২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

টাঙ্গাইলে আ’লীগ নেতা নিক্সন হত্যা মামলায় আরো ৩ আসামির স্বীকারোক্তি

-

টাঙ্গাইলের গোপালপুরের আওয়ামী লীগ নেতা ও কলেজশিক্ষক আমিনুল ইসলাম তালুকদার নিক্সন হত্যা মামলায় আরো তিন আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন। তারা হলেনÑ গোপালপুরের আজগড়া এলাকার সুজন, ফারুক ও সবুজ। শুক্রবার বিকেলে তারা হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দেন। এর আগে চাঞ্চল্যকর এই মামলার প্রধান আসামি ছাত্রলীগকর্মী সুমন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেন।
ধনবাড়ি থানার ওসি চান মিয়া বলেন, চার দিনের রিমান্ড শেষে শুক্রবার সুজন ও ফারুককে আদালতে তোলা হলে তারা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে দোষ স্বীকার করে জবানবন্দী দেন। অপর আসামি সবুজকেও তাদের সাথে আদালতে তোলা হলে তিনিও স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিতে রাজি হন। সবুজকে বৃহস্পতিবার গোপালপুরের সীমান্ত এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এজাহারে তার নাম নেই। তবে অন্য আসামিদের জবানবন্দীতে নাম আসে তার।
ওসি জানান, চাঞ্চল্যকর এই হত্যা মামলায় এখন পর্যন্ত চারজন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সবাই আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন। এর আগে গত ৪ আগস্ট এই মামলার প্রধান আসামি সুমন আদালতে নিজের দোষ স্বীকার করে জবানবন্দী দেন। তখন রাজনৈতিক বিরোধের জের ধরেই নিক্সনকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে বলে স্বীকারোক্তিতে সুমন উল্লেখ করেন। অন্য আসামিরাও চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন বলে ওসি জানান।
ঈদের আগের দিন রাতে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে নির্মমভাবে খুন হন নিক্সন। তার বাড়ি গোপালপুরের হাদিরা ইউনিয়নের আজগড়া গ্রামে। ওই দিন রাতে গ্রামের বাড়ি থেকে ধনবাড়ির বাসায় ফেরায় পথে তিনি হত্যাকাণ্ডের শিকার হন। পরে তার ভাই আব্দুল্লাহ আল মামুন বাদি হয়ে পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে ধনবাড়ি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।


আরো সংবাদ

মার্চে নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে বাংলাদেশ সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর ব্যাপারে সৌদি অভিযোগ পুরোপুরি মিথ্যা : ইরান ভোলায় স্ত্রী ও সন্তানকে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড মিয়ানমার ও পাকিস্তান থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু ৩ বছরেও সুরাহা হয়নি শিশু তাহারাত হত্যারহস্যের এমসি কলেজে নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে জামায়াতের বিক্ষোভ সমাবেশ অপহৃত ২ বছরের শিশু ৩ দিন পর উদ্ধার এমসি কলেজে ধর্ষণ: শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি গঠন মায়ের বুকের দুধই পারে করোনা সংক্রমণ থেকে শিশুদের রক্ষা করতে : গবেষণা প্রবাসী স্ত্রীকে ভিডিও কলে রেখে স্বামীর আত্মহত্যা ‘তুরস্ককে আবার আর্মেনীয়দের ওপর গণহত্যা চালাতে দেয়া হবে না’

সকল

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত মন্ত্রণালয়ের (১২৯৪২)ড. কামাল ও আসিফ নজরুল ঢাবি এলাকায় অবা‌ঞ্ছিত : সন‌জিত (১১৭২৪)‘সনজিতকে ক্যাম্পাসে দেখতে চায় না ঢাবি শিক্ষার্থীরা’ (১০৩২০)এমসি কলেজে গণধর্ষণ : সাইফুরের যত অপকর্ম (৯০২০)আজারবাইজান ৬টি গ্রাম আর্মেনিয়ার দখল মুক্ত করেছে (৮৩৪১)নতুন বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সামনে আনলো ইরান (৫৭১১)যে কারণে এই শীতেই ভারত-চীন মারাত্মক যুদ্ধের আশঙ্কা রয়েছে (৫৬৫০)অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের জানাজা অনুষ্ঠিত (৫২২৯)আজারবাইজান-আর্মেনিয়ার মধ্যে সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৯ (৫১৬৭)ছাত্রলীগের ঢাবি সভাপতি বক্তব্য স্পষ্টত সন্ত্রাসবাদের বহিঃপ্রকাশ (৫১৫০)