০৩ ডিসেম্বর ২০২০

‘মহাপরিকল্পনায় বদলে যাবে দেশের পর্যটন শিল্পের চিত্র’

-

মহাপরিকল্পনায় বদলে যাবে দেশের পর্যটন শিল্পের চিত্র। ২০২১ সালের ৩০ জুন পর্যটন মহাপরিকল্পনা প্রণয়ন সম্পন্ন হলে বাংলাদেশ পর্যটন শিল্পের নতুন যুগে প্রবেশ করবে। এ খাতে বিনিয়োগ এবং কর্মসংস্থানের ব্যাপক সম্ভাবনার সূচনা হবে। এশিয়ার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ পর্যটন গন্তব্যে পরিণত হবে বাংলাদেশ।
গতকাল রোববার দুপুরে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে পর্যটন মহাপরিকল্পনা প্রণয়ন কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো: মাহবুব আলী এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে বর্তমান সরকার বাংলাদেশকে সব ক্ষেত্রে উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। এই উন্নয়নের ধারার সাথে তাল মিলিয়ে পর্যটনকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড এবং বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনকে পর্যটন উন্নয়ন ও বিকাশে নেতৃত্ব দিতে হবে, তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে হবে। গতানুগতিক কাজ করে পর্যটনের উন্নয়ন করা যাবে না। আমরা চাই দৃশ্যমান পরিবর্তন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো: মহিবুল হক বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশের জিডিপিতে পর্যটনের অবদান মাত্র ২ শতাংশ। আসছে বছরগুলোতে একে ১০ শতাংশে উন্নীত করতে পর্যটন মহাপরিকল্পনা সহায়ক ভূমিকা রাখবে। মহাপরিকল্পনার কাজ শুরু হবে বাংলাদেশের পাহাড়ি এলাকা থেকে।
বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. ভুবন চন্দ্র বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে পর্যটন মহাপরিকল্পনার ওপর আরো বক্তব্য দেন পরামর্শক দলের প্রধান বেঞ্জামিন কেরি ও ডেপুটি টিম লিডার অধ্যাপক নুরুল ইসলাম নাজিম।


আরো সংবাদ

গায়ে বোরকা কানে দুল, নদীতে ভাসছে লাশ করোনা লড়াইয়ে বাংলাদেশের সাথে জাপানের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে : জাপানী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নারীর ক্ষমতা মূল্যায়নে পুরুষের রান্নার প্রতিযোগিতা নয়া দিগন্তে সংবাদ প্রকাশের পর পবিপ্রবিতে বিতর্কিত নিয়োগ কার্যক্রম স্থগিত ঘর থেকে মা ও শিশুকন্যার লাশ উদ্ধার, বাবা পলাতক করোনায় আরো ৩৫ জনের মৃত্যু ভারতে ‘লাভ-জিহাদ’ বিরোধী আইনে প্রথম গ্রেফতার ২০১৯ সালের সেরা চলচ্চিত্র যৌথ ভাবে ‘ন ডরাই ‘ ও ‘ফাগুন হাওয়ায়’ মীমাংসিত বিষয় নিয়ে আপোষ করার কোনো সুযোগ নেই : ভাস্কর্য ইস্যুতে কাদের মাদক মামলায় পাপিয়া দম্পতির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন শুনানি ১২ জানুয়ারি চীনা কোম্পানির জন্য বন্ধ হচ্ছে মার্কিন স্টক এক্সচেঞ্জের দরজা!

সকল

ইসলাম ধর্মের অপব্যাখ্যা : সম্মিলিত ইসলামী জোট সভাপতির বিরুদ্ধে মামলা (১৯৬৩৭)অপশক্তি মোকাবেলা করে ইসলামের বিজয় নিশ্চিত করতে হবে : মামুনুল হক (১৬৯৪৩)ভাস্কর্যের নামে মূর্তি স্থাপন কোনোক্রমে মেনে নেয়া যায় না : সম্মিলিত ইসলামী দলসমূহ (১৪৪৯৩)জাতীয় সঙ্কট নিয়ে ৫ ডিসেম্বর শীর্ষ আলেমদের বৈঠক (১২৪২৯)সৌদি আরবে ইমাম হোসাইন মসজিদটি ভেঙে ফেলার নির্দেশ (১০৭৪৬)বাউল শিল্পী রিতা দেওয়ানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি (৬২৩৭)আইএইএ’র বেশিরভাগ পরিদর্শক সিআইএ’র গুপ্তচর : ইরান (৫৮৯৭)ভাস্কর্য নিয়ে ভুল ব্যাখ্যা বন্ধ করে ক্ষমা না চাইলে জনগণ জবাব দেবে : মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী (৪৫৯৩)৬১ পৌরসভার ভোট ১৬ জানুয়ারী (৩৯০৩)কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে গিয়ে আটক শাহিনবাগের ‘দাদি’ বিলকিস (৩৮৯০)