০৯ আগস্ট ২০২২
`

কওমি মাদরাসা নিয়ে ফখরুল ইমাম এমপির বক্তব্যের প্রতিবাদ শিবিরের

-

জাতীয় সংসদে কওমি মাদরাসা ও মহিলা মাদরাসা নিয়ে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ফখরুল ইমামের নোংরা ইঙ্গিতপূর্ণ বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির। গতকাল শুক্রবার এক যৌথ প্রতিবাদ বার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি হাফেজ রাশেদুল ইসলাম ও সেক্রেটারি জেনারেল রাজিবুর রহমান বলেন, কওমি মাদরাসা ও মহিলা মাদরাসা নিয়ে গণধিকৃত ভোটারবিহীন এমপি ফখরুল ইমামের বক্তব্য চরম ধৃষ্টতাপূর্ণ ও ইসলাম অবমাননার শামিল।
তিনি বলেছেন, মাদরাসার ছাত্ররা ভোর ৪টার সময় উঠে সকাল ৯টা পর্যন্ত কী পড়ে তা নিয়ে সন্দিহান। সেখানে সিলেবাস ছাড়া অন্য কিছু পড়ানো হয়। অন্যদিকে মহিলা মাদরাসাকে ভয়াবহ হিসেবে উল্লেখ ও ফরজ বিধান পর্দাকে কটাক্ষ করে তিনি বলেছেন, সেখানে গার্হস্থ্য বিজ্ঞান বা সংসার কিভাবে করতে হয়, তা না শিখিয়ে অন্য কিছু শেখানো হয়। এমপি ফখরুল ইমামের এ বক্তব্যের মাধ্যমে তার অজ্ঞতা, ইসলাম বিদ্বেষ, নিম্ন রুচিবোধ ও ব্যক্তিত্বহীনতারই বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। বিবৃতিতে নেতারা বলেন, মাদরাসার ছাত্ররা ফজরের নামাজ যথাসময়ে আদায়, হাফেজ হওয়ার জন্য পবিত্র কুরআন মুখস্থ ও একাডেমিক পড়া সম্পন্ন করার জন্য ভোরে উঠে যা সবারই জানা। শুধু মাদরাসা শিক্ষার্থী নয়, বরং সব শিক্ষার্থীর জন্যই পড়াশুনার জন্য এ সময়টা সবচেয়ে উপযুক্ত তা বৈজ্ঞানিকভাবে স্বীকৃত। সব শিক্ষক পড়াশুনার জন্য ভোর বেলাকেই উত্তম সময় বলে পরামর্শ দেন।
অন্যদিকে পর্দা ইসলামের ফরজ বিধান এবং মহিলা মাদরাসার শিক্ষার্থীরা তা শতভাগ মেনে চলার চেষ্টা করে। একজন মুসলমান হয়েও ফরজ বিধানকে কটাক্ষ ও কোমলমতি শিক্ষার্থীদের নিয়ে ইঙ্গিতপূর্ণ বক্তব্য তার অসভ্যতা, কাণ্ডজ্ঞানহীন, বিকৃত মনোভাবেরই বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। তার এ বক্তব্য অগ্রহণযোগ্য এবং তার দলীয় সংসদ সদস্যই এ বক্তব্য সংসদে প্রত্যাখ্যান করেছেন। আমরা এ গর্হিত বক্তব্য ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি ও নিন্দা জানাচ্ছি।
নেতারা বলেন, কওমি মাদরাসাসহ সব মাদরাসায় ইসলামের খুঁটিনাটি বিষয়সহ সার্বিক শিক্ষা দিয়ে সুনাগরিক তৈরি করা হয়। মাদরাসা শিক্ষিতরা দেশ-জাতি ও স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের অতন্দ্র প্রহরী। দেশ ও ইসলাম প্রেম, নৈতিক শিক্ষা, অপরাধবিমুখ ও কাক্সিক্ষত সন্তান এবং সুনাগরিক গঠনে মাদরাসা শিক্ষিতরাই এগিয়ে। অথচ ফখরুল ইমামের মতো একশ্রেণীর জ্ঞানপাপী কওমি মাদরাসা ও মাদরাসাপড়ুয়াদের বিরুদ্ধে অব্যাহতভাবে বিষোদগার করে যাচ্ছেন।
নেতারা বলেন, তার আপত্তিকর বক্তব্য শুধু দুঃখজনক নয়, বরং এ বক্তব্য গোটা জাতিকে দারুণভাবে বিক্ষুব্ধ করেছে। অবিলম্বে তার এ বক্তব্য প্রত্যাহার করে জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায় তার মতো ইসলাম বিদ্বেষী জ্ঞানপাপীদের কিভাবে উপযুক্ত জবাব দিতে হয় তা এ দেশের ইসলামপ্রিয় ছাত্রজনতার ভালোভাবেই জানা আছে। বিজ্ঞপ্তি।

 


আরো সংবাদ


premium cement