১৯ এপ্রিল ২০২১
`

২৫ বছর পরেও বগুড়ার আকাশে বিমান উড়েনি

-

বিমান বন্দরের নির্মাণকাজ শুরুর ২৫ বছর পরেও বগুড়ার আকাশে বিমান উড়ছে না। কবে উড়বে তাও কেউ জানে না। তবে বগুড়াবাসীর প্রত্যাশা পূর্ণাঙ্গ বিমানবন্দর চালু হলে উত্তর জনপদের প্রবেশদ্বার বগুড়ার সাথে সারা দেশের আকাশ পথের যোগাযোগ আরো একধাপ এগিয়ে যাবে।
জানা গেছে, ১৯৯১-১৯৯৬ সাল পর্যন্ত বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বাধীন তৎকালীন বিএনপি সরকার বগুড়াকে মডেল জেলায় পরিণত করার প্রকল্প হাতে নেয়। তারই অংশ হিসেবে বগুড়া সদর উপজেলার বগুড়া-নওগাঁ মহাসড়কের এরুলিয়া নামকস্থানে বগুড়া স্টল বিমানবন্দর নির্মাণ প্রকল্প একনেক সভায় অনুমোদন করা হয়। সেই সময় বগুড়া সদরের এরুলিয়া মৌজায় ১০৯ দশমিক ৮১ একর ভূমি হুকুম দখল করে কাজ শুরু হয়। এ প্রকল্পে প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয় ২২ কোটি টাকা। প্রকল্প বাস্তবায়নে ১৯৯৫ সালে জমি কিনতে ব্যয় ধরা হয় ২৮ লাখ টাকা। প্রকল্পে ছিল ৫ হাজার ফুট দৈর্ঘ্য ও ৬০০ ফুট প্রস্থ রানওয়ে নির্মাণ, অফিস ভবন নির্মাণ, মূল গ্রাউন্ড নির্মাণ, কর্মকর্তাদের আবাসিক ভবন নির্মাণ, বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থা। বিএনপি সরকারের শেষ সময়ে ১৯৯৬ সালের প্রথমে নির্মাণ কাজ শুরু হয় এবং ২০০০ সালে প্রকল্প বাস্তবায়নের আশা করা হয়। কিন্তু প্রয়োজনীয় বরাদ্দ না থাকায় নির্মাণকাজ শেষ হয়নি। তাই বগুড়াবাসীর কাক্সিক্ষত সেই বিমানবন্দর আর চালু হয়নি। শেষ পর্যন্ত বাণিজ্যিকভাবে লোকসানের আশঙ্কায় সরকারিভাবে বিমান সার্ভিস চালু করা হয়নি। সম্প্রতি বগুড়া বিমান বন্দর চালুর দাবি জোরাল হলে বাংলাদশ বিমানবাহিনী সম্ভাব্যতা যাচাই করে। এরপর এ সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট দেয়া হয় সরকারকে। এরপর সেই রিপোর্টের আর কোনো দৃশ্যত অগ্রগতি দেখা যাচ্ছে না।
বগুড়া জেলা প্রশাসকের ভূমি অধিগ্রহণ শাখা সূত্রে জানা গেছে, বগুড়া বিমান বন্দরের বর্তমান রানওয়ের সাথে আরো তিন হাজার ফুট দৈর্ঘ্য রানওয়ে নির্মাণ, তেলের রিজার্ভার নির্মাণ, যাত্রী ও মালামাল হ্যান্ডলিংসহ অন্যান্য সুবিধার জন্য আরো প্রায় একশত একর জমি দরকার। সরেজমিনে সম্ভাব্যতা যাচাই শেষে সম্প্রতি একটি রিপোর্ট দেয়া হয়েছে। এই ভূমির মধ্যে রয়েছে, ফসলি জমি, ঘরবাড়ি, স্কুল ও মসজিদ। তবে ভূমি অধিগ্রহণের জন্য এখনো কোনো চিঠি পায়নি জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা বলছেন, ভূমি অধিগ্রহণের নির্দেশনা বা অনুমতি পাওয়া গেলে সে বিষয়ে কাজ করা হবে।
বগুড়া জেলা প্রশাসক জিয়াউল হক জানান, বগুড়ায় বিমানবন্দর চালু করার বিষয়ে নতুন কোনো নির্দেশনা জানা নেই। ভূমি অধিগ্রহণের কোনো কার্যক্রম নেই।



আরো সংবাদ