তা আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

মাইলস ছাড়ার কথা বলেননি শাফিন আহমেদ
২০২০ সালে মহামারী আগ পর্যন্ত ব্যান্ডদলটি একসাথেই কাজ করলেও, মার্চের পর থেকে সঙ্কট ঘনীভূত হতে থাকে।

পরে ২০২১ সালের জানুয়ারি এ ব্যাপারে ব্যান্ডকে লিখিত অভিযোগে শাফিন আহমেদ জানান, বিদ্যমান সমস্যা সমাধান না হওয়া পর্যন্ত তিনি তাদের সাথে মিউজিক করবেন না।

এর মানে এই নয় যে শাফিন আহমেদ মাইলস ছেড়ে যাচ্ছেন।

তিনি বলেছেন, ‘ব্যান্ড ছাড়ার কথা আমি কোথাও বলিনি। আমি বলেছি ওদের সাথে আর মিউজিক করবো না। কারণ তাদের সাথে কাজ করে আমার শুধু ক্ষতি হচ্ছে।’

অবশ্য তিনি নিজ নামে সংগীত কার্যক্রম যেমন: কনসার্ট বা স্টেজ পারফর্মেন্স, রেকর্ডিং অব্যাহত রাখবেন বলে জানান।

মাইলস নামে এই ব্যান্ডটি ১৯৭৯ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই এর ভোকাল হিসেবে আছেন শাফিন আহমেদ।

প্রথম ১২ বছর তারা শুধুমাত্র ইংরেজি ভাষার গান করতেন। এরপর ১৯৯১ সাল থেকে মাইলস বাংলা গান লিখে সুর করে দেশ ও দেশের বাইরে পারফর্ম শুরু করেন। ওই বছরই তাদের প্রথম অ্যালবাম 'প্রতিশ্রুতি' বাজারে আসে। তার আগে তাদের দু'টি ইংরেজি গানের অ্যালবাম প্রকাশিত হয়। সেগুলো হল: 'মাইলস' ও 'এ স্টেপ ফারদার'।

এরপর থেকেই রাতারাতি জনপ্রিয়তা পায় এই ব্যান্ডটি।

এতো দীর্ঘ যাত্রার পরও শনিবারের ওই ভিডিও বার্তায় শাফিন আহমেদ বলেন, 'এ বছরের শুরুতে আমি সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছি। মাইলসের বর্তমান লাইনআপের সাথে কোনো কার্যক্রম করা আমার পক্ষে সম্ভব হবে না। আগামীতেও এই লাইনআপের সাথে মিউজিক করা থেকে বিরত থাকব।'

ভিডিওটির ক্যাপশনে শাফিন আহমেদ লিখেছেন- 'দীর্ঘদিনের অন্যায় ও ভুল কার্যক্রমের জন্য আমি এ সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছি।'

শাফিন আহমেদের অভিযোগের বিষয়ে ব্যান্ডের অন্য সদস্যদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, এটি তাদের ব্যান্ডের অভ্যন্তরীণ বিষয়, এ নিয়ে তারা আনুষ্ঠানিক কোনো মন্তব্য করবেন না।

শাফিন আহমেদ ছাড়া মাইলস ব্যান্ডের লাইন-আপে আছেন- হামিন আহমেদ (ভোকাল ও গিটার), মানাম আহমেদ (ভোকাল ও কি-বোর্ড), ইকবাল আসিফ জুয়েল (ভোকাল ও গিটার), সৈয়দ জিয়াউর রহমান তূর্য (ড্রামস)।

তাদের জনপ্রিয় গানগুলোর মধ্যে রয়েছে- 'চাঁদ তারা সূর্য', 'প্রথম প্রেমের মতো', 'ফিরিয়ে দাও', 'ধিকি ধিকি', 'পাহাড়ি মেয়ে', 'নীলা', 'কি যাদু', 'হৃদয়হীনা', 'স্বপ্নভঙ্গ', 'জ্বালা জ্বালা', 'পিয়াসী মন' ইত্যাদি।

সূত্র : বিবিসি


আরো সংবাদ


premium cement
আইসিবি এএমসিএল পেনশন হোল্ডারসথ ইউনিট ফান্ডের ১০ টাকা লভ্যাংশ ঘোষণা জুমার নামাজ শেষে মসজিদে দোয়ার আহ্বান হেফাজতের সাংবাদিক এমদাদুল হক খানের ওপর সন্ত্রাসী হামলা ইউক্রেন নিয়ে অবস্থান ব্যাখ্যা করল রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র দুবাইয়ে খেলবেন জোকোভিচ জাতীয় উশুতে এসএ গেমস স্কোয়াড বাছাই ইরাককে হারিয়ে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলার সুযোগ পেল ইরান পোশাক শিল্পে নারী শ্রমিকদের হার কমে যাওয়ার কারণ কী? কোটি ডলার ব্যয়ের উৎস বিএনপিকে ব্যাখ্যা করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী বিটকয়েন : ক্রিপ্টোকারেন্সি তৈরিতে যেভাবে খনি হয়ে উঠেছে কাজাখস্তান দেশের অধস্তন আদালত তদারকিতে ৮ বিচারপতির মনিটরিং কমিটি

সকল