২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১
`

অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন সম্পর্কে আপনার যা জানা দরকার

অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন সম্পর্কে আপনার যা জানা দরকার - ছবি : সংগৃহীত

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) স্ট্র্যাটেজিক অ্যাডভাইজরি গ্রুপ অব এক্সপার্ট অন ইমিউনাইজেশন (এসএজিই) বৃহস্পতিবার অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিড-১৯ টিকা ব্যবহারের ক্ষেত্রে কিছু অন্তর্বর্তীকালীন সুপারিশ করেছে।

প্রথমে কাদের টিকা দেয়া উচিত?

ভ্যাকসিন সরবরাহ সীমাবদ্ধ থাকা সত্ত্বেও করোনা মোকাবিলার সম্মুখসারির যোদ্ধা স্বাস্থ্যকর্মী এবং ৬৫ বা তার বেশি বয়সী ঝুঁকির মধ্যে থাকাদের অগ্রাধিকার দেয়া উচিত বলে সুপারিশ করা হয়।

কারা ভ্যাকসিন নিতে পারবে?

স্থূলতা, কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ, শ্বাস প্রশ্বাসের রোগ এবং ডায়াবেটিসসহ কোভিড-১৯ এর ঝুঁকি বাড়ানোর ক্ষেত্রে চিহ্নিত হওয়া কমরেবিডিটিযুক্ত ব্যক্তিদের জন্য টিকা দেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়।

যদিও এইচআইভি বা অটো-ইমিউন অবস্থায় আক্রান্ত ব্যক্তি বা যারা প্রতিরোধ ক্ষমতা নিয়ে আছেন তাদের জন্য আরও গবেষণা করা প্রয়োজন। এই বৈশিষ্টের লোকেরা যারা টিকা দেয়ার জন্য প্রস্তাবিত একটি গ্রুপের সদস্য তথ্য এবং পরামর্শ গ্রহণের পর তাদের টিকা দেয়া যেতে পারে।

অতীতে যাদের কোভিড-১৯ ছিল তাদের টিকা দেয়া যেতে পারে। তবে ব্যক্তিরা সার্স-কোভ-২ সংক্রমণের সময় থেকে ছয় মাস পর্যন্ত কোভিড-১৯ টিকাদান স্থগিত করতে পারেন।

স্তন্যদানকারী নারীরা যদি টিকা দেয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার কোনো গোষ্ঠীর সদস্য হয় তবে তাদের ভ্যাকসিন দেয়া যেতে পারে। টিকা দেয়ার পর বুকের দুধ খাওয়ানো বন্ধ না করার পরামর্শ দিয়েছে ডব্লিউএইচও।

গর্ভবতী নারীদের কি টিকা দেয়া উচিত?

গর্ভাবস্থায় মহিলাদের ভ্যাকসিন গ্রহণ উচ্চ ঝুঁকিতে ফেলে দেয় এরকম খুব অল্প তথ্য পাওয়া যায়।

গর্ভবতী কোনো নারী যদি কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সম্মুখসারিতে থেকে থাকে, যেমন: চিকিৎসক কিংবা স্বাস্থ্যকর্মী তাহলে তাদের টিকা নেয়া উচিত। তবে এক্ষেত্রে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

ভ্যাকসিন কার জন্য বাঞ্ছনীয় নয়?

মারাত্মক অ্যালার্জির ইতিহাস রয়েছে এমন লোকদের জন্য ভ্যাকসিন গ্রহণ করা উচিত নয়। ১৮ বছরের কম বয়সী ব্যক্তিদের টিকা প্রয়োগের জন্য আরও গবেষণার কথা বলা হয়েছে।

প্রস্তাবিত ডোজ কি?

প্রস্তাবিত ডোজটি ৮ থেকে ১২ সপ্তাহের ব্যবধানে দুটি ডোজ অন্তর্মুখীভাবে (০.৫ মিলি প্রতিটি) দেয়া হয়।

একটি ডোজ দেয়ার পর দীর্ঘমেয়াদী সম্ভাব্য সুরক্ষা জানতে অতিরিক্ত গবেষণা প্রয়োজন।

এটি কি নিরাপদ?

যদিও এই ভ্যাকসিনটি ডব্লিউএইচও এখনো জরুরি ব্যবহারের তালিকার জন্য সুপারিশ করেনি। এটি ইউরোপীয় মেডিসিন এজেন্সি (ইএমএ) পর্যালোচনা করছে এবং ফলস্বরূপ এসএজিই বিবেচনার জন্য ডব্লিউএইচও’র মানদণ্ড পূরণ করে।

ইএমএ ভ্যাকসিনের গুণমান, সুরক্ষা এবং কার্যকারিতা সম্পর্কিত তথ্যটি পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে মূল্যায়ন করছে এবং ১৮ বছর বা তার বেশি বয়সীদের জন্য শর্তসাপেক্ষ সরবরাহের অনুমোদন দেয়ার পরামর্শ দিয়েছে।

টিকাটি কতটা কার্যকর?

কোভিড-১৯ মোকাবিলায় এজেডডি ১২২২ ভ্যাকসিনের লক্ষণগত সার্স-কোভ-২ সংক্রমণের বিরুদ্ধে ৬৩ দশমিক ০৯ শতাংশের কার্যকারিতা রয়েছে।

এটি কি করোনাভাইরাসের নতুন ধরনের বিরুদ্ধে কাজ করে?

এসএজিই ডব্লিউএইচ’র অগ্রাধিকার রোডম্যাপ অনুযায়ী এজেডডি ১২২২ ভ্যাকসিন ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছে। এমনকি কোনো দেশে করোনাভাইরাসের নতুন ধরনের উপস্থিত থাকলেও, দেশগুলোর তাদের মহামারি সংক্রান্ত পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে ঝুঁকি এবং সুবিধাগুলো মূল্যায়ন করা উচিত।

এটি সংক্রমণ রোধ এবং সংক্রমণ ছড়ায়?

সংক্রমণ বা ভাইরাল শেডিংয়ে এজেডডি১২২২ এর প্রভাব সম্পর্কিত কোনো সুস্পষ্ট তথ্য পাওয়া যায় না।

এখন আমাদের অবশ্যই জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থাগুলো বজায় রাখতে এবং জোরদার করতে হবে যেমন: মাস্ক, শারীরিক দূরত্ব, হাত ধোয়া, ভিড় এড়িয়ে চলা উচিত।

সূত্র : ইউএনবি



আরো সংবাদ