২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

ফিরে দেখা ২০২২ সালের বিশ্ব

ফিরে দেখা ২০২২ সালের বিশ্ব -

ইতিহাস তো ইতিহাসই। আর ইতিহাস সবসময়ই ইন্টারেস্টিং। তাই নতুন বছরের শুরুতে দাঁড়িয়ে ২০২২ সালকে শেষবারের মতো একবার চেয়ে দেখা। এ বছর আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে অনেক ঘটনার সাক্ষী থেকেছি আমরা। তার মধ্যে থেকে ২০২২ সালে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে সেরা কয়েকটি ঘটনা তুলে ধরা হলো।

ইউক্রেনে রাশিয়ার বিশেষ অভিযান

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারির ২৪ তারিখ থেকে ইউক্রেনের ওপর পূর্ণাঙ্গ সামরিক হামলা চালাচ্ছে রুশ সেনাবাহিনী। বলার অপেক্ষা রাখে না, বিদায়ী বছরটিতে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সবচেয়ে আলোচিত ঘটনা ছিল ইউক্রেন যুদ্ধ। যুক্তরাষ্ট্র ইউক্রেনকে সামরিক সরঞ্জাম দিয়ে শক্তিশালী করছে- অভিযোগ তুলে রাশিয়া ২৪ ফেব্রুয়ারি দেশটিকে আক্রমণ শুরু করে। এই যুদ্ধ সংক্ষিপ্ত হবে এ ধারণা ভুল প্রমাণ করে বছরের শেষ পর্যন্ত চলে এই যুদ্ধ। বছরের শেষ দিকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন যুদ্ধ দীর্ঘায়িত হওয়ার হুমকি দেন। বিশ্ব অর্থনীতি করোনায় সঙ্কট কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই এ যুদ্ধ শুরু হয়। ফলে অনুন্নত ও উন্নয়ন দেশগুলোতে খাদ্যমূল্য বেড়ে যায়। কারণ ইউক্রেন বিশ্ব অন্যতম গম রফতানিকারক দেশ। যুদ্ধ শুরুর প্রথম দিকে খাদ্য রফতানি একদম বন্ধ হয়ে পড়েছিল। পরে তুরস্কের মধ্যস্থতায় রাশিয়া খাদ্যবাহী জাহাজ চলাচলের অনুমতি দেয়।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে এখন পর্যন্ত উভয় পক্ষের দুই লাখ সৈন্য হতাহত হয়েছেন।

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যু

ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের সিংহাসনে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে আসীন ও বিশ্বের প্রবীণতম রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ মারা যান এ বছরেই। দীর্ঘ অসুস্থতার পর স্কটল্যান্ডের বালমোরাল প্রাসাদে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৬ বছর। গত বছর অক্টোবর থেকেই শরীর ভালো যাচ্ছিল না রানির। ভালোভাবে হাঁটা-চলাও করতে পারছিলেন না। রানির মৃত্যুর পর ক্ষমতা গ্রহণ করেন যুবরাজ চার্লস।

জলবায়ু পরিবর্তন : ‘লস অ্যান্ড ড্যামেজ‘ তহবিল গঠনে ঐতিহাসিক চুক্তি

এ বছর মিশরে জলবায়ু সম্মেলনে বহুল প্রতীক্ষিত প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোকে অর্থ সহায়তা দিতে ‘লস অ্যান্ড ড্যামেজ‘ তহবিল গঠনে একমত হতে পেরেছেন বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা। ধনী এবং উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যে ‘লস অ্যান্ড ড্যামেজ' তহবিল গঠন নিয়ে আলোচনা প্রত্যাশিত সময়ের চেয়েও দীর্ঘ হতে শুরু করে। ১৯ নভেম্বর ঐকমত্যে পৌঁছাতে সক্ষম হয় সম্মেলনে অংশ নেয়া বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা। জলবায়ু পরিবর্তনে গরিব দেশগুলোর ক্ষতিপূরণ নিশ্চিতে এবারের সম্মেলনে ব্যাপক দেন-দরবার চলছিল। শেষ পর্যন্ত স্বাক্ষর হওয়া এই ‘লস অ্যান্ড ড্যামেজ’ চুক্তিতে ধনী দেশগুলো কীভাবে ক্ষতিপূরণ দেবে আর ক্ষতিগ্রস্তরাই বা কীভাবে ক্ষতিপূরণ পাবে তার বিস্তারিত এখনো জানা যায়নি।

টুইটারে মাস্ক যুগের সূচনা

বহু আলোচনার পরে টুইটার কিনে নেন আমেরিকার ধনকুবের ইলন মাস্ক। টুইটারের পুরো শেয়ার কিনতে খরচ পড়ে ৪৪ বিলিয়ন ডলার। শেয়ার কেনার জন্য পুরো টাকাটাই মাস্ক নগদে দেন।

এরপর টুইটারে বিপুল কর্মী ছাটাইসহ একের পর এক বির্তকিত সিদ্ধান্ত নিতে থাকেন। বছরের শেষের দিকে অনলাইন জরিপে সিইও পদ ছেড়ে দেবার জন্য গ্রাহকরা অনুরোধ করেন। এছারাও বিভিন্ন অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়ায় জাতিসংঘ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিন্দার মুখে পড়েন।

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী হলেন ঋষি সুনাক

ইতিহাস সৃষ্টি করে আনুষ্ঠানিকভাবে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ঋষি সুনাক। গত জুলাইয়ে যুক্তরাজ্যের রাজনীতিতে বেশ আলোচিত চরিত্র হয়ে ওঠেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন সরে যাওয়ার পর দলের নেতৃত্ব ও প্রধানমন্ত্রী হন দেশটির সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস। তবে ক্ষমতায় ছিলেন মাত্র ৪৫ দিন। এরপর আবারো দৃশ্যপটে হাজির হয়ে প্রধানমন্ত্রী হন ঋষি সুনাক।

মাশা আমিনির মৃত্যু ও ইরানে বিক্ষোভ

পুলিশের হেফাজতে থাকা অবস্থায় গত ১৬ সেপ্টেম্বর মাশা আমিনি নামে ২২ বছরের এক র্কুদি তরুণীর মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইরানে শুরু হয় হিজাববিরোধী বিক্ষোভ।

মারা যাওয়ার ৩ দিন আগে ভাইয়ের সাথে তেহরানে গিয়ে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন মাশা। তার বিরুদ্ধে পুলিশের অভিযোগ মাশা ঠিকমতো হিজাব পরেননি। মাশার পরিবারের দাবি, গ্রেফতারের সময় পুলিশ মাশার মাথায় তাদের লাঠি দিয়ে একাধিকবার আঘাত করে এবং গাড়ির সাথে মাশার মাথা জোরে ঠুকে দেয়। আর তাতেই অজ্ঞান হয়ে কোমায় চলে যান মাশা। এক পর্যায়ে তার মৃত্যু হয়। মাশার মৃত্যুতে পুরো ইরানে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। আর চার মাসের বেশি সময় ধরে চলা বিক্ষোভে মৃত্যুর সংখ্যা ৩০০ ছাড়িয়ে যায়।

শ্রীলঙ্কায় পটপরিবর্তন

স্বাধীনতা লাভের সাত দশকেরও বেশি সময় পর শ্রীলঙ্কায় শুরু হওয়া অর্থনৈতিক সঙ্কটের জন্য এপ্রিলের শুরু থেকেই প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষের পদত্যাগ দাবিতে বিক্ষোভ শুরু হয়। প্রচণ্ড বিক্ষোভের মুখে এক পর্যায়ে ৭৬ বছর বয়সী প্রধানমন্ত্রী পালিয়ে রাজধানী থেকে অনেক দূরে দেশটির একটি নৌঘাঁটিতে আশ্রয় নেন। পরবর্তীতে মাহিন্দার ভাই প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপক্ষেও জনরোষ থেকে বাঁচতে প্রথমে মালদ্বীপ, সেখান থেকে সিংগাপুর হয়ে থাইল্যান্ডে পালিয়ে যান। তাদের পদত্যাগের মধ্যে দিয়ে শ্রীলঙ্কার রাজনীতি থেকে বিদায় নেয় প্রায় সাত দশক ধরে দেশটির সবচেয়ে প্রভাবশালী একটি পরিবার।

বিশ্বের জনসংখ্যা ৮০০ কোটিতে

বিশ্বের জনসংখ্যা ৮০০ কোটিতে (৮ বিলিয়ন) ছুয়েছে এ বছর। জাতিসঙ্ঘ বলছে, বিশ্বের জনসংখ্যা ৭০০ কোটি থেকে ৮০০ কোটিতে পৌঁছতে ১২ বছর লেগেছে। আগামী ২০৩৮ সালের মধ্যে বিশ্বের জনসংখ্যা ৯০০ কোটিতে পৌঁছবে।

অন্যদিকে জাতিসঙ্ঘ বলছে, আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে বিশ্বের জনসংখ্যা হবে ৮৫০ কোটি এবং ২০৫০ সালে হবে ৯৭০ কোটি।

জাতিসঙ্ঘ বলছে, সামনের কয়েক বছরের মধ্যে বিশ্বের জনসংখ্যায় চোখে পড়ার মতো কিছু পরিবর্তন হবে। যেমন আগামী বছরই ভারতের জনসংখ্যা চীনকে ছাড়িয়ে প্রথম স্থানে উঠে যাবে। তখন ভারতই হবে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি জনসংখ্যার দেশ। বর্তমানে চীনের জনসংখ্যা সবচেয়ে বেশি।

ইমরান খানের প্রধানমন্ত্রীর পদ হারানো ও হত্যাচেষ্টা

পাকিস্তানে অনাস্থা ভোটে ক্ষমতা হারালেও নতুন শক্তি সঞ্চয় করে রাজনীতির মাঠে ফেরেন তেহরিক-ই-ইনসাফ পাকিস্তানের (পিটিআই) প্রধান ইমরান খান। ৯ এপ্রিল তার কোয়ালিশনের পতন ঘটে। এরপর থেকে বলতে গেলে প্রায় পুরোটা বছর তিনি রাজনীতির মাঠ গরম রাখেন। ১১ এপ্রিল দেশটির পার্লামেন্টবিরোধী পিএমএল-এন নেতা শাহবাজ শরিফকে প্রধানমন্ত্রী পদে বসায়।

ইমরান খান বছর জুড়ে কয়েকটি লংমার্চে নেতৃত্ব দেন। এসব লংমার্চে বিপুল জনসমাবেশ ঘটে। ৩ নভেম্বর পাঞ্জাবের ওয়াজিরাবাদে সমাবেশ চলাকালে তাকে হত্যার এক ব্যর্থ চেষ্টা চালানো হয়। এ ছাড়া দেশটির সেনাপ্রধান পদেও রদবদল ঘটে।

জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবেকে হত্যা

দুর্বৃত্তের গুলিতে আহত জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

দেশটির নারা শহরে একটি অনুষ্ঠানে তাকে পিছন থেকে গুলি করা হয়। এতে তিনি লুটিয়ে পড়েন। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জাপানের জাতীয় সম্প্রচার মাধ্যম এনএইচকে জানায়, শিনজো আবে ওই অনুষ্ঠানে ভাষণ দিচ্ছিলেন। ভাষণের মাঝামাঝি তাকে পিছন থেকে গুলি করা হয়। ৪১ বছর বয়সী ওই সন্দেহভাজন হামলাকারীকে আটক করে পুলিশের হেফাজতে নেয়া হয়।

শিনজো আবে জাপানের সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ২০২০ সালে স্বাস্থ্যগত সমস্যার উল্লেখ করে তিনি পদত্যাগ করেন। পরে জানা যায়, তিনি আলসারেটিভ কোলাইটিজে ভুগছেন।

জাপান পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষের নির্বাচনে একজন প্রার্থির সমর্থনে প্রচারণা চালাোর জন্য আবে নারা শহরে গিয়েছিলেন।

আবে ২০২০ সালে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করলেও জাপানের ক্ষমতাসীন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির রাজনীতিতে তার বড় প্রভাব ছিল।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর শিনজো আবে ছিলেন সবচেয়ে কম বয়সী প্রধানমন্ত্রী। ২০০৬ সালে তিনি প্রথবারের মতো প্রধানমন্ত্রী হন। ২০১২ সালে তিনি আবারো প্রধানমন্ত্রী হন।

পাকিস্তানে বন্যা

স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যায় নাকাল পাকিস্তান। টানা বৃষ্টি আর এতে সৃষ্ট বন্যায় দেশটির কমপক্ষে ৩ কোটি ৩০ লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হন। প্রাণ হারান অন্তত ৯৮০ জন।

জুন থেকে অব্যাহত মৌসুমি বৃষ্টি ও বন্যায় ইতোমধ্যে বৈরী আবহাওয়ার রেকর্ড ভাঙে দক্ষিণ এশিয়ার দেশটি।

জলবায়ুমন্ত্রী শেরি বলেন, ‘পাকিস্তান এখন তার অষ্টম মৌসুমি চক্রের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। যদিও দেশে সাধারণত তিন থেকে চার চক্রে বৃষ্টি হয়।’

এ পরিস্থিতিতে সংকট কাটিয়ে উঠতে আন্তর্জাতিক হস্তক্ষেপ চায় ইসলামাবাদ।

অতিরিক্ত বৃষ্টিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় সিন্ধু প্রদেশ। দক্ষিণের প্রদেশটিতে চলতি বছর আগস্টের গড় বৃষ্টিপাতের প্রায় আট গুণ হয়।

ভারত-চীন সম্পর্কের অবনতি

ভারত-চীন সম্পর্কের আরো অবনতি ঘটেছে। দুদেশের আন্তর্জাতিক সম্পর্কে দীর্ঘদিনের ধরা চিড় আরো বাড়ছেই। দোকলাম ইস্যু আবার ছড়াচ্ছে উত্তাপ। মার্কিনি এক উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা জানাচ্ছেন দোকলামে ফের ঘুঁটি সাজাচ্ছে চীনা সেনা। দোকলাম সীমান্তে দুদেশের সেনাবাহিনীর মুখোমুখি হওয়ার আশঙ্কা ফের সংবাদ শিরোনামে উঠে আসছে।

গত কয়েক মাস আগেই দোকলাম ইস্যুতে ঐকমত্যে এসেছিল নয়াদিল্লি ও বেইজিং। আবার নতুন করে চীনের সামরিক পদক্ষেপে দুদেশের আন্তর্জাতিক সম্পর্কে চিড় ধরতে পারে বলে অনুমান বিশেষজ্ঞদের। তবে ইস্যু সমাধান হলেও, দোকলামের রেশ এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি দুই দেশ। তারই মধ্যে চীনের সেনার নিঃশব্দ অবস্থানে নানা প্রশ্ন উঠেছে।

দোকলামের ওই বিতর্কিত এলাকায় ফের নিজের গতিবিধি বাড়াচ্ছে চীন। তবে এবার ভারত বা ভুটান কেউই কোনো প্রতিবাদ করেনি বা বাধা দেয়নি। মার্কিন কংগ্রেসে দাঁড়িয়ে এই তথ্যই দিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্সিপাল ডেপুটি অ্যাসিসট্যান্ট সেক্রেটারি অফ স্টেট ফর সাউথ অ্যান্ড সেন্ট্রাল এশিয়া, অ্যালিস জি ওয়েলস।

অ্যালিস জি ওয়েলস বলেছেন, এই ঘটনা দক্ষিণ চীন সাগরের কথা তুলে আনছে। চীন দাবি করেছে, পুরো চীন উপসাগর তাদের সম্পত্তি। তবে তার প্রতিবাদ জানিয়েছে ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া, ফিলিপাইনস, ব্রুনেই এবং তাইওয়ান। তবে হিমালয়ের ওপর চীনা সেনার গতিবিধিতে এখন কোনো দেশের প্রতিরোধ আসেনি। প্রতিরোধ কেন আসেনি, তা স্পষ্ট নয়। এর আগেও হিমালয়ের ওপরে একাধিকবার বিরোধে জড়িয়েছে ভারত ও চীন।

সম্প্রতি বিরোধ হয়েছিল দোকলাম নিয়ে। চীন ও ভুটানের মধ্যে অবস্থিত দোকলাম উপত্যকায় বেআইনিভাবে রাস্তা বানাচ্ছিল চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি। এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করে ভারত। তারপর শুরু হয় দোকলাম দ্বন্দ্ব। পরে দুই দেশ শান্তিপূর্ণ আলোচনায় সেই সমস্যা মেটায়।

ভারতের সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত জানিয়েছিলেন, শীত শেষ হলেই ফের দোকলামে হাজির হতে পারে চীনের সেনাবাহিনী। ভারতকে যেভাবেই হোক চীনা অনুপ্রবেশ আটকাতেই হবে। না হলে, চীন পুরো দোকলাম অঞ্চলটাই নিজেদের বলে ধরে নেবে। এটুকু নিশ্চিত করতে হবে যাতে আর সীমান্তে ভারত ও চীনের সেনাবাহিনীকে মুখোমুখি না হতে হয়। দুই দেশই যেন নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখে। এখনো চীনা সেনা রয়েছে ডোকলামে। তবে বেশির ভাগ সেনাই সরে গিয়েছে। কিন্তু এখনো রয়েছে চীনা সেনার তাঁবু, পোস্ট, স্টোরেজ শেল্টার ইত্যাদি।

চালর্স শেভরাজের মুক্তি

নেপালের কারাগারে ১৯ বছর বন্দী থাকার পর মুক্তি পেয়েছেন ১৯৭০-৮০ দশকের কুখ্যাত ‘সিরিয়াল কিলার’ চার্লস শোভরাজ (৭৮)। পুলিশের সন্দেহ, ওই দশকগুলোতে ধারাবাহিকভাবে হওয়া অনেকগুলো খুনের জন্য দায়ী শোভরাজ। আদালতের আদেশের পর তার মুক্তির কথা জানান তার আইনজীবী।

ফ্রান্সের নাগরিক শোভরাজ ২০ জনেরও বেশি পশ্চিমা ব্যাকপ্যাকারকে এশিয়ার মধ্য দিয়ে যাওয়া ‘হিপ্পি ট্রেইলে’ হত্যা করেছিলেন বলে সন্দেহ করা হয়। শিকারদের সব কিছু লুটে নেয়ার উদ্দেশে সাধারণত তাদের খাবারে বা পানীয়তে মাদক মিশিয়ে দিতেন তিনি।

১৯৭৫ সালে নেপালে এক মার্কিন ও এক কানাডীয় ব্যাকপ্যাকারকে হত্যার দায়ে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন (২০ বছর) কারাদণ্ড দেয়া হয়েছিল। ২০০৩ সালে ফ্রান্স থেকে নেপালে গেলে তাকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়।

মরুর বুকে বিশ্বকাপ, আর্জেন্টিনার তৃতীয় শিরোপা

গত বছর মরুর বুকে পর্দা উঠে কাতার বিশ্বকাপের। নিয়মতান্ত্রিক চার বছরের ব্যবধানে আবারো শুরু হয় বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর ফিফা বিশ্বকাপ।

২০ নভেম্বর পর্দা উঠে এই‘দ্যা গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ‘-এর। ১৯৩০ সালে শুরু হওয়া ফিফা বিশ্বকাপের ২২তম আসরের আয়োজক দেশ কাতার। কাতারের আয়োজক হওয়া নিয়ে যেমন আছে আলোচনা, তেমনি আছে সমালোচনাও। তবে সব কিছু ছাপিয়ে আজ মাঠে গড়াচ্ছে বিশ্ব ফুটবলের এই মহারণ।

আয়োজক দেশ হওয়ায় এবারের বিশ্বকাপে সরাসরি খেলতে পারে কাতার। মধ্যপ্রাচ্যের এ দেশটি এবারই প্রথম বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ। এর আগে কখনো ফুটবল বিশ্বকাপ না খেলেই হোস্ট করা সর্বশেষ দেশ ছিল ইতালি, সেটাও আবার ১৯৩৪ বিশ্বকাপে। যা ফুটবল ইতিহাসের দ্বিতীয় বিশ্বকাপ।

চ্যাম্পিয়ন মেসির আর্জেন্টিনা

কি দারুণ মিল ১৯৮৬ সালের ফাইনালের সাথে। সেবার আর্জেন্টিনা ২ গোলে লিড নিয়েও তা ধরে রাখতে পারেনি। দুই কর্নার থেকে দুই গোল করে স্কোর ২-২ করে ফেলে পশ্চিম জার্মানি। পরে দিয়েগো ম্যারাডোনার থ্রু পাস থেকে এই ল্যাটিন দেশটিকে ৩-২ গোলে জয় এবং দ্বিতীয় বিশ্বকাপ নিশ্চিত করান মিডফিল্ডার জর্জ (হোর্হে) বুরুচাগা।

মেক্সিকোর আজটেক স্টেডিয়ামের সেই দৃশ্যই গতকাল ৩৬ বছর পর পুনরাবৃত্তি হলো কাতারের দোহার লুসাইল স্টেডিয়ামে। পার্থক্য হলো সেই ম্যাচে আর্জেন্টিনা ৯০ মিনিটেই শিরোপা নিশ্চিত করেছিল। আর গতকাল তাদের তৃতীয় বিশ্বকাপ জিততে টাইব্রেকার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে। এই স্পট কিকে লিওনেল স্ক্যালোনির কোনো সৈনিকই মিস করেনি। তাদের প্রত্যেকটি শট জালে যাওয়ায় ৩৬ বছর পর পুনরায় বিশ্বকাপ ঘরে নিলো লিওনেল মেসির দল। ৩-৩ এ ১২০ মিনিটের খেলা শেষ হওয়ার পর টাইব্রেকারে ম্যারাডোনার দেশ ৪-২ গোলে জিতে মাতিয়ে ফেলে পুরো স্টেডিয়াম এবং সারা দুনিয়ায় টিভি পর্দার সামনে থাকা দর্শকদের। সে সাথে অভাবনীয় সাফল্যে শেষটা বিশ্বকাপ হাতে নিয়ে শেষ করা লিওনেল মেসির। এই ফাইনালে ফ্রান্সের কিলিয়ান এমবাপ্পে হ্যাটট্রিক করলেও ২ গোল দিয়ে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতে নেন মেসি। হয়েছেন টুর্নামেন্ট সেরাও। সে সাথে দিয়েগো ম্যারাডোনার পর একক নৈপূণ্যে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ এনে দিলেন মেসি। এটি তাদের তৃতীয় বিশ্বকাপ। আর ফ্রান্স ব্যর্থ তাদের শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখতে।

লড়াইটা ছিল আর্জেন্টিনা এবং ফ্রান্সের। তবে ল্যাটিন এবং ইউরোপিয়ান এই দেশের দ্বৈরথ ছাপিয়ে গেছে মেসি ও এমবাপ্পের তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা। ফাইনালটাও দারুণ উপভোগ্য হয়েছে এই দুই গ্রেট ফুটবলারের অতুলনীয় পারফরম্যান্সে। একজন করেছেন দুই গোল। অপরজন তো ওয়ানম্যান শো। তিন করে হ্যাটট্রিক পূর্ণ। ট্রফি জয়ের সাথে চলছিল এই দুই পিএসজি সতীর্থের গোল্ডেন বুট জেতার লড়াইও। এতে পেন্ডুলামের মতো ঘুরছিল বিষয়টি। শেষ পর্যন্ত এমবাপ্পেই জিতে নেন তা। সেরা উঠতি ফুটবলারের আর্জেন্টিনার এনজো ফার্নান্দেজ। সেরা গোলরক্ষকের গোল্ডেন গ্লাভস জিতেছেন আর্জেন্টিনার এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। ৮ গোল দিয়ে গোল্ডেন বুট দখলে নিয়েছেন গত বিশ্বকাপের সেরা উঠতি ফুটবলারের ট্রফি জেতা এমবাপ্পে। আর কাতার বিশ্বকাপের সেরা ফুটবলারের গোল্ডেন বল জিতে নিয়েছেন মেসি।

গোল দিয়েও তা ধরে রাখতে না পারাটা আর্জেন্টিনার পুরনো অভ্যাস। সেই ১৯৮৬ সালের দুঃসহ স্মৃতিতে যাওয়ার দরকার নেই। এই কাতার বিশ্বকাপেই তাদের ১ গোলে লিড নিয়েও সৌদি আরবের কাছে হারা, নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ২ গোলে এগিয়ে থেকেও ২-২ এ ৯০ মিনিট শেষ করা, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২ গোলে এগিয়েও এক হজম করে কোনো মতে রক্ষা পাওয়া সবই হয়েছে। কাল ফাইনালেও এর বাইরে যেতে পারেনি। তাই প্রথমে ২-০ এবং পরে ৩-২ গোলে এগিয়ে থেকেও তাদের জিততে হয়েছে পেনাল্টি শুটআউটে।

ম্যাচে প্রথমার্ধেই ২ গোলে লিড। সেই ম্যাচে ৮০ ও ৮২ মিনিটে সমতা আনে ফ্রান্স। অতিরিক্ত সময়ের দ্বিতীয়ার্ধে ফের লিড আর্জেন্টিনার। কিন্তু অবারো গতবারের চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের খেলায় ফেরা। ১২০ মিনিট ৩-৩ এ শেষ হওয়ার টাইব্রেকার ভাগ্য আর্জেন্টিনার পক্ষে হেলে পড়ায় শেষ পর্যন্ত শিরোপার উৎসব ১৯৭৮ ও ১৯৮৬ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। এতে আর্জেন্টিনার মেসি, পাওলো দিবালা , লিসান্দ্রো মার্টিনেজ গোল করার পর এক শট আগেই শিরোপা উৎসব গোল করতে হতো গনজালো মনটিয়ালকে। তার চতুর্থ শট জালে যাওয়ার সাথে সাথেই বাঁধভাঙা উল্লাস আর্জেন্টিনা শিবিরে। টাইব্রেকারে ফ্রান্সের এমবাপ্পে এবং কোলো মুয়ানে গোল করলেও কোম্যানের শট রুখে দেন এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। আর বাইরে মারেন তোসুমেনে।

তবে এমনইতো হওয়া উচিত বিশ্বকাপের ফাইনাল। দুই গোলে পিছিয়ে থাকা দলের কি দুর্দান্ত ভাবেই না ঘুরে দাঁড়ানো। পুরো প্রথমার্ধে যাদের খুঁজেই পাওয়া যাচ্ছিল না, সাথে দুই গোলে পিছিয়ে থাকা তারাই দুই মিনিটের মধ্যে জোড়া গোল করে ফাইনালকে নিয়ে গেল অতিরিক্ত সময়ে। আর এই কাজে ফ্রান্সকে সহায়তা করে আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডাররা। বল ক্লিয়ার না করে সে বল নিয়ে ড্রিবলিংয়ে তাদের তাদের এক রক্ষণকর্মী। তার গায়ে গায়ে তখন ফ্রান্সের ফুটবলার। এরপর বলের দখল হারিয়ে পেনাল্টির জন্ম দেয়া। ফ্রান্সের ঘুরে দাঁড়ানোর শুরু তাতেই। কিলিয়ান এমবাপ্পের নেয়া পেনাল্টি শটে ঠিক ডান দিয়েই ঝাঁপিয়ে পড়েন আর্জেন্টিনার গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। কিন্তু এই ফরাসি স্ট্রাইকারের শটটি এতই নিখুঁত ছিল যে তা রুখতে পারেননি টাইব্রেকার ঠেকাতে দক্ষ এই কিপার। এরপর আবার ডিফেন্স ভুলে পা দেয়। যদিও মাঝ মাঠে মেসির মিস করা বল থেকেই ফ্রান্স আক্রমণে যায়। এরপর সে বল বক্সের ঠিক ভেতরে এমবাপ্পের কাছে এলে ডান পায়ের তীব্র ভলিতে স্কোর ২-২ করে ফেলে।

৩০ মিনিটের অতিরিক্ত সময়ের প্রথমার্ধে কোনো গোল না হলেও দ্বিতীয়ার্ধে মানে ১০৯ মিনিটে মেসি ফের এগিয়ে নেন। তার শট গোল লাইনের ভেতর থেকে ফরাসি ডিফেন্ডার ঠেকালেও মেসি সহকারী রেফারির গোলের সঙ্কেতের অপেক্ষা না করেই শুরু করে দেন গোল উৎসব। পরে রেফারি গোলের বাঁশি বাজার ভারের সাহায্য নেন।

এর আগে ২৩ মিনিটে আর্জেন্টিনার ম্যাচে এগিয়ে যাওয়া। বক্সে আঞ্জেল ডি মারিয়া ফাউলের শিকার হলে রেফারির দেয়া পেনাল্টি থেকে ৮৮৯৬৬ জন দর্শকের ৯৫ ভাগকে আনন্দে ভাসান মেসি। ৩৬ মিনিটে আর্জেন্টিনা ২-০ গোলে এগিয়ে যায় শেষ বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া ডি মারিয়ার প্লেসিং শটে। কাউন্টার অ্যাটাক থেকে মেসি এবং আরেক ফুটবলারের পা ঘুরে জুলিয়ান আলভারেজের কাছে এলে তার পাস থেকে গোল ডি মারিয়ার। রাশিয়া বিশ্বকাপেও তিনি গোল করেছিলেন ফ্রান্সের বিপক্ষে। এরপর ফ্রান্সের ম্যাচে ফেরা। তবে ৯০ মিনিটের খেলার অতিরিক্ত ৮ মিনিটের শেষ সময়েই আর্জেন্টিনা জিতে যেতে পারত যদি মেসির শট কর্নার না করতেন বিপক্ষ কিপার হুগো লরিচ। আর এই ম্যাচ টাইব্রেকারে যাওয়ার আগে ফ্রান্সের তৃতীয় এবং টানা দ্বিতীয় ট্রফি জয় হতো আর্জেন্টিনার গোলরক্ষক ১১৯ মিনিটে দারুণ সেভটি না করতেন।
এই জয়ের ফলে আর্জেন্টিনা গত বিশ্বকাপে ফ্রান্সের কাছে হারের বদলাই নিলো।

করোনার নতুন ধরন

চীন-ভারতসহ বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে আবারো করোনাভাইরাস সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। চীনের সাথে বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু আছে। অসংখ্য মানুষ প্রতিনিয়ত আসা যাওয়া করছে। এই অবস্থায় করণীয় ঠিক করতে শনিবার জাতীয় কারিগরি কমিটির বৈঠক ছিল। কমিটি চারটি বিষয়ে আমাদের পরামর্শ দিয়েছে।

কমিটির পরামর্শের তথ্য তুলে ধরে তিনি জানান, সংক্রমণের নতুন ভ্যারিয়েন্টে সবচেয়ে ভয়াবহ দিক হলো টিকা না নেয়া ব্যক্তিদের জন্য এটির ভয়াবহতা অনেক বেশি। তাই যারা টিকা নেয়নি তাদের দ্রুত নিয়ে নেওয়ার জন্য কারিগরি কমিটি সুপারিশ করেছে। এছাড়া সেকেন্ড বুস্টার ডোজের (চতুর্থ ডোজ) প্রচার প্রচারণা বৃদ্ধির বিষয়েও বলেছে কমিটি। যারা ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কার, প্রেগন্যান্ট নারী ও ষাটোর্ধ্ব যারা আছেন, তাদেরকে দ্বিতীয় বুস্টার ডোজ দ্রুততম সময়ে নিয়ে নেয়ার জন্য বলা হয়েছে। যাদের কোমরবিড কন্ডিশন রয়েছে, তাদের ক্ষেত্রে অবশ্যই নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা। যেমন- মাস্ক ব্যবহার করা, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা, নিরাপদ দূরত্বে অবস্থান করা এবং আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শ থেকে দূরে থাকার বিষয়ে কারিগরি কমিটি থেকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।’

ডা: আহেমদুল কবীর বলেন, দেশে করোনা আক্রান্তদের সংখ্যা এখনও সাত থেকে আট জনের মধ্যে থাকলেও ইতোমধ্যে আইইডিসিআরকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে জিমোন সিকুয়েন্স চলমান রাখতে। কেননা করোনার নতুন ধরনটি দেশে আসলে দ্রুত শনাক্ত সম্ভব হবে।

পেলের শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ

৩০ ডিসেম্বর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন পেলে। পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে পরকালে পাড়ি দিয়েছেন ‘কালো মানিক’ খ্যাত এই ফুটবলার। বিশ্ব ফুটবলের এই মহাতারকার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।

ব্রাজিলের সাও পাওলোর একটি হাসপাতালে পেলে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। ২৯ নভেম্বর ক্যান্সারে আক্রান্ত পেলেকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি দীর্ঘদিন যাবত কিডনি এবং হৃদরোগের জটিলতায়ও ভুগছিলেন।

১৯৫৮, ১৯৬২ ও ১৯৭০ সালে বিশ্বকাপ জয় করেছেন এবং ২০০০ সালে ফিফা তাকে শতাব্দী সেরা খেলোয়াড় ঘোষণা করে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে তিনি কিডনি ও প্রস্টেট সংক্রান্ত জটিলতায় ভুগছিলেন।


আরো সংবাদ


premium cement
দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন শেখ হাসিনা : প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী চীন সীমান্তে সেনা বাড়িয়েছে ভারত অনিয়মিতদের ফেরাতে বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের উপর ইইউর চাপ পেছন দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মহারাষ্ট্রে প্রথম মুসলিম হিসেবে ‘বিএইচএমএস’-এ মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করলেন মারিয়া প্লাটিনাম ক্যাটাগরিতে বিশ্বের শ্রেষ্ঠ না'গঞ্জের ওভেন ডাইং কারখানা পরিদর্শনে ১৮ দেশের প্রতিনিধি জামায়াত বৈধ দল হওয়া সত্ত্বে রাজপথে কথা বলতে দেয়া হচ্ছে না : ভারপ্রাপ্ত আমির খুলনায় ১৫টি স্বর্ণবারসহ আটক ২ ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনের মোগল গার্ডেনের নাম বদলে করা হলো অমৃত উদ্যান বর্তমান প্রেক্ষাপটে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন জরুরি : আইনমন্ত্রী জেরুসালেমে আরেকটি গুলিবর্ষণের ঘটনায় ২ ইসরাইলি আহত

সকল