০২ অক্টোবর ২০২২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯, ৫ রবিউল আওয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

গাজীপুরের নুহাশ পল্লীতে হুমায়ূন আহমেদের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

গাজীপুরের নুহাশ পল্লীতে হুমায়ূন আহমেদের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত - ছবি : নয়া দিগন্ত

নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের  ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী মঙ্গলবার যথাযোগ্য মর্যাদায় গাজীপুরে পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে কথাশিল্পী হুমায়ূন আহমেদের পরিবারের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার গাজীপুরের সদর উপজেলার পিরুজালী গ্রামের নুহাশ পল্লীতে শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার মধ্য দিয়ে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালন করা হয়।

কথাশিল্পী হুমায়ূন আহমেদের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মরহুম এ লেখকের দুই ছেলে নিশাত ও নিনিতসহ হুমায়ূন ভক্ত ও হিমু পরিবহনের সদস্যরা মঙ্গলবার সকালে গাজীপুরে আসেন। বেলা ১১টার দিকে তারা নুহাশ পল্লীর লিচু তলায় হুমায়ুন আহমেদের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন এবং কবর জিয়ারত করেন। এ সময় লেখকের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

অনুষ্ঠানে অনন্য প্রকাশনীর প্রধান নির্বাহী মাজহারুল ইসলাম, মিলেনিয়াম পাবলিকেশন্সের স্বত্বাধীকারী এস এম লুৎফর রহমান, ধ্রুব পদ প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী আবুল বাশার ফিরোজ শেখ, মাতৃভাষা প্রকাশের স্বত্বাধিকারী নেছার উদ্দিন আইয়ুব, অনিক পাবলিকেশন্সের স্বত্বাধিকারী মাহতাব উদ্দিন, নুহাশ পল্লীর কর্মকর্তা-কর্মচারী ও গণমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির সহ-সভাপতি মাজহারুল ইসলাম বলেন, হুমায়ূন আহমেদের পরিবার থেকে ক্যান্সার হাসপাতাল নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হলে বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি তাদের পাশে থাকবে। তিনি দাবি করেন, নুহাশ পল্লীতে হুমায়ুন আহমেদের স্মৃতি ধরে রাখতে সরকারি, বেসরকারি অথবা পারিবারিক উদ্যোগে একটি স্মৃতি যাদুঘর প্রতিষ্ঠা কর খুবই প্রয়োজন। এ উদ্যোগটির সাথেও বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি পাশে থাকবে। ওই সমিতির কেন্দ্রীয় এবং রাজধানী কমিটির কমপক্ষে ২০ জন প্রকাশক তিনটি প্রকাশক সমিতির পক্ষ থেকে হুমায়ূন আহমেদের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।

 


আরো সংবাদ


premium cement