১৩ মে ২০২১
`

টঙ্গীতে চাঁদাবাজির অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতাসহ ৪ জনের নামে মামলা : গ্রেফতার ১

-

টঙ্গীতে পরিবহনে চাঁদাবাজির অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতাসহ চারজনের নামে থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ পরিবহন স্ট্যান্ড এলাকা থেকে হাতেনাতে একজনকে গ্রেফতার করেছে। নরসিংদী জেলার একজন সিএনজি চালক জিএমপির টঙ্গী পূর্ব থানায় চাঁদাবাজির অভিযোগে গত রোববার মামলাটি দায়ের করেন।
মামলার বাদি সাইফুল ইসলাম নাহিদ জানান, তিনি নরসিংদী জেলার শিবপুর থেকে গত রোববার সকালে তাবলিগ জামাতের মুসল্লি নিয়ে টঙ্গী ইজতেমা ময়দানে আসেন। সকাল সাড়ে ৮টায় ইজতেমা ময়দান থেকে বাড়ি ফেরার পথে টঙ্গী-কালীগঞ্জ-নরসিংদী সড়কের স্থানীয় স্টেশন রোড এলাকায় সানোফি ওষুধ কারখানার সামনে পৌঁছলে কয়েকজন যুবক তার গতিরোধ করে ৩০০ টাকা চাঁদা দাবি করে। তিনি চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় যুবকরা জোরপূর্বক তার গাড়ির চাবি ছিনিয়ে নেয়। অবশেষে তিনি ৩০০ টাকা চাঁদা দিয়ে চাবি ফেরত নেন এবং কাছেই রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে পুলিশের জরুরি সেবায় (৯৯৯) ফোন করে অভিযোগ জানান। এতে কিছুক্ষণের মধ্যেই টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উজ্জ্বল হোসেন (৩১) নামের এক চাঁদাবাজকে হাতেনাতে আটক করে। এ সময় তার সহযোগী অন্য চাঁদাবাজরা পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়া দুই সহযোগীর নাম মাহবুব ও লেংড়া রবু এবং তাদের বস স্থানীয় ৫৫ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি দ্বীন মোহাম্মদ বলে উজ্জ্বল পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে জানায়। গ্রেফতার উজ্জ্বলের বাড়ি শেরপুর জেলার শ্রীবর্দী থানার ঘারাসারা গ্রামে এবং সে জিএমপির গাছা থানার পাশে মতিউর রহমানের বাড়িতে ভাড়া থাকে।
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে ছাত্রলীগ নেতা দ্বীন মোহাম্মদ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘পরিবহনে চাঁদাবাজি তো দূরের কথা আমার বিরুদ্ধে অন্য কোনো অভিযোগ থাকলেও যেকোনো শাস্তি মাথা পেতে নেবো।’ তিনি বলেন, ‘ছাত্রলীগের আসন্ন কমিটিতে স্থান পাওয়ার প্রতিযোগিতায় আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র আছে। তাই পরিকল্পিতভাবে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিকে দিয়ে আমার নাম বলানো হয়েছে অথবা কেউ সুকৌশলে এজাহারে আমার নাম জুড়ে দিয়েছে।’

 



আরো সংবাদ