০৮ আগস্ট ২০২০

এন্ড্রু কিশোর আমাকে শাসন করতেন : কুমার বিশ্বজিৎ

এন্ড্রু কিশোর আমাকে শাসন করতেন : কুমার বিশ্বজিৎ - ছবি : সংগৃহীত
24tkt

বরেণ্য সংগীতশিল্পী এন্ড্রু কিশোর আর নেই। সোমবার সন্ধ্যায় বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় এই কণ্ঠশিল্পী রাজশাহী মহানগরীর মহিষবাথান এলাকায় বোনের বাসায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর।

এন্ড্রু কিশোরের এক ছেলে ও এক মেয়ে। তারা দুজনই অস্ট্রেলিয়ায় পড়াশোনা করছেন। মেয়ে মিনিম এন্ড্রু সংজ্ঞা সিডনিতে গ্রাফিক ডিজাইন আর ছেলে জে এন্ড্রু সপ্তক মেলবোর্নে ফ্যাশন ডিজাইনিংয়ে পড়ছেন। বাবার মৃত্যুর খবর পেয়ে তারা দেশে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছেন, দেশে ফিরলেই শেষকৃত্য হবে বলে জানিয়েছেন এন্ড্রু কিশোরের ভগ্নিপতি ডা. প্যাট্রিক বিপুল বিশ্বাস।

বিপুল বিশ্বাস বলেন, ‘বাবার শরীরের অবস্থা খারাপ শোনার পর থেকেই তারা দেশের ফেরার চেষ্টা করছে। তবে এখনো তারা আসার জন্য টিকেট পায়নি। ওখানে তাদের পরিচিত কয়েক জনের সাথে কথা হয়েছে। অল্প সময়ের মধ্যেই তারা টিকেট পেয়ে যাবে বলে আশা করছি। তারা দেশের ফেরার পরেই এন্ড্রু কিশোরের শেষকৃত্যের সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’

এদিকে কিংবন্দী শিল্পীর মৃত্যুতে দেশের সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে শোকাবহ বিরাজ করছে। কত গান মানুষের হৃদয়ে গেঁথে আছে। তার সাথে কাটানো দারুণ সব স্মৃতি ভাগাভাগি করছেন অনেকে। কষ্টের স্মৃতিও। প্রিয় সহযাত্রীর মৃত্যুতে শোকে কাতর সঙ্গীত শিল্পী কুমার বিশ্বজিৎ।

নিজেরে ভেরিফাই ফেসবুক পেইজে তিনি লিখেছেন, ‘এন্ড্রু কিশোরের মতো ক্ষনজন্মা শিল্পী যুগে যুগে আসে না। তার চলে যাওয়ায় আমাদের সঙ্গীতাঙ্গনের যে ক্ষতি হয়েছে তা কোনোদিনও পূরণ হওয়ার নয়। শুধু সহযাত্রীই নয়, বরং হারালাম আমার একজন ভাই যিনি আমাকে শাসন করেছেন যেমনটি, তেমনি আদরও। এই শোক সত্যি সত্যিই অসহনীয়। তার আত্মার শান্তি কামনা করি এবং পরিবারের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করছি।’

১৯৫৫ সালে এন্ড্রু কিশোরের জন্ম রাজশাহীতে। সেখানেই কেটেছে তাঁর শৈশব ও কৈশোর। এন্ড্রু কিশোর প্রাথমিকভাবে সংগীতের পাঠ শুরু করেন রাজশাহীর আবদুল আজিজ বাচ্চুর কাছে। একসময় গানের নেশায় রাজধানীতে ছুটে আসেন। মুক্তিযুদ্ধের পর তিনি রবীন্দ্রসংগীত, নজরুলসংগীত, আধুনিক গান, লোকগান ও দেশাত্মবোধক গানে রেডিওর তালিকাভুক্ত শিল্পী হন।

বাংলা গানের কিংবদন্তি এই সংগীতশিল্পী ‘প্লেব্যাক সম্রাট’ হিসেবেও পরিচিত। বাংলা চলচ্চিত্রের গানে তাঁকে বলা যেতে পারে এক মহাসমুদ্র। কয়েক দশক ধরে সেই সমুদ্রে সাঁতার কেটে চলেছেন শ্রোতারা। ‘জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প’, ‘হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস’, ‘ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে’, ‘আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি’, ‘আমার বুকের মধ্যখানে’, ‘পৃথিবীর যত সুখ আমি তোমারই ছোঁয়াতে খুঁজে পেয়েছি’, ‘সবাই তো ভালোবাসা চায়’, ‘বেদের মেয়ে জোছনা আমায় কথা দিয়েছে’, ‘তুমি আমার জীবন আমি তোমার জীবন’, ‘ভালো আছি ভালো থেকো’, ‘তুমি মোর জীবনের ভাবনা’, ‘চোখ যে মনের কথা বলে’সহ অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গান রয়েছে তার।


আরো সংবাদ

প্রদীপের অপকর্ম জেনে যাওয়ায় জীবন দিতে হয়েছে সিনহাকে? (২৮৭৫৪)মেজর সিনহা হত্যা : ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলীসহ ৭ পুলিশ বরখাস্ত (৬৮৫২)পাকিস্তানের বোলিং তোপে লন্ডভন্ড ইংল্যান্ড (৬৫৮১)অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ নিয়ে কড়া বিবৃতি পাকিস্তানের, যা বলছে ভারত (৫১৬৪)জাহাজ ভর্তি ভয়াবহ বিস্ফোরক বৈরুতে পৌঁছল যেভাবে (৪৯৩৬)কানাডায়ও ঘাতক বাহিনী পাঠিয়েছিলেন মোহাম্মাদ বিন সালমান! (৪৮৪০)এসএসসির স্কোরের ভিত্তিতে কলেজে ভর্তি হবে শিক্ষার্থীরা (৪৭৩৮)বিশ্বের সবচেয়ে বড় মিথানল উৎপাদন কারখানা উদ্বোধন করল ইরান (৪৪৬৯)আয়া সোফিয়ায় জুমার নমাজ শেষে যা বললেন এরদোগান (৪০৭৩)সাগরের ইলিশে সয়লাব খুলনার বাজার (৪০৬৫)