০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

ঢাকাস্থ পাকিস্তান হাইকমিশনে চারু, কারুশিল্প এবং রান্নার প্রদর্শনীতে ব্যাপক সাড়া

ঢাকাস্থ পাকিস্তান হাইকমিশনে চারু, কারুশিল্প এবং রান্নার প্রদর্শনীতে ব্যাপক সাড়া - ছবি : নয়া দিগন্ত

ঢাকাস্থ পাকিস্তান হাইকমিশন শনিবার ঢাকায় পাকিস্তান হাউসে আয়োজিত পাকিস্তানের চারু, কারুশিল্প এবং রান্নার পাশাপাশি পাকিস্তান নিয়ে লেখা একটি কফি টেবিল বই প্রদর্শনীতে ব্যাপক সাড়া পাওয়া গেছে। পাকিস্তানের সমৃদ্ধ এবং বৈচিত্র্যময় সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য প্রদর্শনের লক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানটি পাকিস্তানের হীরক জয়ন্তী উদযাপনের অংশ ছিল। বিপুল সংখ্যক শিল্পী, শিক্ষাবিদ, শিল্প উত্সাহী, সুশীল সমাজের সদস্য, কূটনৈতিক গোষ্ঠীর প্রতিনিধি, বাংলাদেশে পাকিস্তানি প্রবাসী এবং স্থানীয় সাংবাদিক এতে উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশে পাকিস্তানের হাইকমিশনার ইমরান আহমেদ সিদ্দিকী প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন। তিনি এ সময় বলেন, পাকিস্তানের একটি সমৃদ্ধ এবং বৈচিত্র্যময় সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রয়েছে। পাকিস্তানের তরুণ শিল্পীরা তাদের উদ্ভাবনী শিল্প ও নৈপুণ্যের মাধ্যমে আধুনিকের সাথে প্রাচীনের মিশেলে প্রাচীন ঐতিহ্যকে সমৃদ্ধ করছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

মদিনা মুনাওয়ারায় অবস্থিত মসজিদে নববীর প্রধান ক্যালিগ্রাফার ওস্তাদ শফিক উজ জামানের শিল্প কর্মসহ বিখ্যাত পাকিস্তানি ক্যালিগ্রাফারদের ৪ টি আরবি ক্যালিগ্রাফি, ভূদৃশ্যের ছবি, সিন্ধু উপত্যকা এবং গান্ধার সভ্যতার প্রতিনিধি ভাস্কর্যের প্রতিলিপি, পাকিস্তানের ইতিহাস, সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য, বৈচিত্র্যময় রন্ধনপ্রণালী, পর্যটন আকর্ষণ, প্রাকৃতিক দৃশ্যের সৌন্দর্য এবং পাখি নিয়ে ৫০টিরও বেশি বই প্রদর্শনীতে অন্তর্ভুক্ত ছিল।

হাইকমিশনার সকল অংশগ্রহণকারীদেরকে ক্যালিগ্রাফি বুকলেটের বাংলা সংস্করণ উপহার দেন, যার মধ্যে রয়েছে মহানবী সা. মসজিদের প্রধান ক্যালিগ্রাফারসহ পাকিস্তানের বিখ্যাত ক্যালিগ্রাফারদের শিল্পকর্ম।

প্রদর্শনীতে ঐতিহ্যবাহী পাকিস্তানি খাবার দিয়ে অংশগ্রহণকারীদের আপ্যায়ন করা হয়।

অংশগ্রহণকারীরা অনুষ্ঠানটির প্রশংসা করেন এবং পাকিস্তানি শিল্পীদের কাজের ভূয়সী প্রশংসা করেন। যৌথভাবে দুই দেশের শিল্প ও কারুশিল্পের প্রসারের জন্য তারা দুই দেশের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সংযোগের আহ্বান জানিয়েছেন।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি


আরো সংবাদ


premium cement