০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ৬ জিলহজ ১৪৪৩
`

প্রশান্ত মহাসাগরের আগ্নেয়গিরিতে বিস্ফোরণের কারণে সুনামি, সতর্ক যুক্তরাষ্ট্র ও জাপান

প্রশান্ত মহাসাগরের হুঙ্গা টোঙ্গা-হুঙ্গা হা'পাই আগ্নেয়গিরিতে বিস্ফোরণের পরের দৃশ্য - ছবি : সংগৃহীত

দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরে বিশাল আগ্নেয়গিরিতে বিস্ফোরণ ঘটার কারণে টোঙ্গায় সুনামি সদৃশ বিশাল ঢেউ আছড়ে পড়েছে। সমুদ্রের পানির নিচে থাকা এক বিশাল আগ্নেয়গিরিতে বিস্ফোরণ হওয়ার পর বিশাল ঢেউ সৃষ্টি হয়ে এ সুনামি ঘটে। এ কারণে যুক্তরাষ্ট্র ও জাপান তাদের প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকায় সুনামি সতর্কতা জারি করেছে। রোববার এমন সংবাদ প্রকাশ করেছে বিবিসি।

দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের পানির নিচে থাকা এক বিশাল আগ্নেয়গিরিতে বিস্ফোরণ হওয়ার পর টোঙ্গায় এক মিটাররের চেয়ে উঁচু ঢেউ আছড়ে পড়েছে।

দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকায় হুঙ্গা টোঙ্গা-হুঙ্গা হা'পাই আগ্নেয়গিরিতে বিস্ফোরণের ফলে বিকট শব্দের সৃষ্টি হয়। এ বিস্ফোরণের শব্দ সমগ্র দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকায় পাওয়া গেছে। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকায় এ শব্দ পাওয়া গেছে।

এদিকে টোঙ্গার বিভিন্ন এলাকায় আগ্নেয়গিরির বিস্ফোরণের ফলে সৃষ্ট ছাই এস পড়েছে। এমনকি টোঙ্গার রাজধানী শহর নুকু'আলোফায়ও আগ্নেয়গিরির ছাই উড়ে এসে পড়েছে। কারণ, এ রাজধানী শহরটি হুঙ্গা টোঙ্গা-হুঙ্গা হা'পাই আগ্নেয়গিরি থেকে মাত্র ৬৫ কি.মি. দূরে। এছাড়া টোঙ্গার বিভিন্ন অঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে। ফোনলাইন ও ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত টোঙ্গায় কত মানুষ হতাহত হয়েছে এবং কী পরিমাণ আর্থিক ক্ষতি হয়েছে তা জানা যায়নি। এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিও চিত্রে দেখা গেছে, টোঙ্গার নিম্নাঞ্চল থেকে উঁচু এলাকায় চলে যাচ্ছেন দেশটির সাধারণ মানুষ।

অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্র ও জাপান তাদের প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকায় সুনামি সতর্কতা জারি করেছে। এ দু’দেশ তাদের প্রশান্ত মহাসাগরীয় উপকূল অঞ্চলের জনগণকে সমুদ্রের কূল থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এসব সাধারণ মানুষকে সুনামির বিশাল ঢেউ থেকে বাঁচাতে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

জাপান শঙ্কা প্রকাশ করেছে যে এ আগ্নেয়গিরির বিস্ফোরণের ফলে দেশটিতে তিন মিটার উঁচু ঢেউ সৃষ্টি হতে পারে। ওই ধরনের বিপদজনক অবস্থা অনুসারে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এছাড়া জাপানি কর্তৃপক্ষ মনে করে যে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলে ১.২ মিটার উঁচু ঢেউ আছড়ে পড়তে পারে।

অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্র শঙ্কা প্রকাশ করেছে যে দেশটিতে শক্তিশালী ঢেউ আছড়ে পড়বে। এছাড়া দেশটিতে শক্তিশালী সামুদ্রিক পানির স্রোত ও বন্যা দেখা দিতে পারে।

সূত্র: বিবিসি


আরো সংবাদ


premium cement