২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ন ১৪২৯, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

টুইটার কেনা নিয়ে সৌদি প্রিন্স ও ইলন মাস্কের বিবাদ

সৌদি প্রিন্স আলওয়ালিদ বিন তালাল ও ইলন মাস্ক - ছবি : সংগৃহীত

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার কেনা নিয়ে সৌদি প্রিন্স আলওয়ালিদ বিন তালালের সাথে বিবাদে জড়িয়েছেন ইলন মাস্ক। বৃহস্পতিবার এমন সংবাদ প্রকাশ করেছে মিডল ইস্ট আই।

টুইটার কেনার বিষয়ে ইলন মাস্ক যে মূল্যের কথা বলেছেন তা খুবই অল্প বলে বাতিল করে দিয়েছেন সৌদি প্রিন্স আলওয়ালিদ বিন তালাল। সৌদি প্রিন্স আলওয়ালিদ বিন তালাল হলেন টুইটারের অন্যতম বড় শেয়ারহোল্ডার।

এ বিষয়ে সৌদি প্রিন্স আলওয়ালিদ তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলেছেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারের সমগ্র মালিকানা পাওয়ার জন্য ইলন মাস্ক ৪৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার অফার করেছিলেন। এটাকে ইলন মাস্ক টুইটারের জন্য সর্বশেষ ও সর্বোচ্চ মূল্য বলে অভিহিত করেন। কিন্তু, টুইটারের অন্যতম মালিক বলে তিনি তা বাতিল করে দিয়েছেন। এরপরেই সৌদি প্রিন্স আলওয়ালিদের সাথে বিবাদে জড়ান ইলন মাস্ক।

এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে আলওয়ালিদ লিখেছেন, আমি বিশ্বাস করি না যে ইলন মাস্ক টুইটারের জন্য যে মূল্য নির্ধারণ করেছেন তা যথেষ্ট। কারণ, টুইটারের সম্পদে প্রবৃদ্ধি হচ্ছে। দীর্ঘ দিন ধরে টুইটারের অন্যতম বড় শেয়ারহোল্ডার হওয়ার কারণে আমি ইলন মাস্কের প্রস্তাব বাতিল করে দিয়েছি।

প্রিন্স আলওয়ালিদ বিন তালালের এমন টুইটের জবাবে সৌদি আরবের গণমাধ্যম আইনের সমালোচনা করেছেন ইলন মাস্ক।

পাল্টা টুইটে ইলন মাস্ক বলেন, এটা খুবই ভালো কথা। কিন্তু, আমি দু’টো বিষয় জানতে চাই। প্রথমত, সরাসরি বা গোপনে টুইটারে সৌদি আরবের মালিকানা কতটুকু? দ্বিতীয়ত, স্বাধীন সাংবাদিকতার দৃষ্টিতে মুক্তবাকের কতটা মূল্য আছে সৌদি আরবে?

সূত্র : মিডল ইস্ট আই


আরো সংবাদ


premium cement