০৭ জুলাই ২০২০

পবিত্র শবেকদর উপলক্ষে জৈনপুরী পীরের আহ্বান

-

পবিত্র লাইলাতুল কদরের মর্যাদা উল্লেখ করে মোহাম্মাদপুরস্থ আদর্শ ইসলামী মিশন মহিলা কামিল এমএ মাদ্রাসা ও রাহমানিয়া জৈনপুরী খানকা শরিফ কমপ্লেক্সের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং মাদরাসার সাবেক প্রিন্সিপাল আল্লামা সৈয়দ মাহবুবুর রহমান জৈনপুরী পীর বলেন, পবিত্র কুরআন শরিফের সূরা কদর এবং বোখারি ও মুসলিম শরিফের হাদিস অনুযায়ী পরিষ্কার বুঝা যায়, যারা লাইলাতুল কদর বা কদরের রাত্রিতে একাগ্রচিত্তে এবাদত করবে, আল্লাহতায়ালা তার আমলনামায় হাজার মাসের রাত্রি বা ৮৪ বছরের উত্তম ও বেশি নেকি দিবেন। কদর শব্দের বহু অর্থ রয়েছে, তার মধ্যে অতি সংক্ষেপে বলা হয়, ১) কদর অর্থ মর্যাদা অর্থাৎ এক রাতের এবাদতকারীকে আল্লাহতায়ালা হাজার মাসের এবাদতের চেয়ে বেশি মর্যাদা দান করবেন। ২) কদর অর্থ বণ্টন ও নিরূপণ। অর্থাৎ শবেবরাতের রাত্রিতে যা বরাদ্দ হয়েছিল, (হায়াত, মউত, রিজিক, ইত্যাদি) তা কদরের রাত্রিতে বণ্টন ও নিরূপণ করা হবে। ৩) কদর অর্থ সঙ্কীর্ণ, অর্থাৎ এই রাত্রিতে হজরত জিবরাঈল আ:সহ এত বেশি পরিমাণে ফেরেশতা আসমান থেকে জমিনে অবতীর্ণ হন যে, তাদের জন্য এই জমিন সঙ্কীর্ণ হয়ে যায়। এমনকি, তারা কদম রাখার ঠাঁই ও পান না। সন্ধ্যা থেকে ফজর উদয় হওয়া পর্যন্ত অনাবিল শান্তি বর্ষণ হতে থাকে।
প্রকাশ থাকে যে, ওই মাদরাসায়, যারা এবতেদায়ি প্রথম শ্রেণী থেকে কামিল পর্যন্ত ছাত্রী ভর্তি করাবে, তাদের থাকা খাওয়া ফ্রি এবং হাফ ফ্রি করে দেয়া হবে ইনশাল্লাহ। বিজ্ঞপ্তি।


আরো সংবাদ