১১ এপ্রিল ২০২০
বাস লঞ্চ বন্ধ

তিন গুণ বেশি ভাড়ায় ট্রাকে করে গন্তব্যে ছুটছে মানুষ

-

করোনা সংক্রমণ এড়াতে লঞ্চ ও বাসের পর বরিশালে এবার থ্রি হুইলারসহ সব ধরনের যান্ত্রিক যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। কিন্তু নির্দেশ উপেক্ষা করে মিনি ট্রাক, মালবাহী ড্রাম ট্রাকে করে প্রায় তিন গুণ বেশি ভাড়া দিয়ে ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলা থেকে বরিশালে ফিরছেন কয়েক হাজার নারী ও পুরুষ।
বুধবার সকাল থেকে কিছুসংখ্যক রিকশা নগরী ঘুরে বেড়ালেও আগের চেয়ে ভাড়া কয়েক গুণ বেশি নেয়া হচ্ছে। এতে বিপাকে পড়েছেন হাজার হাজার মানুষ। তারা পায়ে হেঁটে দীর্ঘ পথ যাত্রা করে গন্তব্যে যাচ্ছেন। এ দিকে সরকার সবাইকে নিজ নিজ বাসায় থাকার নির্দেশ দিলেও বুধবার অফিস-আদালত, ব্যাংক-বীমা ছিল খোলা। তাই অফিসের এবং ব্যক্তিগত জরুরি প্রয়োজনে ঝুঁকি নিয়েই বাইরে বের হয়েছেন সাধারণ মানুষ।
বরিশাল থেকে স্থানীয় এবং দূরপাল্লার লঞ্চ বাস বন্ধ করে দেয়া হলেও বুধবার ঢাকা থেকে বরিশাল এসেছেন কয়েক হাজার যাত্রী। ঢাকা থেকে বরিশালে ফেরা একাধিক যাত্রী বলেন, মাওয়া ঘাটে কোন যানবাহন নেই, সবকিছুই বন্ধ এ অজুহাতে ২৭০ টাকার ভাড়ার স্থলে মিনি ট্রাকে প্রতিটি যাত্রীর কাছ থেকে সাত শ’ টাকা করে ভাড়া নেয়া হয়েছে।
নগরীর একাধিক ব্যবসায়ী জানান, ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে নিরাপদে বাসায়ও থাকতে পারছি না। কয়েকদিন পূর্বে প্রকাশ্যে দিনের বেলায় নগরীর কাঠপট্টি রোডের একটি জুয়েলার্সের তালা কেটে প্রায় এক শ’ ভরি স্বর্ণ চুরির ঘটনা ঘটেছে। তাই ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের খোঁজখবর নিতে তাদের বাসা থেকে বের হতে হচ্ছে। ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তার জন্য পুলিশের টহল জোরদারের দাবি জানান।
বরিশাল জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমান বলেন, করোনা সংক্রমণ এড়াতে সরকার সাধারণ মানুষকে নিজ নিজ বাসায় থাকতে বলেছেন। এরপরও অনেক মানুষ অপ্রয়োজনে বাইরে ঘোরাফেরা করছেন। তাদের আইন প্রয়োগ করে ঘরে থাকতে বাধ্য করা হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। সরকারের কার্যক্রম বাস্তবায়নে বুধবার বিকেল থেকে বরিশালে সেনাবাহিনীর টহল শুরু হয়েছে।

 


আরো সংবাদ