০৭ জুলাই ২০২০

কেরানীগঞ্জে চাঁদাবাজির সময় যুবলীগ নেতা আটক

-

ঢাকার কেরানীগঞ্জে ট্রাক ও পরিবহনে চাঁদাবাজির অভিযোগে গতকাল শুক্রবার বিকেলে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা যুবলীগের ক্রীড়া সম্পাদক মো: ফরিদ আলী ওরফে ট্রাক ফরিদকে আটক করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ফরিদ দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: রমজান আলী মেম্বারের বড় ভাই।
পুলিশ জানায়, যুবলীগ নেতা ফরিদ জিনজিরা ইউনিয়নের বন্দ ডাকপাড়া এলাকায় অবৈধ ট্রাক স্ট্যান্ড দিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে চাঁদাবাজি করে আসছে। প্রতিদিন হাজার হাজার টাকা চাঁদা তুলে ফরিদ আলী। দিন ও রাতে দুই সিফটে ঢাকা-দোহার সড়কে পরিবহন ও ট্রাক থেকে প্রতিদিন প্রায় অর্ধ লাখ টাকা চাঁদা আদায় করে।
গতকাল বিকেলে ট্রাকে চাঁদাবাজি করার সময় ফরিদ আলীকে আটক করে পুলিশ। স্থানীয়রা জানান, ফরিদ আলী ওরফে ফরিদের বাসা জিনজিরা ইউনিয়নের বন্দডাকপাড়া এলাকায়। সে জিনজিরা ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ছিল। বিএনপি সরকারের পতনের পর ফরিদ তার ছোট ভাই রমজান আলীর সাথে আওয়ামী লীগের মিছিল মিটিংয়ে অংশ নিত। ছোট ভাইয়ের ক্ষমতার দাপটে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা যুবলীগের ক্রীড়া সম্পাদক পদ বাগিয়ে নেয়। বন্দ ডাকপাড়া এলাকায় অবৈধ ট্রাক স্ট্যান্ড দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার টাকা চাঁদা আদায় শুরু করে। চাঁদার টাকা দিয়ে দুই ভাই তৈরী করেছে একাধিক ভবন। এ ব্যাপারে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক রমজান আলী মেম্বার বলেন, জায়গা ভাড়া নিয়ে ট্রাক স্ট্যান্ড দিয়ে টাকা তোলা কি অন্যায়। দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ শাহজামান বলেন, ফরিদ পেশাদার চাঁদাবাজ। তার বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ আছে। তার বিরুদ্ধে থানায় চাঁদাবাজি মামলা হয়েছে।


আরো সংবাদ