০২ আগস্ট ২০২১
`

অর্থপাচার মামলায় এনু-রুপনের জামিন আবেদন শুনানির রায় ১৪ জুলাই

-

ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার হওয়া গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃক সহসভাপতি এনামুল হক এনু ও তার ভাই সাবেক যুগ্ম সম্পাদক রুপন ভূঁইয়াকে অর্থপাচারের অভিযোগে মামলায় জামিন আবেদনের ওপর আগামী ১৪ জুলাই রায় দেবেন হাইকোর্ট। গতকাল বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো: মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ শুনানি শেষে রায়ের দিন ধার্য করেন।
এনু ও রুপনের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট শাহরিয়ার কবির বিপ্লব। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান।
ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে ২০১৯ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর গেন্ডারিয়ায় এনু-রুপনের বাড়িতে অভিযান চালায় র্যাব। তাদের বাসায় টয়লেটে স্বর্ণের কমোট পাওয়া যায়। সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার জব্দ করা হয়। এরপর ওয়ান্ডারার্স ক্লাবের কর্মচারী আবুল কালাম ও এনুর বন্ধু হারুন অর রশিদের বাসায় অভিযান চালানো হয়। ওই অভিযানে পাঁচ কোটি পাঁচ লাখ টাকা, আট কেজি স্বর্ণালঙ্কার ও ছয়টি আগ্নেয়াস্ত্র জব্দ করে র্যাব। এরই ধারাবাহিকতায় গত বছর ১৩ জানুয়ারি এনু ও রুপনকে গ্রেফতার করা হয়। সেই থেকে তারা কারাবন্দী।
এরপর ২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর জ্ঞাতবহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দু’জনের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা করে দুদক। তদন্ত শেষে দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে ৮৫ কোটি টাকার জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পৃথক দু’টি অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে। এনুর বিরুদ্ধে ৪৭ কোটি ৩৬ লাখ ৯১ হাজার ৬৭৮ টাকার জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ ও তার ভাই রুপন ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে ৩৭ কোটি ৫৭ লাখ ১৬ হাজার টাকার জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়েছে।



আরো সংবাদ