০৭ জুলাই ২০২০

কুষ্টিয়া জিলা স্কুলে আবরার স্মরণে দোয়া অনুষ্ঠান

-

ফাহাদ কুষ্টিয়া জিলা স্কুল থেকে ২০১৫ সালে এসএসসি পাস করেন। যশোর শিক্ষা বোর্ডের মেধা তালিকায় নাম ছিল ২৬তম। ষষ্ঠ শ্রেণীতে জিলা স্কুলে ভর্তি হওয়ার পর থেকেই সে স্কুলের ফলাফলে প্রতি বছরই উন্নতির দিকে এগিয়ে যায়। সে দশম শ্রেণীর প্রথম স্থান অধিকারী ছিল। ফাহাদের অকাল মৃত্যুতে তার স্কুলের বন্ধুসহ জিলা স্কুলের সাবেক এবং বর্তমান সব শিক্ষার্র্থীই দারুণভাবে মর্মাহত ও শোকাহত হয়েছে। এই মেধাবীকে পৈশাচিকভাবে হত্যার ঘটনাটি প্রতিটি পরিবারের সদস্যদের দারুণভাবে নাড়া দিয়েছে। বন্ধুর মৃত্যুর ঘটনায় সর্বপ্রথম অভিনব প্রতিবাদ জানিয়েছে বন্ধুরা। সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের আয়োজন ছিল কৃতী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের লাশ স্কুল ক্যাম্পাসে এনে সেখানে নামাজে জানাজার আয়োজন করা; কিন্তু জেলা পুলিশের বিশেষ শাখা বিষয়টি জানতে পেরে আয়োজককে নিবৃত করতে সক্ষম হয়। গতকাল বুধবার ফাহাদ হত্যার ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে কুষ্টিয়া শহরে বিক্ষোভ মিছিলের একটি আয়োজন সাংবাদিকদের কানে আসে; সেটি অবশ্য পুলিশের হস্তক্ষেপে ফাহাদের রূহের মাগফিরাত কামনা করে মিলাদ ও দোয়ার আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হয়। বুধবার সকালে কুষ্টিয়া জিলা স্কুল মিলনায়তনে ফাহাদের দোয়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা, স্কুলের প্রধান শিক্ষকসহ সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থী।

 


আরো সংবাদ