১৭ এপ্রিল ২০২১
`

চাঁদে যেতে হাইব্রিড রকেট তৈরি করছে তুরস্ক

ডেল্টা ফাইভ স্পেস টেকনোলজি পরিদর্শনে আসা প্রতিনিধি দল - ছবি : ডেইলি সাবাহ/আনাদোলু এজেন্সি

তুরস্কের ২০২৩ সালে চাঁদে অভিযানে হাইব্রিড রকেট প্রযুক্তির উন্নতিতে কাজ করছে ইস্তাম্বুলভিত্তিক এক মহাকাশ প্রযুক্তি ফার্ম। ডেল্টা ফাইভ স্পেস টেকনোলজি নামের এই প্রতিষ্ঠান এই বছরের মধ্যেই নিজস্ব প্রযুক্তিতে উদ্ভাবিত এই রকেট পরীক্ষা করবে বলে জানান তুরস্কের শিল্প ও প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তফা ভারনাক।

রোববার প্রতিষ্ঠানটি পরিদর্শন করতে আসেন মোস্তফা ভারনাক। এই সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা আশা করবো ডেল্টা ফাইভ চাঁদে আমাদের নিজস্ব অভিযানের উপযোগী করে ইঞ্জিন উন্নত করবে।’

গত মাসে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগানের চাঁদে অভিযানসহ ১০ বছরের উচ্চাভিলাষী জাতীয় মহাকাশ কর্মপরিকল্পনা প্রকাশের পর তুরস্কের নিজস্ব প্রযুক্তিতে রকেট তৈরির এই উদ্যোগ নেয়া হলো। পাশাপাশি এই পরিকল্পনার অধীনে তুর্কি মহাকাশচারীদের বৈজ্ঞানিক অভিযানে পাঠানোর সাথে সাথে আন্তর্জাতিকভাবে টেকসই উপগ্রহ ব্যবস্থা উন্নতির প্রকল্প রয়েছে।

এরদোগান বলেন, তুরস্ক প্রজাতন্ত্রের শত বার্ষিকী উপলক্ষে ২০২৩ সালে ’চাঁদের সাথে প্রত্যক্ষ সংযোগ’ স্থাপনে রাষ্ট্রের পরিকল্পনা রয়েছে।

চাঁদে অভিযানের এই মিশন দুইটি পর্যায়ে সম্পন্ন করা হবে।

প্রথম পর্বে চাঁদে নিজস্ব হাইব্রিড প্রযুক্তির একটি রকেট আন্তর্জাতিক সহায়তায় পাঠানো হবে, যা ২০২৩ সালের শেষে উৎক্ষেপণ করা হবে।

ভারনাক বলেন, ‘২০২৩ সালে আমরা চাঁদের সাথে নিজস্ব প্রযুক্তিতে প্রথমবারের মতো সংযোগ স্থাপন করতে চাই।’

তিনি বলেন, ‘প্রথমবারের মতো যদিও আমরা আন্তর্জাতিক সহায়তায় প্রথম মহাকাশে উৎক্ষেপণ করবো কিন্তু আমরা আমাদের নিজস্ব প্রযুক্তির রকেট উৎক্ষেপণ করে চাঁদে পাঠাবো।’

দ্বিতীয় পর্যায়ে একইভাবে তুরস্ক নিজস্ব রকেট মহাকাশে উৎক্ষেপণ করবে।

ভারনাক বলেন, মহাকাশ সংক্রান্ত এই পরিকল্পনা তুরস্ককে এই ক্ষেত্রে প্রবেশ করে দেশটির মহাকাশ অর্থনীতিতে অংশীদারিত্ব বাড়াবে।

তিনি বলেন, ‘তুরস্কের মহাকাশ ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ সক্ষমতা রয়েছে। টার্কিশ স্পেস এজেন্সির (টিইউএ) প্রস্তুত করা জাতীয় মহাকাশ প্রকল্পের সাথে এই সক্ষমতার সমন্বয়ে আমরা গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্য নির্ধারণ করেছি।’

২০১৮ সালে প্রতিষ্ঠিত টিইউএ তুরস্কের মহাকাশ অভিযান প্রকল্পের সমন্বয়ের উদ্দেশ্যে প্রতিষ্ঠিত হয়।

সূত্র : ডেইলি সাবাহ



আরো সংবাদ