১৫ আগস্ট ২০২০

শিশু হাসপাতালে উৎসর্গ ফাউন্ডেশনের ৪০০ বোতল হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ

-
24tkt

ঢাকা শিশু হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা: সৈয়দ সফি আহমেদ বলেছেন, করোনা সংক্রমণ প্রতিষেধক হিসেবে যে পিপিই দেয়া হয়েছে তা এখন পর্যন্ত চলবে। তবে মিস ইউজ বা বেশি ব্যবহার হলে ঘাটতি পড়তে পারে।
গতকাল বুধবার সকালে উৎসর্গ ফাউন্ডেশন শিশু হাসপাতালে তাদের তৈরি স্যানিটাইজার দেয়ার সময় পরিচালক এ কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ডা: বেগম রোকেয়া সুলতানা, হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা: কামরুজ্জামান কামরুল, উৎসর্গ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস প্রমুখ। ডা: রোকেয়া সুলতানা বলেন, করোনা প্রতিরোধে আমরা অনেকেই স্যানিটাইজার ব্যবহার করি। তবে একাধারে তিন-চারবার ব্যবহারের পর সাবান দিয়ে হাত ধোয়া উচিত। কারণ এসব পদার্থ বারবার হাতে লাগানোর পর তা ধুয়ে না নিলে জীবাণু তৈরি হতে পারে।
ডা: কামরুল বলেন, করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে হাত পরিষ্কার রাখা বিশেষ ভূমিকা রাখে। কারণ আমরা নিজের অজান্তেই নাকে, চোখে মুখে হাত দিয়ে থাকি। আর এভাবেই করোনা শরীরে প্রবেশ করে। এমন একটি সময়ে শিশু হাসপাতালে চিকিৎসায় নিয়োজিতদের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার অনুদান দেয়ায় উৎসর্গ ফাউন্ডেশনের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ।
ইমরুল কায়েস বলেন, মানবিক দিক বিবেচনা করেই ফাউন্ডেশন এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। শিশু হাসপাতালে ৪০০ বোতল স্যানিটাইজার দেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে ঢাকার বাইরেও তাদের নিজেদের তৈরিকৃত এই স্যানিটাইজার বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে।


আরো সংবাদ