২৭ অক্টোবর ২০২০

অর্থ লোপাটের অভিযোগে পরিবার পরিকল্পনার ২ কর্মকর্তাকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

-

ওয়ার্কশপ, সেমিনার ও প্রশিক্ষণের নামে ভুয়া বিল দেখিয়ে অর্থ লোপাটের অভিযোগে পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের সহকারী পরিচালক এ কে এম রোকনুজ্জামান ও গবেষণা কর্মকর্তা পীযূষ কান্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল দুদকের প্রধান কার্যালয়ে উপপরিচালক সালাহউদ্দিন তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন। এর আগে গত রোববার পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের উপপরিচালক (পিএম) জাকিয়া আখতার ও উপপরিচালক (স্থানীয় সংগ্রহ) আবু তাহের মো: সানাউল্লাহ নূরীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। গত ৩ সেপ্টেম্বর তাদের তলব করে নোটিশ পাঠানো হয়েছিল। এ ছাড়া আজ পরিচালক (আইইএম) ড. আশরাফুন্নেছাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার কথা রয়েছে। এর আগে দুদকের অনুসন্ধান কর্মকর্তা সুকর্ন ইন্টারন্যাশনালের মালিক ফাইজুল হককে গত ২৬ আগস্ট জিজ্ঞাসাবাদ করে। অভিযোগের বিষয়ে দুদক সূত্রে জানা যায়, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের আইইএম ইউনিটর সারা দেশে ৪৮৬ ওয়ার্কশপ ও সেমিনার আয়োজন করে। ওই কর্মশালায় অধিদফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সম্মানীভাতা ও যাতায়াত বাবদ ভুয়া বিল-ভাউচারের মাধ্যমে সই জাল করে অর্থ উত্তোলন করা হয়েছে। এভাবে প্রায় সাত কোটি টাকা আত্মসাৎ করা হয়। অধিদফতরের আইইএম ইউনিটর ইউএনএফপিএ খাতে বরাদ্দ ছিল (২০১৯ সালে) এক কোটি ২৯ লাখ টাকা। ওই টাকার কোনো কাজ না করেই অগ্রণী ব্যাংক, ওয়াসা ভবন শাখা থেকে তোলা হয়।

দেখুন:

আরো সংবাদ