২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

হামলাকারীদের বিচার ও বৈধ কর্তৃপক্ষের কাছে মুঈনুল ইসলাম মাদরাসার দায়িত্ব হস্তান্তরের দাবি

-

রাজধানী ভাটারার ছোলাইমাদ এলাকার ‘আল-মাদরাসাতু মুঈনুল ইসলাম’ কওমি মাদরাসার ছাত্র-শিক্ষকদের ওপর হামলার সুষ্ঠু বিচার, স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের পক্ষপাতের অভিযোগ এবং বৈধ কর্তৃপক্ষের হাতে মাদরাসার দায়িত্ব হস্তান্তরের দাবি জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা কমিটি ও শিক্ষকবৃন্দ।
গতকাল বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে মাদরাসা পরিচালনার সাথে সংশ্লিষ্টদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেনÑ কাকরাইলের মুরব্বি ও ভিক্টোরিয়া পার্ক জামে মসজিদের খতিব মুফতি আমানুল হক, ইত্তেফাকুল মুসলিমীন বাংলাদেশের মহাসচিব ও ঢাকার গাউছিয়া জামে মসজিদের খতিব মুফতি আব্দুল্লাহ ইয়াহইয়া, আল-মাদরাসাতু মুঈনুল ইসলামের মুহতামিম মাওলানা আতাউল্লাহ, শিক্ষা সচিব মুফতি সলিম উল্লাহ ও প্রতিষ্ঠানটির সাবেক পরিচালক মুফতি আতাউর রহমানের (রহ:) ভাই মুফতি মামুন, হাবিবুল্লাহ রায়হান, মুফতি যোবায়ের গণী, মুফতি আবদুল গাফফার, মুফতি আব্দুল্লাহ ইদরীস প্রমুখ। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন শূরা কমিটির সভাপতি মাওলানা শাহরিয়ার মাহমুদ।
লিখিত বক্তব্যে মাওলানা শাহরিয়ার মাহমুদ বলেন, চারজন প্রতিষ্ঠাতার সমন্বয়ে বেফাকভুক্ত আল-মাদরাসাতু মুঈনুল ইসলাম ১৯৯৭ সালে জসিম উদ্দীন ঢালী কর্তৃক দানকৃত ভাটারার ছোলাইমাদে টেক-ঢালিবাড়ির ভূমিতে স্থায়ীভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়ে শিক্ষাকার্যক্রম শুরু করে। মসজিদ-মাদরাসার জন্য দানকৃত ভূমির দলিলে সুস্পষ্ট শর্ত রাখা হয়, মাদরাসাটি তাবলিগ জামাতের কাকরাইল ও দিল্লির মুরব্বি ওলামাদের পরামর্শে পরিচালিত হবে। তিনি বলেন, মাদরাসা মুঈনুল ইসলামের প্রাক্তন প্রিন্সিপাল মুফতি আতাউর রহমান ২০১৮ সালে দুর্ভাগ্যক্রমে মাদরাসার শিক্ষক-ছাত্রদের নীতি-আদর্শ ও ইচ্ছার বিপরীতে সাদ গ্রুপের পক্ষে অবস্থান নেন। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ১৮-২০ জন উস্তাদ মাদরাসা ত্যাগ করেন। এ ছাড়া মাদরাসার ৬০০ ছাত্রের মধ্যে পাঁচ শতাধিক ছাত্র অন্য মাদরাসায় চলে যায়। এতে মাদরাসার শিক্ষাকার্যক্রমে মারাত্মক বিঘœ ঘটে।
মাওলানা শাহরিয়ার বলেন, গত ১১ মে মুফতি আতাউর রহমান ইন্তেকাল করেন। এর পর আস্তে আস্তে শিক্ষক ও ছাত্ররা মাদরাসায় ফিরে আসতে শুরু করে। জমিদাতা আফতাব উদ্দিন ঢালীর সভাপতিত্বে গত ২৭ মে এক সাধারণ সভায় মাদরাসার নতুন শূরা কমিটি গঠন করা হয়। শূরা কমিটিতে মাদরাসা প্রতিষ্ঠাতাদের জীবিত সবাই এবং বেফাকের মুরব্বিরাও অন্তর্ভুক্ত হন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, মাদরাসাটি যখন আবার তার হৃত ভাবমর্যাদা ফিরে পাওয়ার দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল, তখনই মাদরাসার প্রাক্তন প্রিন্সিপাল আতাউর রহমানের শ্বশুর আব্দুর রাজ্জাক ও তার কয়েকজন সাদপন্থী সহযোগীর ষড়যন্ত্র ও আক্রমণের শিকার হয়।

তারা দাবি করেন, যেহেতু মুফতি আতাউর রহমান ইন্তেকালের আগে সাদ মতবাদ ও আদর্শে চলেছেন, সুতরাং তার ইন্তেকালের পরেও সাদ অনুসারীরাই মাদরাসা চালাবে।
মাওলানা শাহরিয়ার বলেন, এ অবস্থায় গত ৭ জুন মিরপুরের মিজানের নেতৃত্বে মাদরাসা মুঈনুল ইসলামে প্রথম হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জিডি করার পরও রহস্যজনক কারণে স্থানীয় ভাটারা থানার ওসি হামলাকারীদের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেননি। গত ১ আগস্ট কোরবানির ঈদের দিন রাত্রে মাদরাসার সাবেক প্রিন্সিপাল আতাউর রহমানের শ্বশুর আব্দুর রাজ্জাক, মাদরাসার হিসাব রক্ষক আব্দুল আহাদ ও ইঞ্জিনিয়ার রফিকের সহায়তায় মাদরাসা মুঈনুল ইসলামের মসজিদে বিভিন্ন এলাকা থেকে সাদপন্থীদের শতাধিক সদস্য জড়ো হয়। পরিস্থিতির প্রতিকূলতা আঁঁচ করে রাত ১১টায় মাদরাসার শিক্ষা সচিব মুফতি সেলিম ভাটারা থানার ওসিকে আশঙ্কার কথা ফোনে জানালেও তিনি কোনো পদক্ষেপ না নিয়ে নিশ্চিন্ত থাকতে বলেন।
এ অবস্থায় সংবাদ সম্মেলনে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মাদরাসার মসজিদকে আজান ও নামাজের জন্য খুলে দেয়া, অনতিবিলম্বে সাদপন্থী হামলাকারীদের গ্রেফতার ও আইনের আওতায় আনা, মাদরাসা মুঈনুল ইসলামের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে জড়িত প্রকৃত বৈধ কর্তৃপক্ষের কাছে মাদরাসার দায়িত্ব হস্তান্তর করা এবং অনতিবিলম্বে ভাটারার ওসিকে প্রত্যাহার করার দাবি জানানো হয়।


আরো সংবাদ

নওগাঁয় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, হুমকির মুখে আহসানগঞ্জ হাট-সংলগ্ন ব্রিজ স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড দেশে করোনায় আরো ২৬ জনের মৃত্যু স্লোভেনিয়ায় বাংলাদেশীসহ ১১৩ অভিবাসী আটক ওমানে বাংলাদেশ স্কুল মাস্কাটের জন্য স্বস্তির খবর মাস্ক কেলেঙ্কারি : জেএমআই চেয়ারম্যান গ্রেফতার জাহালমকে ক্ষতিপূরণ প্রশ্নে রুলের রায় বুধবার রাজনীতিতে চরম দুঃসময় চলছে বিএনপি’র : কাদের আর্মেনিয়ান রেজিমেন্ট ধ্বংস করলো আজারবাইজান, শীর্ষ কমান্ডারের মৃত্যু ‘সরকারের লোকজনের কয়েকটা মাস্ক পরা দরকার কারণ তারা অনেক ভাইরাসে আক্রান্ত’ ওয়াটার স্কিয়িংয়ে বিশ্বরেকর্ড, ভাইরাল ৬ মাসের শিশু(ভিডিও)

সকল

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত মন্ত্রণালয়ের (১২৯৪২)ড. কামাল ও আসিফ নজরুল ঢাবি এলাকায় অবা‌ঞ্ছিত : সন‌জিত (১১৭২৪)‘সনজিতকে ক্যাম্পাসে দেখতে চায় না ঢাবি শিক্ষার্থীরা’ (১০৩২০)এমসি কলেজে গণধর্ষণ : সাইফুরের যত অপকর্ম (৯০২০)আজারবাইজান ৬টি গ্রাম আর্মেনিয়ার দখল মুক্ত করেছে (৮৩৪১)নতুন বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সামনে আনলো ইরান (৫৭১১)যে কারণে এই শীতেই ভারত-চীন মারাত্মক যুদ্ধের আশঙ্কা রয়েছে (৫৬৫০)অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের জানাজা অনুষ্ঠিত (৫২২৯)আজারবাইজান-আর্মেনিয়ার মধ্যে সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৯ (৫১৬৭)ছাত্রলীগের ঢাবি সভাপতি বক্তব্য স্পষ্টত সন্ত্রাসবাদের বহিঃপ্রকাশ (৫১৫০)