০৬ এপ্রিল ২০২০

কেরানীগঞ্জে কালেক্টরেট সহকারী কর্মচারীদের ৩ দিনব্যাপী কর্মবিরতি

-

ঢাকার কেরানীগঞ্জে তিন দিনব্যাপী পূর্ণদিবস কর্মবিরতী পালন করছে কালেক্টরেট সহকারী কর্মচারীরা। গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে উপজেলার ইউএনও অফিস ও উপজেলা ভূমি অফিসে কর্মরত কালেক্টরেট সহকারী কর্মচারীরা এ কর্মবিরতি শুরু করেছে। কর্মবিরতি চলবে আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। বাংলাদেশ কালেক্টরেট সমিতির (বাকাসস) কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির নির্দেশে দাবি আদায়ের উদ্দেশ্যে সারা দেশের সাথে একযোগে এ কর্মবিরতি পালন করা হয়। কর্মবিরতি পালন করে উপজেলা ভূমি অফিসের সামনে ইউএনও অফিস ও উপজেলা ভূমি অফিসে কর্মরত কালেক্টরেট সহকারী কর্মচারীরা এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভার আয়োজন করে।
আলোচনা সভায় বক্তার বলেন, দেশের বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয়গুলোতে কর্মরত কর্মচারীরা দীর্ঘ কর্মজীবন শেষ করে কোনো পদোন্নতি ছাড়াই অবসরে যাচ্ছেন। অথচ এসব দফতরের কর্মচারীদের বঞ্চিত রেখে অপরিকল্পিত ও পক্ষপাতমূলকভাবে সরকারের অন্যান্য দফতরের কর্মচারীদের পদবি ও বেতন গ্রেড উন্নিত করা হয়েছে। মাঠ প্রশাসনের কর্মচারীদের পদোন্নতির কোনো ব্যবস্থা না হলেও বিভিন্ন সময়ে অন্যান্য ২২ দফতরের সমপদের কর্মচারীর পদবি ও বেতন গ্রেড পরিবর্তন করেছে সরকার। ২০১১ সালে আমাদের দাবি বাস্তবাায়নের সার সংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুমোদন করেন ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রশাসনিক উন্নয়নসংক্রন্ত সচিব কমিটিকে দাবি বাস্তবায়নের নির্দেশনা প্রদান করেন। এতে সুপারিশ করে বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস। কিন্তু জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় বিভিন্ন ছল ছুঁতোয় সেই নির্দেশনা বাস্তবায়ন হতে আজো বিরত থেকেছে। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের দাবি দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে অথচ কালেক্টরেট সহকারী কর্মচারীদের কোনো উন্নয়ন হচ্ছে না। আপনি নিজে তদারকি করলে আমাদের দাবি বাস্তবায়নে আর কেউ বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারবে না।
এ সময় বক্তব্য রাখে, ইউএনও অফিসের সহকারী আমান উল্লাহ, মো: মামুন, জীবন, ভূমি অফিসের নাজির মো: মজিরুল হক, রাজিব দত্ত, সহকারী মূসা খান ও মো: মাহবুব প্রমুখ।


আরো সংবাদ