০৯ মার্চ ২০২১
`

গোল্ডেন গ্লোবের জন্য মনোনীত আরব বংশোদ্ভুত ২ অভিনেতা

রামি ইউসুফ ও তাহার রহিম - ছবি : সংগৃহীত

মিসরীয়-মার্কিন অভিনেতা রামি ইউসুফ ও আলজেরীয়-ফরাসি অভিনেতা তাহার রহিম ৭৮তম গ্লোডেন গ্লোব পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন। বুধবার পুরস্কারের জন্য এই মনোনয়নের ঘোষণা দেয়া হয়।

পরপর দ্বিতীয় বছরের মতো রামি ইউসুফ এই মনোনয়ন পেলেন। টেলিভিশনের কমেডি বা মিউজিক্যাল শো ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন রামি। আমেরিকান অনলাইন প্লাটফর্ম হুলুতে প্রচারিত ‘রামি’ টিভি সিরিজে একই নামের কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয়ের জন্য মনোনয়ন পেয়েছেন তিনি। টিভি সিরিজটিতে যুক্তরাষ্ট্রের রাজনৈতিকভাবে বিভক্ত অঙ্গরাজ্য নিউ জার্সিতে দ্বিতীয় প্রজন্মের অভিবাসী এক মুসলিম তরুণের জীবন চিত্রায়িত করা হয়েছে।

গত বছরও তিনি এই পুরস্কার অর্জন করেন। পুরস্কার গ্রহণের পর প্রতিক্রিয়ামূলক বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘আমি আমার খোদার শুকরিয়া জানাতে চাই। আল্লাহু আকবার। খোদা তোমার শুকরিয়া।’

মুসলিম ও আরব সম্প্রদায়ের মধ্যে এই সিরিজ মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করেছে। মিডল ইস্ট আইয়ের কাছে চলচ্চিত্র সমালোচক জোসেফ ফাহিম মন্তব্য করেন, আরব আমেরিকানদের উপস্থাপনে রামি ব্যর্থ হয়েছেন।

অপরদিকে তাহার রহিম চলচ্চিত্রের ড্রামা ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন। ‘দ্যা মৌরিতানিয়ান’ চলচ্চিত্রটিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয়ের জন্য মনোনয়ন পান তিনি। মোহাম্মাদু উলদ সালাহি নামে গুয়ান্তানামো বে বন্দী শিবিরের এক বন্দীর গল্প নিয়ে এই চলচ্চিত্রটি তৈরি করা হয়েছে, যিনি বিনাবিচারে ১৪ বছর আটক ছিলেন।

রহিম মৌরিতানিয়ার নাগরিক সালাহির চরিত্রে অভিনয় করেন। ২০০২ সালে সালাহিকে গুয়ান্তানামো বে শিবিরে পাঠানো হয়। ‘গুয়ান্তানামো বে-এর ইতিহাসে তাকে সবচেয়ে বেশি নির্যাতিত ব্যক্তি’ হিসেবে বর্ণনা করা হয়।

সালাহি ২০১৫ সালে প্রকাশিত স্মৃতিকথামূলক ‘দ্যা গুয়ান্তানামো বে ডাইরিজ’ গ্রন্থে তার ওপর চালানো নির্যাতনের বর্ণনা দেন। দিনের পর দিন ঘুমাতে না দেয়া, ভিন্ন ভিন্ন ভঙ্গিতে শিকলে আটকে রাখা, দীর্ঘ সময় উচ্চস্বরে হেভি মেটালের মিউজিক বাজানো ও তার মাকে ধর্ষণের হুমকিসহ বিভিন্নভাবে তাকে নির্যাতনের কথা ওই বইতে উল্লেখ করেন তিনি।

বইটি আন্তর্জাতিকভাবে বিপুল পাঠকপ্রিয়তা পায় এবং ওই বই থেকে ‘দ্যা মৌরিতানিয়ান’ চলচ্চিত্রের কাহিনী দাঁড় করানো হয়।

২০১৬ সালে মুক্তি পেলেও সালাহি মিডল ইস্ট আইকে জানান, তার পাসপোর্ট জব্দ করার মাধ্যমে এখনো তাকে শাস্তি দেয়া হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রকে অভিযুক্ত করে তিনি বলেন, আমেরিকা চায় না তিনি বিশ্ব ভ্রমণ করে তার বন্দী জীবনের অভিজ্ঞতা কারো সামনে প্রকাশ করেন।

চলচ্চিত্রটিতে তার দুর্ভোগের অভিজ্ঞতার গল্প সমালোচকদের প্রশংসা কুড়িয়েছে এবং রহিমের সাথে সাথে সালাহির আইনজীবী ন্যান্সি হল্যান্ডার চরিত্রে অভিনয়ের জন্য মার্কিন চলচ্চিত্র অভিনেত্রী জুডি ফস্টার শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন।

গ্লোডেন গ্লোব ২০২১ পুরস্কার অনুষ্ঠান আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ক্যালোফোর্নিয়ার বেভারলি হিলে অনুষ্ঠিত হবে। করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে সাধারণ সময়ের চেয়ে দুই মাস দেরিতে এই পুরস্কার দেয়া হচ্ছে।

সূত্র : মিডল ইস্ট আই



আরো সংবাদ