২৮ জানুয়ারি ২০২১
`

ব্যক্তিগত হলেও বিয়ে লুকিয়ে রাখার কিছু নেই : হাবিব

হাবিব ওয়াহিদ (বাঁয়ে) ও আফসানা চৌধুরী শিফা - ছবি : ফেসবুক

নতুন সংসার শুরু করেছেন সঙ্গীতশিল্পী হাবিব ওয়াহিদ। খবরটা নতুন হলেও বিয়েটা হয়েছে তিনমাস আগে। মঙ্গলবার নিজের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে পোস্ট দিয়ে খবরটি নিশ্চিত করেছেন হাবিব। ইংরেজিতে তিনি লিখেছেন, ‘প্রিয় ভক্তরা, তোমাদের সাথে আমি আমার জীবনে হুট করে ঘটে যাওয়া একটা ঘটনা শেয়ার করতে চাই। সম্প্রতি আমি বিয়ে করেছি। আমার স্ত্রীর নাম আফসানা চৌধুরী শিফা। যেমনটা তোমরা জানো- মহামারীর কারণে পুরো পৃথিবী একটা কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এর কারণেই আমাদের বিয়ের অনুষ্ঠান অত্যন্ত ব্যক্তিগত রাখা হয়েছে।’

হাবিবের স্ত্রী শিফাও শোবিজের মানুষ। তিনি মডেলিং ও অভিনয়ের সাথে যুক্ত। বিক্রমপুরের এই তরুণী ইডেন মহিলা কলেজের মার্কেটিং বিষয়ে পড়াশোনা করেন।

নতুন বিয়ের বিষয়ে জানতে হাবিব ওয়াহিদের সাথে যোগাযোগ করা হলেও তিনি বলেন, ‘ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে আমি সব বলে দিয়েছি’। কিন্তু কবে, কখন, কোথায় বিয়ে হয়েছে এই বিষয়গুলো সেখানে উল্লেখ নেই। হাবিব বলেন, ‘যতটুকু প্রয়োজন মনে হয়েছে ততটুকুই জানিয়েছি। করোনার কারণে যেহেতু ছোট পরিসরে বিয়ে হয়েছে তাই স্থান এবং সময় উল্লেখ করিনি। শিফার সাথে আমার পরিচয় ৮ মাস আগে। বিয়ের বয়স প্রায় তিন মাস।’ এতোদিন বিয়টি লুকিয়ে রাখার কারণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিয়ে বিষয়টি একেবারেই ব্যক্তিগত। এই বিষয়গুলো মিডিয়ায় বলার ইচ্ছা আমার নেই। আবার বিয়ে লুকিয়ে রাখারও কিছু নেই। সংসার তো সত্য ও সুন্দর বিষয়। সেই ভাবনা থেকেই ফেসবুকে তথ্যটি জানালাম। কিন্তু এটা নিয়ে বাড়াবাড়ি কিছু হোক, সেটি আমরা চাই না।’

হাবিব আরো জানান, শিফার গ্রামের বাড়ি মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলায়। তবে তার পরিবার ঢাকায় স্যাটেল। হাবিবের বাড়ি পাশের উপজেলা দোহারে।

হাবিব বলেন, ‘আমাদের পরিচয় ঢাকাতেই। পরিচয়ের কিছুদিন পর আমরা অনুভব করি সংসারের। এরপর জানতে পারি দুজন একই অঞ্চলের মানুষ! মুন্সিগঞ্জ। যদিও প্রেম বা বিয়ের পেছনে এটা কোনো কাজ করেনি। পারিবারিকভাবেই বিয়ের সিদ্ধান্ত হয়েছে। করোনার কারণে বিয়ে নিয়ে কোনো আনুষ্ঠানিকতার পরিকল্পনা নেই।’

হাবিব আরো যোগ করেন, ‘জন্ম-মৃত্যু-বিয়ে উপরওয়ালা থেকে নির্ধারিত। তা না হলে, শিফার সাথে আমার পরিচয়ই হতো না। এদিকে আমার একমাত্র সন্তান আলীম ওয়াহিদও বড় হচ্ছে। ওর সোশ্যাল সিকিউরিটির বিষয়টাও দেখতে হবে। এসব মিলিয়ে বিয়ের বিষয়টি নিয়ে আমি এ পর্যন্ত কোথাও কমেন্ট করিনি, করার ইচ্ছেও নেই। যেটুকু জানানোর, সেটা ফেসবুকে জানিয়েছি। বাকিটা আল্লাহর ইচ্ছা।’

হাবিব বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে সংবর্ধনা বা হানিমুন বিষয়টি তুচ্ছ। এসব নিয়ে ভাবছি না। আমরা আসলে একসাথে নিজেদের মতো বাকি জীবন কাটাতে চাই।’

এদিকে হাবিবের বিয়ের খবর শুনে তার ভক্তরা ভীষণ উচ্ছ্বসিত। প্রত্যেকেই তার পোস্টে ভালোবাসা আর শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন। হাবিব ওয়াহিদ তার শিল্পী জীবনের প্রথম দিকে ২০০৩ সালে লুবিয়ানা নামের এক নারীকে বিয়ে করেন। তবে কিছু দিন পরই সেই সংসার ভেঙে যায়।

এরপর ২০১১ সালের ১২ অক্টোবর পারিবারিক সিদ্ধানে হুট করে চট্টগ্রামের মেয়ে রেহানকে বিয়ে করেন হাবিব। এই সংসারে হাবিবের আলিম ওয়াহিদ নামে এক ছেলে সন্তান রয়েছে। ২০১৬ সালে রেহানের সাথে হাবিবের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যায়।



আরো সংবাদ


বিশ্বব্যাপী করোনায় মৃত্যু প্রায় ২১ লাখ ৭৪ হাজার ইরানের পরমাণু সমঝোতা নিয়ে যা বললেন নয়া মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী খেলাপি ঋণে শিথিলতা চান না ব্যাংকাররাও করোনা ভ্যাকসিন : যে ৪ গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের জবাব এখনো মেলেনি ২ হাজার ৩৭৪ কোটি টাকার বিটকয়েন ভর্তি হার্ড ডিস্ক ছুঁড়ে ফেলেছেন তিনি পেঁয়াজের বাম্পার ফলনেও হাসি নেই কৃষকের চট্টগ্রামের নতুন মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী নবম ও দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া : জীববিজ্ঞান ও বাংলা প্রথমপত্র সপ্তম অধ্যায় : গ্যাসীয় বিনিময় বাংলা প্রথমপত্র গদ্যাংশ : নিমগাছ ২০২১ সালের ক্যাডেট কলেজে ভর্তি প্রস্তুতি : দরকারী পরামর্শ নবম ও দশম শ্রেনীর লেখাপড়া : বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় প্রথম অধ্যায় : পূর্ব বাংলার আন্দোলন ও জাতীয়তাবাদের উত্থান (১৯৪৭-১৯৭০)

সকল