১৪ মে ২০২১
`

রমজান নিয়ে কলরব শিল্পীদের নতুন ১০ গান

-

ইসলামিক গান মূলত ইসলামী সংস্কৃতির অংশ। পৃথিবীর শুরু যুগ থেকেই মানুষের মাঝে গান চর্চার প্রচলন আছে। প্রিয় নবী হজরত মোহাম্মদ সা.-এর যুগেও ইসলামিক গানের চর্চা ছিল। গান মানুষের মনকে নরম করে ও জাগিয়ে তুলে। গানের কথা ও সুর আধ্যাত্মিক জগতে প্রভাব ফেলে। সবচেয়ে বড় কথা, যে গানে পাপ হয়, তার থেকে মানুষকে নিবৃত রাখতে ইসলামিক গানের বিকল্প নেই।

ইসলামের এ সংস্কৃতি বাংলাভাষী মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে প্রায় ১৮ বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছে প্রথিতযশা ইসলামিক শিল্পী আইনুদ্দীন আল-আজাদ রহ.-এর প্রতিষ্ঠিত জাতীয় শিশুকিশোর সাংস্কৃতিক সংগঠন 'কলরব'।

কেবল দেশ নয়, দেশের বাইরেও অসংখ্য দর্শকশ্রোতার হৃদয় ছুঁয়ে যায় ইসলামিক মিউজিকব্যান্ড "কলরব" শিল্পীদের ইসলামিক গান। এ প্রতিষ্ঠানের শিশু, কিশোর ও তরুণ শিল্পীদের গান ব্যাপক দর্শকপ্রিয়তা লাভ করেছে। তাদের গানের কথা ও সুরে বহুবার মুগ্ধ হয়েছেন ভক্তরা।

কলরবের শিশু ও কিশোর শিল্পীদের গান জনপ্রিয়তা তুলনামূলক বেশি। সববয়সী দ্বীনদার মানুষ তাদের গান পছন্দ করেন। গান ও অভিনয়ের মিশিলে ইসলামের বিভিন্ন সংস্কৃতি সমাজের বিভিন্ন স্তরে পৌঁছে দিচ্ছেন তারা।

পবিত্র রমজান নিয়ে অন্তত ১০টি গান রিলিজ করেছে কলরব শিল্পীগোষ্ঠী। এ বিষয়ে কলরবের বদরুজ্জামান বলেন, দশ সালের আগে রমজান মানেই অনেকগুলো নতুন এলবাম রিলিজ হওয়া। রমজানের এলবামও থাকতো সেখানে। নতুন নতুন সুর আর কথায় বিমোহিত হত প্রাণ। সময় গড়িয়ে ক্যাসেট থেকে সিডি, সিডি থেকে মেমোরি হয়ে এখন উন্মুক্ত বিশাল অনলাইন পৃথিবী। এখন আর এলবাম হয় না। বেশির ভাগই হয় সিঙ্গেল গান।

এবার রমজান উপলক্ষে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম ১০টি গানে একটি এলবাম করবো। যেখানে সবগুলো গানই হবে রমজান বিষয়ক। আল্লাহ্‌র ইচ্ছায় তা পূরণ হয়েছে, আলহামদুলিল্লাহ্‌।

কলরব শিল্পীগোষ্ঠীর রমজান বিষয়ক ১০টি গান

১। 'মুমিন হৃদয়ে চাঁদ উঠেছে।' গেয়েছেন : সাঈদ আহমদ,বদরুজ্জামান এবং আবু রায়হান। গানটি লিখেছেন, তানভির আজিজ সাকিব।

২। 'ইয়া রামাদন।' গেয়েছেন : হোসাইন আদনান, মাহফুজ আলম, হাসান মাহদি ও তাওহীদ জামিল। লিখেছেন, সোহেল রানা আশিক।

৩। 'এলো রমজান।' গেয়েছেন, তাহসীনুল ইসলাম, আহনাফ খালিদ, ফজলে এলাহি সাকিব, জাহিদ হাসান, আবদুল্লাহ মুশতাক এবং নাসরুল্লাহ। লিখেছেন, সাঈদ উসমান।

৪। 'এলো মাহে রমজান।' গেয়েছেন : জাহিদুল ইসলাম শাওন, রিফাত রহমান, সিফাত রহমানসহ আরো অনেকেই। গানটি লিখেছেন, সাঈদ উসমান।

৫। 'রমজানুল মোবারক।' গেয়েছেন : সাঈদ আহমদ, হাফেজ ফাসিহ আসিফ এবং বদরুজ্জামান। লিখেছেন, শাহিন ইকবাল।

৬। 'আহলান সাহলান মাহে রমজান।' গেয়েছেন : উমর আবদুল্লাহ, সালমান সাদী, আবির হাসান এবং ইমরানুল ফারহান। গানটি লিখেছেন, আইনুদ্দীন আল আজাদ।

৭। 'মোবারক মাস রমজান।' গেয়েছেন : ইকবাল মাহমুদ, ওমর আবদুল্লাহ, ইলিয়াস আমিন, সালমান সাদী এবং ইমরানুল ফারহান। লিখেছেন, মামুন মিসবাহ।

৮। 'বছর ঘুরে এলো রমজান।' গেয়েছেন : হুমায়ূন কবির আজাদ এবং মাহদি হাসান। লিখেছেন, হুমায়ূন কবির আজাদ।

৯। 'সিয়ামের দিন।' গেয়েছেন : রিফাত রহমান এবং হুজাইফা ইসলাম। লিখেছেন, হোসাইন আল হাফিজ।

১০। 'এলো রমজানেরই মাস।' গেয়েছেন : আহনাফ খালিদ, ফজলে ইলাহি সাকিব, জাহিদ হাসান, নাসরুল্লাহ এবং আবদুল্লাহ মুশতাক। লিখেছেন, সাঈদ উসমান।



আরো সংবাদ


গাজার তৃতীয় টাওয়ার ধ্বংসের পর আরো বেশি রকেট নিক্ষেপ হামাসের (১৭৫৬১)এবারের মতো ক্ষতির শিকার ইসরাইল আর কখনো হয়নি : হামাস (১৪১১৮)দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর পাকিস্তানে ঈদ হচ্ছে আজই (১১০৩২)ইসরাইলের পক্ষে দাঁড়াল ভারত, জাতিসঙ্ঘে ফিলিস্তিনের ‘বিশেষ নিন্দা’ (১০২৩৭)ফিলিস্তিনিদের আরো শক্তিশালী সমর্থন দেবে ইরানের আইআরজিসি (৯৭১০)এবার র‌্যামন বিমানবন্দরে হামাসের দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা (৯৫৩২)ইসরাইলের পরমাণু কেন্দ্রের কাছে হামাসের ১৫ রকেট নিক্ষেপ (৮০৭১)ইসরাইল-ফিলিস্তিন যুদ্ধ বন্ধে যে উদ্যোগ নিচ্ছে জাতিসঙ্ঘ (৬৪৭৭)হামাসের রকেট হামলায় বিমান চলাচলের পথ পরিবর্তন ইসরাইলের (৫৯৫২)এখনো মূল ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করিনি : হামাস (৫৮৪৪)